artk
বুধবার, সেপ্টেম্বার ১৮, ২০১৯ ৭:৪২   |  ৩,আশ্বিন ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

শুক্রবার, সেপ্টেম্বার ৬, ২০১৯ ৮:০২

ফরিদপুরের পর্দার কাছে হেরে গেলো রূপপুরের বালিশ: ফখরুল

media

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘একটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পর্দা কেনার দুর্নীতির কাছে হেরে গেছে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের বালিশ কেনার দুর্নীতি।’

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘একটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পর্দা কেনার দুর্নীতির কাছে হেরে গেছে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের বালিশ কেনার দুর্নীতি।’

শুক্রবার বিকেলে জাতীয় প্রেস ক্লাবে সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমানের ১০ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিলে এ কথা বলেন তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, এক হাসপাতালে (ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ) ৩৭ লাখ টাকার পর্দা কেনার দুর্নীতি বালিশ কেনার দুর্নীতির কাছে হেরে গেছে। অর্থাৎ পর্দার কাছে হেরে গেছে বালিশ। এই হচ্ছে বর্তমান অবস্থা, চারদিকে শুধু লুট ও লুটেরা। এ অবস্থায় চলছে এখন দেশে। আজকে প্রয়াত অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমান সাহেবরা থাকলে রামপালে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র, রূপপুরে এভাবে পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র হতো না। ব্যাঙের ছাতার মতো ব্যাংক হতো না। সাইফুর রহমান সাহেব দেশপ্রেমিক ছিলেন, দেশকে ভালোবাসতেন। নিজের বা দলের লাভবান হওয়ার জন্য দেশের সার্থকে জলাঞ্জলি দেননি।

নির্মাণাধীন দেশের অন্যতম মেগা প্রকল্প রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বসবাসের জন্য নির্মিত গ্রিনসিটিতে আসবাবপত্র ও অন্যান্য জিনিসপত্র ক্রয়ে লাগামছাড়া দুর্নীতির তথ্য গত মে মাসে ফাঁস হয়। এই প্রকল্পে একটি বালিশের পেছনে ব্যয় দেখানো হয় ৬ হাজার ৭১৭ টাকা। এরমধ্যে এর দাম বাবদ ৫ হাজার ৯৫৭ টাকা আর সেই বালিশ নিচ থেকে ফ্ল্যাটে ওঠাতে খরচ ৭৬০ টাকা উল্লেখ করা হয়েছে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ব্যাঙের ছাতার মতো ব্যাংক দেয়ায় এগুলো মুখ থুবড়ে পড়ছে। পত্রিকায় দেখলাম, হল-মার্ককে আবার সুযোগ দেয়া হবে। অর্থাৎ লুটেরা অর্থনীতিকে আবার লুটেরাদের মধ্যে নিয়ে আসা। এটাই হচ্ছে তাদের চরিত্র। সব লুট করছে চারদিকে। এমনভাবে লুট করছে যে, এই দেশকে একটি ফোকলা অর্থনীতিতে পরিণত করছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, খালেদা জিয়াকে বন্দি রেখেছে শুধু একটি কারণে। উনি যদি বাইরে থাকেন তাহলে লুটপাট চলবে না। মানুষের অধিকারকে বিনষ্ট করা যাবে না। উনি ঠিকই সব মানুষকে নিয়ে প্রতিহত করতেন। দেশের মানুষ অবশ্যই দেশনেত্রীকে বের করে আনবেন, গণতন্ত্রকে মুক্ত এবং তাদের (আওয়ামী লীগ) প্রতিহত করবে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক প্রমুখ।

যুবলীগ নেতা খালেদ মাহমুদ অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার ই-সিগারেট নিষিদ্ধ করলো ভারত সরকার শান্তর পর সাজঘরে লিটন আলোচনার মাধ্যমে জিপি-রবির সমস্যা সমাধান: অর্থমন্ত্রী গিয়াস কাদের চৌধুরীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা যুবলীগ নেতার ক্যাসিনোতে র‌্যাবের অভিযান, ১৪২ নারী-পুরুষ আটক সাব্বির বাদ অভিষেক শান্ত ও আমিনুলের বিনিয়োগ সেবার মান বাড়াতে হবে: বিডা চেয়ারম্যান ঢাকা দক্ষিণে ডেঙ্গু কতটা নিয়ন্ত্রণে সাংবাদিকদের মূল্যায়ন চান খোকন বাবা হওয়ার খবর জানাতে লঙ্কা কাণ্ড ঘটালেন আন্দ্রে রাসেল কোনো চালক ডোপ টেস্টে ধরা পড়লে সরাসরি জেলে: এনায়েত উল্যাহ স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের ৫০০ কোটি টাকার বন্ড অনুমোদন টস হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ মুন্নু সিরামিকস ও জুট স্টাফলার্সের শেয়ার কারসাজির প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দুদক কাঙ্খিত জনআস্থা অর্জনে ব্যর্থ: ইকবাল মাহমুদ রিফাত হত্যা: পলাতক ৯ আসামির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা বাংলাদেশ-সার্বিয়ার অর্থনৈতিক সম্পর্ক উন্নয়নে গুরুত্বারোপ জয়ন্ত চৌধুরীর ‘অনির্বাণ নেতাজি’ গ্রন্থের পাঠোন্মচন বৃহস্পতিবার সরকারি-আধা সরকারি পিয়নের চাকরির জন্যও টাকা দিতে হয়: মওদুদ নার্সিং প্রশিক্ষণ আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত হবে: প্রধানমন্ত্রী ঢাবিতে আন্দোলনকারীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা (ভিডিও) শাহজালালে কোটি টাকার সোনা জব্দ ছাত্রদলের কাউন্সিলরদের বিকেলের মধ্যে নয়াপল্টনে থাকার নির্দেশ পটুয়াখালীতে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় দুই আরোহী নিহত বিএসএফের গুলিতে নিহত বাংলাদেশির মরদেহ ফেরত জাবিতে আন্দোলনকারী শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মোবাইল সেবা বন্ধ রাঙামাটিতে ২ জেএসএস কর্মীকে গুলি করে হত্যা গাজীপুরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত জাকির নায়েককে কেউ নিতে চায় না: মাহাথির সকালের নাস্তায় ভুল খাবার নয়, রাখুন এসব