artk
মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বার ১৭, ২০১৯ ১০:১৭   |  ২,আশ্বিন ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

মঙ্গলবার, আগষ্ট ২৭, ২০১৯ ৮:৫৩

জাতীয় কবি নজরুলের ৪৩তম মৃত্যুবার্ষিকী

media

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ৪৩তম মৃত্যুবার্ষিকী মঙ্গলবার। ১৯৭৬ সালের আগস্ট মাসে বাংলা ১২ ভাদ্র তারিখে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (সাবেক পিজি হাসপাতাল) শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

কবিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদের পাশে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সমাহিত করা হয়। 

জাতীয় কবির মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক ও পেশাজীবী সংগঠন বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। বাংলাদেশ বেতার, টেলিভিশন ও বিভিন্ন বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল কবির মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বিশেষ অনুষ্ঠানমালা প্রচারের উদ্যোগ নিয়েছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে সকালে শোভাযাত্রা সহকারে কবির সমাধি প্রাঙ্গণে গমন, পুষ্পার্পণ এবং ফাতেহা পাঠ ও পরে কবির মাজার প্রাঙ্গণে আলোচনা সভা। বাংলা একাডেমি কবির মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে একক বক্তৃতার আয়োজন করেছে। বিকাল ৪টায় এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান।

আওয়ামী লীগের কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে সকাল ৮টা ৩০ মিনিটে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদ প্রাঙ্গণে কবির সমাধিসৌধে পুষ্পার্ঘ্য নিবেদন, ফাতেহা পাঠ ও দোয়া। দলের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ কর্মসূচিত অংশগ্রহণ করবেন।

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম ১৩০৬ সালের ১১ জ্যৈষ্ঠ পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান জেলার চুরুলিয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর ডাক নাম ‘দুখু মিয়া’। পিতার নাম কাজী ফকির আহমেদ ও মাতা জাহেদা খাতুন।

বাংলা সাহিত্যে বিদ্রোহী কবি হিসেবে পরিচিত হলেও তিনি ছিলেন একাধারে কবি, সংগীতজ্ঞ, ঔপন্যাসিক, গল্পকার, নাট্যকার, প্রাবন্ধিক, সাংবাদিক, চলচ্চিত্রকার, গায়ক ও অভিনেতা। তিনি বৈচিত্র্যময় অসংখ্য রাগ-রাগিনী সৃষ্টি করে বাংলা সঙ্গীত জগতকে মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত করেছেন। প্রেম, দ্রোহ, সাম্যবাদ ও জাগরণের কবি কাজী নজরুল ইসলামের কবিতা ও গান শোষণ-বঞ্চনার বিরুদ্ধে সংগ্রামে জাতিকে উদ্বুদ্ধ করেছে। মুক্তিযুদ্ধে তাঁর গান ও কবিতা ছিল প্রেরণার উৎস।

নজরুলের কবিতা, গান ও সাহিত্য কর্ম বাংলা সাহিত্যে নবজাগরণ সৃষ্টি করে। তিনি ছিলেন অসাম্প্রদায়িক চেতনার পথিকৃৎ লেখক। তাঁর লেখনি জাতীয় জীবনে অসাম্প্রদায়িক চেতনা বিকাশে ব্যাপক ভূমিকা পালন করে। তাঁর কবিতা ও গান মানুষকে যুগে যুগে শোষণ ও বঞ্চনা থেকে মুক্তির পথ দেখিয়ে চলছে।

বাংলাদেশের স্বাধীনতার পর পরই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামকে স্বপরিবারে সদ্য-স্বাধীন বাংলাদেশে নিয়ে আসেন। রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বাংলাদেশে তাঁর বসবাসের ব্যবস্থা করেন। ধানমন্ডিতে কবির জন্য একটি বাড়ি প্রদান করেন।

গণহত্যার ঝুঁকিতে এখনো ৬ লাখ রোহিঙ্গা: জাতিসংঘ গাজীপুরে বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে অবৈধ গ্যাস লাইনে অগ্নিকাণ্ড ফেসবুক স্ট্যাটাস দেখেই শিক্ষার্থীদের বহিষ্কার করেন উপাচার্য পাবনায় ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে ট্রেন চালকের আত্মহত্যা সৌদি আরবে ফের হামলা চালিয়েছে ইয়েমেন ঢাকার শতাধিক বিএনপি নেতাকর্মী জাতীয় পার্টিতে যোগ দিয়েছে চাঁদাবাজির অভিযোগে ঢাকা উত্তর ছাত্রলীগ নেতা বহিস্কার ‘ডাক্তার বলার আগেই আয়া রোগীর পোশাক খুলে নেয়’ দুর্নীতি নির্মূলে টাস্কফোর্স গঠনের দাবি সম্পাদক পদে প্রার্থী হবেন না ওবায়দুল কাদের রিজার্ভ চুরির ব্যাপারে কিছুই বলা যাবে না: অর্থমন্ত্রী আলিয়ার সঙ্গে চুমুর দৃশ্যে আপত্তি সালমান খানের? মামলাকে কর ফাঁকির হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে মেঘনা গ্রুপ! খালেদা জিয়া আলেমদের কিছু দেন নাই: আল্লামা শফী অন্য প্রতিষ্ঠানেও ‘ভাগাভাগি’ হচ্ছে: আরেফিন সিদ্দিক প্রেস কাউন্সিলের বিবৃতি প্রত্যাহার চায় এলআরএফ বাংলাদেশকে হারাতে মরিয়া জিম্বাবুয়ে বুধবার শ্রীলঙ্কায় যাচ্ছে মিরাজ-মুমিনুল-সৌম্যরা মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতে ট্রাকের নিচে এনজিওকর্মী কোহলিদের নিরাপত্তা দিতে আপত্তি ভারতীয় পুলিশের হাজিরা খাতায় সই করেই বেতন-ভাতা নেন আ.লীগ নেতার স্ত্রী মধ্য রাতে বৃদ্ধার গরু লুট করলো যুবলীগ-কৃষক লীগ নেতারা পুঁজিবাজারে সূচকের পতন, লেনদেনে উত্থান ছাত্রলীগে ভারপ্রাপ্ত দায়িত্ব কোন আইনে: রিজভী রাব্বানীকে একহাত নিলেন সাবেক ছাত্রলীগ নেত্রী পেঁয়াজের দাম শিগগিরই কমবে: বাণিজ্য সচিব বিমানের ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী বিভাগীয় শহরে ক্যান্সার হাসপাতালসহ ৮ প্রকল্প অনুমোদন সালমান শাহ জন্মোৎসব উদ্বোধন করবেন শাকিব খান জাবি উপাচার্যের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে: কাদের