artk
বুধবার, সেপ্টেম্বার ১৮, ২০১৯ ১০:০৩   |  ৩,আশ্বিন ১৪২৬

নিজস্ব প্রতিবেদক

সোমবার, সেপ্টেম্বার ৯, ২০১৯ ১২:১০

কাস্টমসে যোগদান করতে এসে দেখেন নিয়োগপত্র ভুয়া

media

দেশের সবচেয়ে বড় রাজস্ব আদায়কারী প্রতিষ্ঠান চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসে চাকরিতে যোগ দিতে এসে তিন তরুণ জানতে পেরেছেন নিয়োগপত্র ‘ভুয়া’।

দেশের সবচেয়ে বড় রাজস্ব আদায়কারী প্রতিষ্ঠান চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসে চাকরিতে যোগ দিতে এসে তিন তরুণ জানতে পেরেছেন নিয়োগপত্র ‘ভুয়া’।

প্রতারণার শিকার তরুণরা হলেন-লালমনির হাটের, হাতীবান্ধা থানার পূর্ব বেজগ্রামের কৃষ্ণ কান্ত চক্রবর্তীর ছেলে মিলন চক্রবর্তী, সাতক্ষীরার কলারোয়া থানার বোয়ালিয়া গ্রামের আরিজুল ইসলামের ছেলে সাইফুল ইসলাম এবং একই থানার ওফাপুর গ্রামের আকিমুদ্দীনের ছেলেন আব্দুল গফুর।

গফুরকে অফিস সহায়ক পদের এবং বাকি দুইজনকে অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক পদের ভুয়া নিয়োগপত্র দিয়েছে একটি সংঘবদ্ধ চক্র।

কাস্টম হাউস সূত্রে জানা গেছে, রোববার (৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে তিন তরুণ চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের দোতলায় ঘোরাঘুরি করতে থাকেন। একপর্যায়ে তারা কাস্টম হাউসের কমিশনারের একান্ত সহকারীর কক্ষে ঢুকে কাজে যোগদান করতে আসার বিষয়টি জানান। দেখান ডাকযোগে পাওয়া সেই নিয়োগপত্রগুলো। যেখানে  কাস্টম হাউসের কমিশনার এম ফখরুল আলমের নামীয় সিলসহ ‘জাল’ সই রয়েছে। তারিখ দেওয়া হয়েছে গত ২৬ আগস্টের। ওই কাগজে এনবিআরের স্মারক, বিধিমালা, আইন, এসআরও, বেতন স্কেল ও ৯টি শর্ত উল্লেখ করে ২-১০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে যোগদানের নির্দেশও রয়েছে।

প্রতারিত হওয়া তরুণদের দাবি-গত ২২ জুন সকালে নগরের আগ্রাবাদ কলোনি উচ্চ বিদ্যালয়ে তারা নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন। তাদের কাছে প্রবেশপত্রও রয়েছে। ২০১৮ সালের ১০ মে ইস্যু করা প্রবেশপত্রে  ‘জাল’ সই রয়েছে এডিশনাল কমিশনার অব কাস্টমস ড. নাহিদা ফরিদীর। চাকরি নিশ্চিত করার জন্য প্রতারকদের লোকজনকে মোটা অঙ্কের টাকাও দিয়েছেন তারা। প্রতারকরা যথারীতি পুলিশ ভেরিফিকেশন, ডাক্তারি পরীক্ষাসহ সরকারি চাকরির নিয়ম অনুযায়ী সবকিছু করিয়েছেন।

কাস্টম হাউসের অতিরিক্ত কমিশনার আকবর হোসেনের কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে বলেন, জাল সই ও সিল দেওয়া নিয়োগপত্র নিয়ে তিন তরুণ এসেছিলেন কাজে যোগ দিতে। আমাদের ধারণা তারা কোনো চক্রের দ্বারা প্রতারিত হয়েছে। যদি তারা চাকরির জন্য ঘুষ দিয়ে থাকে তবে থানায় মামলা এবং আমাদের লিখিতভাবে অবহিত করলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন কাস্টম কর্মকর্তা বলেন, তরুণদের কথা অনুযায়ী কয়েক বছর ধরে এ প্রক্রিয়া চলছে। তাদের প্রবেশপত্র দেওয়া হয়েছে, পরীক্ষা গ্রহণ করা হয়েছে সর্বশেষ তাদের নামে ভুয়া নিয়োগপত্র পাঠানো হয়েছে। এর সঙ্গে জড়িত সংঘবদ্ধ চক্রটিকে অবশ্যই আইনের আওতায় আনা উচিত। নয়তো আরও অনেক বেকারের প্রতারিত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

ক্যাসিনো থেকে আটক: ৩১ জনকে ১ বছর ও বাকিদের ৬ মাসের কারাদণ্ড জাপানি মেয়েদের কাছে বাংলাদেশের অসহায় আত্মসমর্পন কাঁপছে জিম্বাবুয়ে মির্জা আব্বাসের বাসায় হচ্ছে ছাত্রদলের কাউন্সিল মৃত্যুর আগে রিকশাচালককে রিফাতের শেষ কথা মাহমুদউল্লাহ ঝড়ে জিম্বাবুয়েকে ১৭৬ রানের টার্গেট দিলো টাইগাররা মানসম্পন্ন রিপোর্ট পুঁজিবাজারকে উচ্চস্তরে নিয়ে যাবে: ডিএসই পরিচালক যুবলীগ নেতা খালেদ মাহমুদ অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার ই-সিগারেট নিষিদ্ধ করলো ভারত সরকার শান্তর পর সাজঘরে লিটন আলোচনার মাধ্যমে জিপি-রবির সমস্যা সমাধান: অর্থমন্ত্রী গিয়াস কাদের চৌধুরীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা যুবলীগ নেতার ক্যাসিনোতে র‌্যাবের অভিযান, ১৪২ নারী-পুরুষ আটক সাব্বির বাদ অভিষেক শান্ত ও আমিনুলের বিনিয়োগ সেবার মান বাড়াতে হবে: বিডা চেয়ারম্যান ঢাকা দক্ষিণে ডেঙ্গু কতটা নিয়ন্ত্রণে সাংবাদিকদের মূল্যায়ন চান খোকন বাবা হওয়ার খবর জানাতে লঙ্কা কাণ্ড ঘটালেন আন্দ্রে রাসেল কোনো চালক ডোপ টেস্টে ধরা পড়লে সরাসরি জেলে: এনায়েত উল্যাহ স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের ৫০০ কোটি টাকার বন্ড অনুমোদন টস হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ মুন্নু সিরামিকস ও জুট স্টাফলার্সের শেয়ার কারসাজির প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দুদক কাঙ্খিত জনআস্থা অর্জনে ব্যর্থ: ইকবাল মাহমুদ রিফাত হত্যা: পলাতক ৯ আসামির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা বাংলাদেশ-সার্বিয়ার অর্থনৈতিক সম্পর্ক উন্নয়নে গুরুত্বারোপ জয়ন্ত চৌধুরীর ‘অনির্বাণ নেতাজি’ গ্রন্থের পাঠোন্মচন বৃহস্পতিবার সরকারি-আধা সরকারি পিয়নের চাকরির জন্যও টাকা দিতে হয়: মওদুদ নার্সিং প্রশিক্ষণ আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত হবে: প্রধানমন্ত্রী ঢাবিতে আন্দোলনকারীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা (ভিডিও) শাহজালালে কোটি টাকার সোনা জব্দ ছাত্রদলের কাউন্সিলরদের বিকেলের মধ্যে নয়াপল্টনে থাকার নির্দেশ