artk

জামালপুর সংবাদদাতা

সোমবার, আগষ্ট ২৬, ২০১৯ ৯:৫৩

ডিসির পিয়ন প্রেমিকা সাধনা সম্পর্কে যা জানা গেল

media

পিয়ন পদে চাকরি করলেও ডিসি অফিসে দোর্দণ্ড প্রতাপে দাপিয়ে বেড়াতেন সানজিদা ইয়াসমিন সাধনা। তার প্রভাবের মুখে সব সময় কর্মকর্তা কর্মচারীরা থাকতো তটস্থ। শুধু কর্মচারীরাই নয় উর্ধতন কর্মকর্তাদেরও থোড়াই কেয়ার করতেন তিনি। চাকরি হারানোর শংকায় প্রতিবাদ করতে সাহস পেত না কেউ।

পিয়ন পদে চাকরি করলেও ডিসি অফিসে দোর্দণ্ড প্রতাপে দাপিয়ে বেড়াতেন সানজিদা ইয়াসমিন সাধনা। তার প্রভাবের মুখে সব সময় কর্মকর্তা কর্মচারীরা থাকতো তটস্থ। শুধু কর্মচারীরাই নয় উর্ধতন কর্মকর্তাদেরও থোড়াই কেয়ার করতেন তিনি। চাকরি হারানোর শংকায় প্রতিবাদ করতে সাহস পেত না কেউ।

জামালপুরের ডিসির সঙ্গে ভিডিও ভাইরালের পর সেই অফিস সহকারী সানজিদা ইয়াসমিন সাধনার খোঁজ মিলছে না। ভিডিও ফাঁসের পর খোঁজ খবর নিয়ে জানা গেছে, ২০১৯ সালের জানুয়ারিতে ডিসি অফিসে ২৭ জনকে অফিস সহায়ক পদসহ ৫৫ জনকে নিয়োগ করা হয়।

সেই সর্ম্পকের সূত্র ধরে সানজিদা ইয়াসমিন সাধনা নিজে ও তার দুই আত্মীয় রজব আলী ও সাবান আলীকে অফিস সহায়ক পদে নিয়োগ পাইয়ে দেন।

সাধনার গ্রামের বাড়ি জামালপুরের মাদারগঞ্জ উপজেলার শুকনগরী গ্রামে গিয়েও তার খোঁজ মেলেনি। তার পরিবারের লোকজন জানান, তিনি তার খালার বাড়িতে আছেন। তার মনের অবস্থা ভালো নেই। তারা আরও জানান, ৭ বছর আগে সানজিদা ইয়াসমিন সাধনার স্বামী মা’রা যান। তাদের একমাত্র সন্তান ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ছে।

এই নারী ২০১৮ সালে উন্নয়ন মেলায় হস্তশিল্পের স্টল বরাদ্ধ নেয়ার জন্য জেলা প্রশাসক আহমেদ কবিরের সাথে দেখা করেন। তার রূপে মুগ্ধ হয়ে বিনামূল্যে স্টল বরাদ্দ দেন জেলা প্রশাসক।

উন্নয়ন মেলা চলাকালীন তাদের মধ্যে অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে উঠে। পরবর্তীতে যা শারীরিক সর্ম্পকে রূপ নেয়। এমন একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে তাদের। ইতোমধ্যে আহমেদ কবিরকে ওএসডিও করা হয়েছে।

সূত্রে জানা গেছে, ছায়া ডিসি সাধনার হাতে লাঞ্চিত হয়েছেন একাধিক উর্ধ্বতন কর্মকর্তা। ডিসির প্রভাব খাটিয়ে বিভিন্নি দপ্তরে বদলি, নিয়োগ ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি বাণিজ্য করে হাতিয়ে নিয়েছেন লাখ লাখ টাকা। জেলা প্রশাসকের স্বাক্ষরিত কাজে সাধনাকে ম্যানেজ করতো সুবিধাভোগীরা। সবার মাঝেই ছায়া ডিসি হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছিলেন এই প্রভাবশালী পিয়ন।

অফিস চলাকালীন সময়ে তাদের রঙ্গলীলা অবাধ করতে সেই কামরার দরজায় বসানো হয়েছিল লাল ও সবুজ বাতি। রঙ্গলীলা চলাকালে লালবাতি জ্বলে উঠতো। দরজার সামনে দাঁড়িয়ে থাকতো বিশ্বস্ত পিয়ন। এই সময় কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ সবার জন্য প্রবেশাধিকারে নিষেধাজ্ঞা ছিল।

এ সময় তার অফিসের বাইরে ফাইলপত্র নিয়ে অপেক্ষায় থাকতো কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ অনেকেই। লীলা শেষে পরিপাটি হয়ে যখন চেয়ারে বসতো তখন জ্বলে উঠতো সবুজ বাতি। সবুজ বাতি জ্বলে উঠার পরেই শুরু হতো দাপ্তরিক কার্যক্রম।

সাধনা অফিস সহায়ক পদে যোগদান করার পর জেলা প্রশাসকের অফিস রুমের পাশে খাস কামরাটিতে মিনি বেড রুমে রূপান্তর করতে খাট ও অন্যান্য আসবাবপত্রসহ সাজ্জসজ্জা করেন। সেই রুমেই চলতো তাদের রঙ্গলীলা।

না.গঞ্জে খালেদার মুক্তির মিছিলে বাধা দেয়ায় ওসি লাঞ্ছিত স্ত্রীকে নিয়ে মক্কায় যেতে চান ক্রিকেটার সাব্বির ফ্যান কারখানায় আগুনে নিহত ১০ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে জাতীয় সংসদে প্রবাসীদের প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিতের দাবি বিজয় দিবসে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার শপথ বিএনপির প্লাস্টিকের বোতল দিয়ে লাল-সবুজের বাংলাদেশ কঙ্গোতে বিদ্রোহীদের হামলায় ১৩ নারীসহ ২২ কৃষক নিহত হিটলারের আমলের লাইটার এখনও জ্বলে! ওষুধ ছাড়াই গ্যাস্ট্রিককে চিরবিদায়... বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ল দিল্লিতেও বিজয় দিনের যত আয়োজন প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের পর হত্যায় অভিযুক্ত যুবক ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নাশকতার মামলায় ফখরুলসহ বিএনপির ২৩ নেতার আগাম জামিন পাটকল শ্রমিকদের আন্দোলন ২২ ডিসেম্বর পর্যন্ত স্থগিত গাজীপুরে ফ্যান কারখানায় আগুন: নিহত ১০ আওয়ামী লীগেও রাজাকার আছে: আবদুল গাফ্ফার চৌধুরী পদ্মা ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান চিশতী পরিবারের বিরুদ্ধে ৫ মামলা অবৈধ লেভেল ক্রসিং বন্ধে হাইকোর্টের রুল গ্রাম পুলিশের চাকরি সরকারিকরণের নির্দেশ তরুণ গায়ক পৃথ্বীরাজের মৃত্যু কোহলি-রোহিতকেই ভয় পাচ্ছেন ব্রায়ান লারা সূচকে পতন অবৈধভাবে দেশে প্রবেশ করলে ফেরত পাঠাবে সরকার: পররাষ্ট্রমন্ত্রী রাজাকারের তালিকা যাচাই বাছাই করে দেখবে ট্রাইব্যুনাল: আইনমন্ত্রী রাজশাহীতে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত ৩ সবচেয়ে দূষিত বায়ুর শহর ঢাকা আ.লীগের এবারের সম্মেলনে সর্বকালের সর্ববৃহৎ উপস্থিতি থাকবে।: কাদের মদ খেয়ে প্রতিবেশীকে পেটালেন সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার! পেশাদার ও সুপ্রশিক্ষিত সশস্ত্র বাহিনী গড়ে তুলতে চাই: প্রধানমন্ত্রী