artk
৩ কার্তিক ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, বুধবার ১৮ অক্টোবর ২০১৭, ১:২৫ অপরাহ্ন

শিরোনাম

এই মুহূর্তে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পাশে দাঁড়ানো জরুরি!

আশানুর রহমান খোকন |
প্রকাশ: ১২৩৮ ঘণ্টা, মঙ্গলবার ১৫ মার্চ ২০১৬ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১০৫৪ ঘণ্টা, বুধবার ১৬ মার্চ ২০১৬


এই মুহূর্তে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পাশে দাঁড়ানো জরুরি! - পাঠকের লেখা

২০১৩ সালের এপ্রিলে পাকাপাকি কানাডা চলে এলাম। ঐ বছরেরই নভেম্বর মাসে রয়েল ব্যাংক অব কানাডার এইচআর বিভাগের একটি মেয়ে আমাকে ফোনে জানায় যে, তারা আমার ফোন ইন্টারভিউ নিতে চায়। নির্ধারিত দিনে অনেকগুলো প্রশ্নের শেষটা ছিল আমি কেন ব্যাংকে যোগ দিতে চাই।  উত্তরে বলেছিলাম, ' Banking is the business of gentlemen and I consider myself as a gentleman'. ব্যাংকে আমার জবটি হয়েছিল।

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ ফান্ডের টাকা লোপাটের ঘটনা ও বাংলাদেশের আর্থিক খাতে এই মূহূর্তে যে নৈরাজ্য চলছে তার প্রেক্ষিতে নিশ্চিত ভাবেই বলতে পারি, ইন্টারভিউতে যে কথাটি বলেছিলাম তা সত্য নয়।

বাংলাদেশের আর্থিকখাতে যতটুকু শৃঙ্খলা গড়ে উঠেছিল, সাম্প্রতিক ঘটনা তাতে ধ্বস নামিয়েছে। ব্যাংকিং ব্যবসায় মালিকানার নামে জনগণের টাকা লুটপাটকারীরা এই অবস্থার পরিপূর্ণ সুযোগ নেবে এবং আর্থিকখাতে বিশৃঙ্খলা বাড়াবে পরিকল্পিতভাবে। গত চল্লিশ বছরের প্রচেষ্টায় কেন্দ্রীয় ব্যাংক যতটুকু অটোনমি ভোগ করতো তা অনেকাংশে খর্ব হবে এবং সরকারের নিয়ন্ত্রন অারো জোরদার হবে, পরিণামে আর্থিকখাতের লুটপাট ভবিষ্যতে আরো বাড়বে। বর্তমান পরিস্থিতি সামাল দিতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক যে সমস্ত সিদ্ধান্ত ইতোমধ্যে নিয়েছে বা নিতে যাচ্ছে তাতে Financial Watch Dog হিসাবে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ভূমিকাকে আরো প্রশ্নবিদ্ধ করে তুলবে এবং নিয়ন্ত্রনকারী প্রতিষ্ঠান হিসাবে তার নৈতিক অবস্থান দূর্বল করে তুলবে।

এই প্রেক্ষিতে, পরিস্থিতির চাপে পড়ে তড়িঘড়ি করে কোন সিদ্ধান্ত না নিয়ে দীর্ঘমেয়াদি ও পলিসিগত বিষয়গুলোকে সময় নিয়ে, ঠান্ডা মাথায় বাস্তাবায়নের উদ্যোগ নিতে হবে।

অনেকেরই মনে থাকার কথা। ১৯৮৯ সালে ভিপি সিং সরকার ক্ষমতায় এসেছিল জনগণের কাছে কিছু প্রতিশ্রুতি দিয়ে। যেমন বলেছিল ৫ হাজার রুপি পর্যন্ত কৃষিঋণ মওকুপ করে দেবেন।

সে সময় বিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার গর্ভণর ছিলেন এস ভেঙ্ককিটারামানন। তাকে সাংবাদিকরা এবিষয়ে প্রশ্ন করলে তিনি উত্তর দিয়েছিলেন, ' কৃষিঋণেরর টাকাতো জনগণের। ভিপি সিং সে টাকা মওকুফ করার কে?'

প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে এরকম একটি মন্তব্য করার সাহসের জন্য কেন্দ্রীয় ব্যাংকের যতটুকু অটোনমি দরকার, বর্তমান পরিস্থিতি মোকাবেলায় ও ভবিষ্যতে সুস্থ্য আর্থিক ব্যবস্হাপনার স্বার্থে ব্যাংকারদের বিশেষ করে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের স্বায়ত্তশাসনের জোর দাবী ও কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পাশে দাঁড়ানোটা খুবই জরুরী!

লেখক: কানাডা প্রবাসী ব্যাংকার

নিউজবাংলাদেশ.কম/টিএবি

নিউজবাংলাদেশে লেখকের আরো লেখা: হরি, রাম ও কেন্দ্রীয় ব্যাংক

                                                নজরুল ও নার্গিস

 

সংশ্লিষ্ট লেখা: 

রিজার্ভ লুটের ঘটনায় কয়েকটি প্রশ্ন

বাংলাদেশ ব্যাংকের মামলা সিআইডিতে

আতিউরের পদত্যাগ সৎ সাহসের বিরল দৃষ্টান্ত: প্রধানমন্ত্রী

ব্যাংক ও আর্থিক বিভাগের সচিব ওএসডি

রিজার্ভ চুরি পদত্যাগী গভর্নর আতিউর রহমানের লিখিত বক্তব্য

বাংলাদেশ ব্যাংকের ২ ডেপুটি গভর্নরকে অব্যাহতি

‘রিজার্ভ চুরির ঘটনায় ফেডারেল রিজার্ভই দায়ী’

রিজার্ভ চুরি: অজ্ঞাত আসামি করে বাংলাদেশ ব্যাংকের মামলা

রিজার্ভ চুরি তদন্তে শাবেক গভর্নরের নেতৃত্বে ৩ সদস্যের কমিটি

পদত্যাগ করলেন গভর্নর আতিউর রহমান

‘রিজার্ভ থেকে অর্থ চুরির কারণ আইটি দুর্বলতা’

‘আর্থিক খাতে সাইবার দুর্ঘটনার ১০টির ৯টি গোপন রাখা হয়’ 

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত