artk
বুধবার, সেপ্টেম্বার ১১, ২০১৯ ১০:৩৯

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত: লতিফ সিদ্দিকী বেকসুর খালাস

media

আবদুল লতিফ সিদ্দিকী: ফাইল ফটো

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার ঘটনায় মাগুরায় দায়েরকৃত মামলা থেকে সাবেক ডাক টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে।

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার ঘটনায় মাগুরায় দায়েরকৃত মামলা থেকে সাবেক ডাক টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে।

বুধবার মাগুরার জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-২ এর বিচারিক হাকিম মাহবুবা শারমীন এ রায় দেন।

তবে রায়ের প্রতি অসন্তুষ্ট হয়ে মামলার বাদি রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবেন বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট আইনজীবী ওয়াসিকুর রহমান কল্লোল।

মাগুরার সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি সৈয়দ রফিকুল ইসলাম তুষার ২০১৪ সালের ১৬ অক্টোবর সাবেক মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার অভিযোগে মাগুরা জজ আদালতে মামলাটি দায়ের করেন।

মামলায় বাদি উল্লেখ করেন, ২০১৪ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকশন হাইটস হোটেলের এক অনুষ্ঠানে লতিফ সিদ্দিকী হযরত মুহম্মদ (সা.), পবিত্র হজ, তাবলিগ জামাত সম্পর্কে অবমাননাকর ও বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন- তা ইসলাম ধর্মের অনুসারীদের জন্য চরম আঘাত। মামলার বাদিপক্ষের আইনজীবী ওয়াসিকুর রহমান কল্লোল জানান, জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-২ এর বিচারিক হাকিম মাহবুবা শারমীন বাদিপক্ষের যুক্তিতর্ক শেষে রায় ঘোষণার নির্ধারিত দিনে বুধবার আসামিকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন।

রায়ে বাদী ক্ষুব্ধতা প্রকাশ করে উচ্চ আদালতে আপিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তিনি আশা করছেন উচ্চ আদালতে তিনি ন্যায় বিচার পাবেন।

২০১৪ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে টাঙ্গাইল সমিতির ওই অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের তৎকালীন সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এবং ডাক ও টেলিযোগাযোগ এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী প্রধানমন্ত্রীপুত্র সজীব ওয়াজেদ জয়ের প্রসঙ্গেও বিরূপ মন্তব্য করেন।

এরপর তাকে দলের সভাপতিমণ্ডলীর পদ ও মন্ত্রীত্ব থেকে অবসর দেয়া হয় এবং দল থেকে বহিষ্কার করা হয়।

টাঙ্গাইল-৪ আসনে চার বারের সংসদ সদস্য লতিফ সিদ্দিকী ২০০৯ সালে শেখ হাসিনার সরকারে বস্ত্র ও পাটমন্ত্রীর দায়িত্ব নিয়ে পাঁচ বছর তা পালন করেন। ২০১৪ সালে আওয়ামী লীগ পের সরকার গঠন করলে তিনি দুই মন্ত্রণালয় ডাক ও টেলিযোগাযোগ এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির দায়িত্ব পান।  কিন্তু তা পালনের এক বছর না পেরোতেই বিদায় নিতে হল তাকে।

যুক্তরাষ্ট্রকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিল হুয়াওয়ে ‘ভারত বুঝুক, হারের পর সামনে এসে উল্লাস করলে কেমন লাগে’ মৎস্য কর্মকর্তা লাঞ্ছিত, উপজেলা চেয়ারম্যান বরখাস্ত নারায়ণগঞ্জে শিশুসহ একই পরিবারের দগ্ধ ৮ নায়ক মান্না চলে যাওয়ার ১ যুগ করোনায় মৃত্যুর মিছিলে আরও ১০০ জন বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে ২ মেডিক্যাল শিক্ষার্থী নিহত ইঁদুরেই খেয়েছে ১ লাখ মেট্রিক টন ফসল করোনাভাইরাস আতঙ্কে সিঙ্গাপুরফেরত স্বামীকে রেখে পালালেন স্ত্রী ঘুষের অভিযোগ থেকে সিনহাকে অব্যাহতি কোভিড ১৯: এবার তাইওয়ানে প্রথম মৃত্যু ভোটাররা দেরিতে ঘুম থেকে উঠায় ভোট হবে ৯টায়: ইসি সচিব এই সেলফি তোলার পরেই ট্রেনের ধাক্কায় স্কুলছাত্রের মৃত্যু করোনাভাইরাস: প্রযুক্তিই চীনের শেষ ভরসা সঞ্চয়পত্রে নয়, সুদ কমেছে ডাকঘর সঞ্চয় স্কিমের: অর্থ মন্ত্রণালয় বিশ্বকাপজয়ী ৬ ক্রিকেটার নিয়ে বিসিবি একাদশ ঘোষণা সিরাজগঞ্জে বাস খাদে পড়ে নিহত ৩ চট্টগ্রাম, বগুড়া ও যশোর সিটিতে ভোট ২৯ মার্চ করোনাভাইরাস শনাক্তে বাংলাদেশকে উন্নত কিটস দেবে চীন একত্রে কাজ করবে ডিএসই ও সিএসই বিশ্রামে রিয়াদ, ফিরলেন তাসকিন-মোস্তাফিজ করের বকেয়া অর্থ না দেয়াও দুর্নীতি: দুদক চেয়ারম্যান দক্ষদের নিয়োগ দিচ্ছে টেসলা, ডিগ্রি না হলেও চলবে খালেদা জিয়ার প্যারোল আবেদন সরকার পায়নি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চিকেন পক্স হলে কী খাবেন বাংলা তারিখ ব্যবহারে নিষ্ক্রিয়তা কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট কারিগরি শিক্ষার্থীদের বেশি গুরুত্ব দেয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ডিএসইএক্সের সেরা দ্বিতীয় উত্থান মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে তৃতীয় মেয়াদে শপথ নিলেন কেজরিওয়াল ফিটনেস ও নিবন্ধনহীন গাড়ি বন্ধে সব জেলায় টাস্কফোর্স গঠনের নির্দেশ