artk
বুধবার, সেপ্টেম্বার ১৮, ২০১৯ ৭:১৯   |  ৩,আশ্বিন ১৪২৬

নিজস্ব প্রতিবেদক

বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বার ১২, ২০১৯ ৮:৪৮

বেসরকারি হাসপাতালে প্রসুতির ৮০ ভাগই সিজারিয়ান

media

সিজারিয়ান প্রসব উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে; কিন্তু এটি কোনো বিকল্প নয় বলে মন্তব্য করেছেন সংশ্লিষ্টরা। তাদের মতে, সিজারিয়ান প্রসবের কারণে মায়েরা নানা সমস্যার সন্মুখীন হচ্ছেন। বরং ব্যথামুক্ত নরমাল ডেলিভারি মায়েদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় উপকারী।

সিজারিয়ান প্রসব উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে; কিন্তু এটি কোনো বিকল্প নয় বলে মন্তব্য করেছেন সংশ্লিষ্টরা। তাদের মতে, সিজারিয়ান প্রসবের কারণে মায়েরা নানা সমস্যার সন্মুখীন হচ্ছেন। বরং ব্যথামুক্ত নরমাল ডেলিভারি মায়েদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় উপকারী।

বুধবার ঢাকায় এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য তুলে ধরেন বক্তারা। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আইনুল কবীর এবং অতিথি ছিলেন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব তপন কুমার বিশ্বাস। এ সময় সিঙ্গাপুরের ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি হাসপাতালের সিনিয়র কনস্যালটেন্ট ডা. মো. তৌফিক ইসলাম এবং আয়ারল্যান্ড ওয়াটারফোর্ড ইউনিভার্সিটি হাসপাতালের সিনিয়র কনস্যালটেন্ট জিন্নুরাইন জয়গিরদার। লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেন পোর্টিয়নকুলা ইউনিভার্সিটি হাসপাতালের সিনিয়র কনস্যালটেন্ট ডা. কাজী নাফিজা হামিদ।

তেজগাঁওয়ের ইমপালস হসপিটালের আয়োজনে সংবাদ সম্মেলনে জানান হয়, বাংলাদশে বেসরকারি হাসপাতালে প্রসবের ৮০ শতাংশেরও বেশি সিজারের মাধ্যমে হয়ে থাকে, যা ঝুঁকিপূর্ণ এবং ব্যয়বহুল হলেও সম্পূর্ণ অপ্রয়োজনীয়। এক গবেষণায় দেখা গেছে, প্রতি বছর সিজারের মাধ্যমে সন্তান প্রসব করানোর জন্য সারাদেশে রোগীদের কাছ থেকে প্রায় ১২০০ কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়া হয়। এধরনের ডেলিভারি মা এবং শিশু দুই জনকেই ঝুঁকির মধ্যে ঠেলে দেয়। অনেক গর্ভবতী মা প্রায়ই ব্যথা আতঙ্কের কারণে সন্তান প্রসব করার জন্য অস্ত্রোপচার করতে বাধ্য হন। তবে অতিরিক্ত অর্থ খরচ করার পরেও তাদের প্রসব পরবর্তী দীর্ঘ মেয়াদি বিভিন্ন জটিলতার সম্মুখীন হতে হয়।

সংবাদ সম্মেলনে ইমপাল্স হেল্থ সার্ভিসেস অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টার লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রফেসর ডা. জাহের আল-আমিন বলেন, সিজারিয়ান কোনো মতেই স্বাভাবিক প্রসবের বিকল্প হতে পারে না। আবার আধুনিকতার নিরিখে প্রসবের সময় ব্যথাও কোনো মতে কাম্য নয়। এইসব চিন্তা করেই ইমপাল্স হসপিটাল গত বছর থেকে ব্যথামুক্ত নরমাল ডেলিভারির ব্যবস্থা শুরু করেছে এবং যথেষ্ট সাফল্যও অর্জন করেছে। সাধারণ ব্যথাহীন নরমাল ডেলিভারির জন্য যা প্রয়োজন তা হচ্ছে একটি সুসজ্জিত ব্যবস্থাপনা, পর্যাপ্ত অ্যানেসথিয়েসিস্ট, ২৪ ঘণ্টার জন্য সার্বক্ষণিক কনসালটেন্টদের উপস্থিতি, যার মাধ্যমে প্রি-ডেলিভারি, ডেলিভারি এবং ডেলিভারি-পরবর্তী সেবা দক্ষতার সঙ্গে করা সম্ভব। তিনি জানান, এই উদ্যোগকে আরো বেগবান এবং অত্যাধুনিক করতে আমরা বিদেশ থেকে বিশেষজ্ঞ টিম এনেছি।

ডা. কাজী নাফিজা হামিদ তার উপস্থাপনায় বলেন, উন্নত বিশ্বে সব মা-ই ব্যথামুক্ত নরমাল ডেলিভারি প্রত্যাশা করে থাকে। তারা চায় সন্তান প্রসবের পরবর্তী সময়ে যেসব সেবার দরকার হয় তাও হতে হবে ব্যথামুক্ত। এপিডুরাল অ্যানালজেসিয়া পদ্ধতি সম্পর্কে বর্ণনা করতে তিনি বলেন, এটি ব্যবহার করলে রোগীরা সম্পূর্ণ ব্যথামুক্তভাবে তাদের সন্তান প্রসব করতে পারে।

 

শান্তর পর সাজঘরে লিটন আলোচনার মাধ্যমে জিপি-রবির সমস্যা সমাধান: অর্থমন্ত্রী গিয়াস কাদের চৌধুরীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা যুবলীগ নেতার ক্যাসিনোতে র‌্যাবের অভিযান, ১৪২ নারী-পুরুষ আটক সাব্বির বাদ অভিষেক শান্ত ও আমিনুলের বিনিয়োগ সেবার মান বাড়াতে হবে: বিডা চেয়ারম্যান ঢাকা দক্ষিণে ডেঙ্গু কতটা নিয়ন্ত্রণে সাংবাদিকদের মূল্যায়ন চান খোকন বাবা হওয়ার খবর জানাতে লঙ্কা কাণ্ড ঘটালেন আন্দ্রে রাসেল কোনো চালক ডোপ টেস্টে ধরা পড়লে সরাসরি জেলে: এনায়েত উল্যাহ স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের ৫০০ কোটি টাকার বন্ড অনুমোদন টস হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ মুন্নু সিরামিকস ও জুট স্টাফলার্সের শেয়ার কারসাজির প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দুদক কাঙ্খিত জনআস্থা অর্জনে ব্যর্থ: ইকবাল মাহমুদ রিফাত হত্যা: পলাতক ৯ আসামির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা বাংলাদেশ-সার্বিয়ার অর্থনৈতিক সম্পর্ক উন্নয়নে গুরুত্বারোপ জয়ন্ত চৌধুরীর ‘অনির্বাণ নেতাজি’ গ্রন্থের পাঠোন্মচন বৃহস্পতিবার সরকারি-আধা সরকারি পিয়নের চাকরির জন্যও টাকা দিতে হয়: মওদুদ নার্সিং প্রশিক্ষণ আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত হবে: প্রধানমন্ত্রী ঢাবিতে আন্দোলনকারীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা (ভিডিও) শাহজালালে কোটি টাকার সোনা জব্দ ছাত্রদলের কাউন্সিলরদের বিকেলের মধ্যে নয়াপল্টনে থাকার নির্দেশ পটুয়াখালীতে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় দুই আরোহী নিহত বিএসএফের গুলিতে নিহত বাংলাদেশির মরদেহ ফেরত জাবিতে আন্দোলনকারী শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মোবাইল সেবা বন্ধ রাঙামাটিতে ২ জেএসএস কর্মীকে গুলি করে হত্যা গাজীপুরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত জাকির নায়েককে কেউ নিতে চায় না: মাহাথির সকালের নাস্তায় ভুল খাবার নয়, রাখুন এসব যে গ্রামের সব মানুষ দৃষ্টিহীন গণধর্ষণ মামলার বাদীর দুই পা গুড়িয়ে দিয়েছে আসামিরা