artk
মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বার ১৭, ২০১৯ ৬:১৫   |  ২,আশ্বিন ১৪২৬

জামালপুর সংবাদদাতা

সোমবার, আগষ্ট ২৬, ২০১৯ ৯:৫৩

ডিসির পিয়ন প্রেমিকা সাধনা সম্পর্কে যা জানা গেল

media

পিয়ন পদে চাকরি করলেও ডিসি অফিসে দোর্দণ্ড প্রতাপে দাপিয়ে বেড়াতেন সানজিদা ইয়াসমিন সাধনা। তার প্রভাবের মুখে সব সময় কর্মকর্তা কর্মচারীরা থাকতো তটস্থ। শুধু কর্মচারীরাই নয় উর্ধতন কর্মকর্তাদেরও থোড়াই কেয়ার করতেন তিনি। চাকরি হারানোর শংকায় প্রতিবাদ করতে সাহস পেত না কেউ।

পিয়ন পদে চাকরি করলেও ডিসি অফিসে দোর্দণ্ড প্রতাপে দাপিয়ে বেড়াতেন সানজিদা ইয়াসমিন সাধনা। তার প্রভাবের মুখে সব সময় কর্মকর্তা কর্মচারীরা থাকতো তটস্থ। শুধু কর্মচারীরাই নয় উর্ধতন কর্মকর্তাদেরও থোড়াই কেয়ার করতেন তিনি। চাকরি হারানোর শংকায় প্রতিবাদ করতে সাহস পেত না কেউ।

জামালপুরের ডিসির সঙ্গে ভিডিও ভাইরালের পর সেই অফিস সহকারী সানজিদা ইয়াসমিন সাধনার খোঁজ মিলছে না। ভিডিও ফাঁসের পর খোঁজ খবর নিয়ে জানা গেছে, ২০১৯ সালের জানুয়ারিতে ডিসি অফিসে ২৭ জনকে অফিস সহায়ক পদসহ ৫৫ জনকে নিয়োগ করা হয়।

সেই সর্ম্পকের সূত্র ধরে সানজিদা ইয়াসমিন সাধনা নিজে ও তার দুই আত্মীয় রজব আলী ও সাবান আলীকে অফিস সহায়ক পদে নিয়োগ পাইয়ে দেন।

সাধনার গ্রামের বাড়ি জামালপুরের মাদারগঞ্জ উপজেলার শুকনগরী গ্রামে গিয়েও তার খোঁজ মেলেনি। তার পরিবারের লোকজন জানান, তিনি তার খালার বাড়িতে আছেন। তার মনের অবস্থা ভালো নেই। তারা আরও জানান, ৭ বছর আগে সানজিদা ইয়াসমিন সাধনার স্বামী মা’রা যান। তাদের একমাত্র সন্তান ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ছে।

এই নারী ২০১৮ সালে উন্নয়ন মেলায় হস্তশিল্পের স্টল বরাদ্ধ নেয়ার জন্য জেলা প্রশাসক আহমেদ কবিরের সাথে দেখা করেন। তার রূপে মুগ্ধ হয়ে বিনামূল্যে স্টল বরাদ্দ দেন জেলা প্রশাসক।

উন্নয়ন মেলা চলাকালীন তাদের মধ্যে অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে উঠে। পরবর্তীতে যা শারীরিক সর্ম্পকে রূপ নেয়। এমন একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে তাদের। ইতোমধ্যে আহমেদ কবিরকে ওএসডিও করা হয়েছে।

সূত্রে জানা গেছে, ছায়া ডিসি সাধনার হাতে লাঞ্চিত হয়েছেন একাধিক উর্ধ্বতন কর্মকর্তা। ডিসির প্রভাব খাটিয়ে বিভিন্নি দপ্তরে বদলি, নিয়োগ ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি বাণিজ্য করে হাতিয়ে নিয়েছেন লাখ লাখ টাকা। জেলা প্রশাসকের স্বাক্ষরিত কাজে সাধনাকে ম্যানেজ করতো সুবিধাভোগীরা। সবার মাঝেই ছায়া ডিসি হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছিলেন এই প্রভাবশালী পিয়ন।

অফিস চলাকালীন সময়ে তাদের রঙ্গলীলা অবাধ করতে সেই কামরার দরজায় বসানো হয়েছিল লাল ও সবুজ বাতি। রঙ্গলীলা চলাকালে লালবাতি জ্বলে উঠতো। দরজার সামনে দাঁড়িয়ে থাকতো বিশ্বস্ত পিয়ন। এই সময় কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ সবার জন্য প্রবেশাধিকারে নিষেধাজ্ঞা ছিল।

এ সময় তার অফিসের বাইরে ফাইলপত্র নিয়ে অপেক্ষায় থাকতো কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ অনেকেই। লীলা শেষে পরিপাটি হয়ে যখন চেয়ারে বসতো তখন জ্বলে উঠতো সবুজ বাতি। সবুজ বাতি জ্বলে উঠার পরেই শুরু হতো দাপ্তরিক কার্যক্রম।

সাধনা অফিস সহায়ক পদে যোগদান করার পর জেলা প্রশাসকের অফিস রুমের পাশে খাস কামরাটিতে মিনি বেড রুমে রূপান্তর করতে খাট ও অন্যান্য আসবাবপত্রসহ সাজ্জসজ্জা করেন। সেই রুমেই চলতো তাদের রঙ্গলীলা।

কোহলিদের নিরাপত্তা দিতে আপত্তি ভারতীয় পুলিশের হাজিরা খাতায় সই করেই বেতন-ভাতা নেন আ.লীগ নেতার স্ত্রী মধ্য রাতে বৃদ্ধার গরু লুট করলো যুবলীগ-কৃষক লীগ নেতারা পুঁজিবাজারে সূচকের পতন, লেনদেনে উত্থান ছাত্রলীগে ভারপ্রাপ্ত দায়িত্ব কোন আইনে: রিজভী রাব্বানীকে একহাত নিলেন সাবেক ছাত্রলীগ নেত্রী পেঁয়াজের দাম শিগগিরই কমবে: বাণিজ্য সচিব বিমানের ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী বিভাগীয় শহরে ক্যান্সার হাসপাতালসহ ৮ প্রকল্প অনুমোদন সালমান শাহ জন্মোৎসব উদ্বোধন করবেন শাকিব খান জাবি উপাচার্যের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে: কাদের আফগান প্রেসিডেন্ট ঘানির নির্বাচনী সমাবেশে হামলা: নিহত ২৪ ভারত গেল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব ২৩ দল যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ইরানের আলোচনা নাকচ করে দিলেন খামেনি পুকুরে স্ত্রীর লাশ, গাছের ডালে স্বামীর ফাঁস ১০ কোটি টাকার মালামাল পাহারায় ব্যয় ৪৬ কোটি শিশুরা কুশিক্ষা ও অপসংস্কৃতির রোষানলে আবদ্ধ -ফখরুল শোভনের দুর্দিনে পাশে থাকতে চায় জারিন দিয়া ইতালিতে কুড়িয়ে পাওয়া মানিব্যাগ ফেরত দিয়ে আলোচনায় বাংলাদেশি তরুণ ফাঁসির রায় শুনে আসামির হাসি বাসচাপায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত যুবকের কান কেটে নিয়ে প্রতিশোধ, প্রকাশ্যে উল্লাস নিখোঁজের দুদিন পর শিশুর মরদেহ উদ্ধার, আটক ১ সঠিক তদন্ত হলে সম্পাদক পদে পুনর্বহালের প্রত্যাশা রাব্বানীর ভক্তদের বিভ্রান্ত না হওয়ার অনুরোধ মেহজাবিনের ইয়াবা ভাগাভাগি : পাঁচ পুলিশ রিমান্ডে ভোটার তালিকায় রোহিঙ্গা : ইসি কর্মীসহ আটক ৩ উন্নয়নের পাইপ লাইনে দুর্নীতির ছিদ্র: বারকাত জবি ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে ২ লাখ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগ হাসপাতালের ফ্যান খুলে পড়ে রোগী আহত