artk
বুধবার, অক্টোবার ১৬, ২০১৯ ১২:২৮   |  ৩০,আশ্বিন ১৪২৬

যশোর প্রতিনিধি

বুধবার, আগষ্ট ২৮, ২০১৯ ১২:৫৬

যশোরে নারী পকেটমার আটক, মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে মুক্তি

media

যশোরের বেনাপোল কমিউটার ট্রেনে পকেট থেকে মানিব্যাগ উঠিয়ে নেয়ার সময় নাসিমা বেগম (৫০) নামে এক নারী পকেটমার ধরা পড়েন জনতার হাতে। এসময় স্টেশনে থাকা জিআরপি পুলিশের সৈনিক বক্কার ওই নারীকে হেফাজতে নেন। কিছু সময় পরে রেলের নিরাপত্তা কর্মী তরিকুলসহ কয়েকজন সদস্য জিআরপি পুলিশের সৈনিক বক্কারের কাছ থেকে ওই নারী পকেটমারকে ছিনিয়ে নেন। পরে রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর কর্মকর্তারা বড় অংকের টাকার বিনিময়ে ওই নারীকে ছেড়ে দেন। 

ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বেনাপোল রেলস্টেশনে। 

এ ঘটনায় পুরো স্টেশন জুড়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। 

কথিত আছে, নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের সহযোগিতায় রেলওয়েতে দীর্ঘদিন ধরে পকেটমাররা নিবিঘ্নে যাত্রীদের পকেট কেটে চলেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বেনাপোল রেলস্টেশন প্লাটফর্মে বেনাপোল কমিউটার ট্রেনটি পৌছায়। এসময় যাত্রীরা তাড়াহুড়া করে ট্রেনে ওঠার সময় নারী পকেটমার তাসলিমা বেগম মহবত হোসেন (১৭) নামে এক কলেজ ছাত্রের মানিব্যাগ তুলে নেন। পকেট থেকে মানিব্যাগ উঠিয়ে নেয়ার সময় মহবতের পাশে থাকা বন্ধু নাজমুল নারী পকেটমারকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন। লোকজনের হৈ-হুল্লোড় দেখে সেখানে পৌঁছে যান প্লার্টফর্মে থাকা জিআরপি পুলিশের সৈনিক বক্কার। নারী পকেটমার তাসলিমাকে গণপিটুনি থেকে রক্ষা করতে তিনি নিজের হেফাজতে নেন। কিছু সময় পরে রেলওয়ের নিরাপত্তা সদস্য তরিকুলসহ কয়েকজন সদস্য সেখানে পৌঁছে জিআরপি পুলিশ সদস্য বক্কারের কাছে পকেটমারকে ছিনিয়ে নিয়ে নিরাপত্তা ব্যারাকে নিয়ে যান। সেখানে কয়েক ঘণ্টা রাখার পরে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে ওই নারীকে ছেড়ে দেন নিরাপত্তা পুলিশ কর্মকর্তা। 

বেনাপোল রেলওয়ে জিআরপি ফাঁড়ির ইনচার্জ কামালউদ্দিনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, “আমার সৈনিক ওই নারী পকেটমারকে উদ্ধার করে হেফাজতে নেয়। কিন্তু অতি উৎসাহিত হয়ে রেলের নিরাপত্তাকর্মীরা আমার সদস্যদের কাছ থেকে ওই নারী পকেটমারকে জোর করে ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এ বিষয়ে আমি আমার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে জানিয়েছি। এর পরে নিরাপত্তা কর্মকর্তা বদর আমার কাছে আসামি দিতে এসেছিল কিন্তু আমার কর্মকর্তা আসামিকে জিম্মায় নিতে নিষেধ করায় আমি তাকে গ্রহণ করিনি।”

বিষয়টি নিয়ে বেনাপোল রেলওয়ে নিরাপত্তা কর্মকর্তা বদরউদ্দিনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, “জনতার হাতে পকেটমার ধরা পড়ে নিহত হওয়ার আশষ্কায় আমরা তাকে হেফাজতে নেই। তবে ভিকটিম মহবত হোসেন ওই নারীর বিরুদ্ধে মামলা করতে না চাওয়ায় তাকে এক নারীর জিম্মায় ছেড়ে দেয়া হয়। আর ভিকটিম মহবতের মানিব্যাগে থাকা ১৮৯০ টাকা ফেরত দেয়া হয়েছে।”

তবে টাকা নিয়ে মহিলাকে ছেড়ে দেয়ার বিষয়টি তিনি অস্বীকার করেন। 

পাকিস্তানকে আর পানি দেয়া হবে না: মোদি বিশ্ব মানবাধিকারের সংজ্ঞা ভারতের জন্য নয়: অমিত শাহ নৌকার তিনগুণ বেশি ভোট পেল ধানের শীষ পাশ্চাত্যের হুমকিতে কোনো কাজ হবে না: এরদোয়ান দুর্দান্ত খেলেও ভারতের সঙ্গে ড্র করলো বাংলাদেশ সম্পদের পাহাড় গড়েছেন পাগলা মিজান ভারতের বিপক্ষে ১-০ গোলে এগিয়ে বাংলাদেশ বিদেশি প্রভুরা আপনাদের পতন ঠেকাতে পারবে না: মির্জা ফখরুল আর সময় নেই, জনগণ জেগেছে: খন্দকার মাহবুব আর কটা দিন সবুর কর... আবারার হত্যাকারীদের মৃত্যুদণ্ড হওয়া উচিত: কাদের আমি সব বললে সিদ্দিক গ্রেফতার হবে: মিম ঘুমন্ত তুহিনকে কোলে করে বাইরে যান বাবা, খুন করেন চাচা ডিএসই’র মামলার ভয় ভেঙে রাস্তায় বিনিয়োগকারীরা জিম্বাবুয়ের নিষেধাজ্ঞা উঠল, ফিরে পেল সদস্যপদ ব্যবহারকারীর অসর্তকতায় সাইবার হামলা হচ্ছে মাঠের আন্দোলনে ইতি টানলেন বুয়েট শিক্ষার্থীরা ৯৪ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে ঢাকায় আরও দুই মেট্রোরেল ২০২১ সালে নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপ হবে বাংলাদেশে ৮৬ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার দর বেড়েছে তুরস্কের তিন মন্ত্রীর বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা ভারতের অনুমতি ছাড়াই নতুন টুর্নামেন্টের ঘোষণা আইসিসির ‘যুক্তরাষ্ট্রে হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় তো বিবৃতি দেন না কূটনীতিকরা’ মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ ভারত সফরের আগে কঠিন পরীক্ষায় মোস্তাফিজ সুনামগঞ্জে শিশু তুহিন হত্যা: বাবা ও দুই চাচা ৩ দিনের রিমান্ডে ঢাকা-কুড়িগ্রাম ট্রেন চালু বুধবার ছাত্ররাজনীতি নয় ছাত্রলীগের রাজনীতি বন্ধ করতে হবে : গয়েশ্বর ঢাকা কলেজ থেকে টিসি নিল আবরারের ছোট ভাই ফায়াজ গরিবের হাতে বেশি করে টাকা তুলে দিতে হবে: নোবেল জয়ী অভিজিৎ