artk
শুক্রবার, আগষ্ট ২৩, ২০১৯ ৬:৪৫   |  ৮,ভাদ্র ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

রোববার, আগষ্ট ১১, ২০১৯ ৫:২৮

ঈদের ছুটিতে ডেঙ্গু হলে করণীয়

media

প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে অনেকে ঢাকা ছেড়েছেন। তবে সারাদেশে এখনও ডেঙ্গু আতঙ্ক বিরাজ করছে। চিকিৎসা বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা করছেন ঈদের ছুটিতে গ্রামে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে পারে।

প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে অনেকে ঢাকা ছেড়েছেন। তবে সারাদেশে এখনও ডেঙ্গু আতঙ্ক বিরাজ করছে। চিকিৎসা বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা করছেন ঈদের ছুটিতে গ্রামে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে পারে।

যুক্তি হিসেবে তারা বলেছেন, ডেঙ্গু সংক্রমিত কোনো ব্যক্তি গ্রামে গেলে সেখানে কোনো মশা তাকে কামড় দিলে ওই মশাও সংক্রমিত হবে। আবার ওই মশা অন্য কাউকে কামড় দিলে সেই ব্যক্তিও সংক্রমিত হবে। এভাবে গ্রামেও পরিস্থিতি খারাপ হতে পারে।

গত তিন দিনের হিসাব থেকে দেখা যায়। ঢাকার বাইরে ডেঙ্গু রোগী বেড়েছে। ঈদে গ্রামে গিয়ে কেউ ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হলে কিভাবে সুরক্ষিত থাকতে পারবেন- এ বিষয়ে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (সংক্রামক ব্যাধি) অধ্যাপক ডা. সানিয়া তাহমিনা।

তিনি বলেন, গ্রামে গিয়ে কেউ জ্বরে আক্রান্ত হলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ওষুধ সেবন, হাসপাতালে ভর্তি হতে হবে। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া রক্ত পরীক্ষার প্রয়োজন নেই। সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক না বলা পর্যন্ত স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও হাসপাতালে চিকিৎসক নেবেন। স্থানীয় চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে জেলা, বিভাগ কিংবা আরও কোনো হাসপাতালে চিকিৎসা নেবেন।

অযথা হাসপাতালে ছুটাছুটিরও প্রয়োজন নেই উল্লেখ করে পরিচালক বলেন, জ্বর আক্রান্ত ব্যক্তিকে বেশি করে তরল খাওয়াতে হবে। খাবার স্যালাইন, বিভিন্ন ধরনের শরবত খাওয়াবেন। ডেঙ্গু আক্রান্ত ব্যক্তির শরীরে আইভি ফ্লুইডের সংকট সৃষ্টি হয়। এজন্য স্যালাইন ব্যবহার করতে হবে। অ্যাম্বুলেন্সে করে এক হাসপাতাল থেকে আরেক হাসপাতালে রোগীকে স্থানান্তর করার সময় শরীরে যেন স্যালাইন পুশ করা হয়। তাহলে রোগী জটিল পরিস্থিতিতে পড়বে না। গ্রামের বাসা-বাড়ির আশপাশ পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন রাখুন। আক্রান্ত ব্যক্তিকে মশারির মধ্যে রাখুন। তাহলেই সুস্থ থাকা সম্ভব হবে। সর্বপরি আতঙ্কের কিছু নেই।

বিয়ের গেটেই বরের মাথা ফাটালো কনেপক্ষ রাখাইনে প্রবেশাধিকার চায় ইউএনএইচসিআর-ইউএনডিপি ১৫ ও ২১ আগস্ট নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য: মাউশি পরিচালক ওএসডি থানা থেকে পুলিশের জব্দ করা মোটরসাইকেল চুরি ৫ দিনের রিমান্ডে ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রী কাশ্মিরে জুমার নামাজের পর কারফিউ ভাঙার ডাক বাজারের ব্যাগে ৫ কোটি টাকার হেরোইন! প্রাথমিকে আরো ২০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ সাব-রেজিস্ট্রার অফিসকে ভূমি মন্ত্রণালয়ের অধীনে আনার সুপারিশ দেড় বছর ধরে স্বাস্থ্যকেন্দ্রে আসেন না ডাক্তার জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে রেড অ্যালার্ট জারির উদ্যোগ পরমাণু বোমা আমরা এমনি এমনি রাখিনি: জাভেদ মিয়াঁদাদ কলকাতায় বাংলাদেশির মৃত্যু: আরসালান নয় চালক ছিলেন বড় ভাই রাগিব রাজধানীসহ দেশের ৬ স্থানে দুদকের অভিযান ভারতের সবচেয়ে ধনী অভিনেতা অক্ষয় কুমার! শুরুতেই ফিটনেসে মনোযোগী বাংলাদেশি কোচ কেমন আছেন মিয়ানমারের মুসলমান নাগরিকেরা? বেশি নম্বর দেয়ার কথা বলে ছাত্রীকে যৌন হয়রানি, শিক্ষক বরখাস্ত উপহাসকারী রিজভীদেরও বিচার হওয়া উচিত: তথ্যমন্ত্রী ডা. জাফরুল্লাহসহ ৭৬ জনের বিরুদ্ধে আ.লীগ নেতার মামলা ওজনে কারচুপি: ২ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে বিএসটিআইয়ের মামলা বজ্রপাতে ৫ জেলায় ৯ জনের মৃত্যু যাত্রাবাড়ীতে বাসের ধাক্কায় বাবা নিহত, ছেলে আহত তিন বিচারপতির বিষয়ে অনুসন্ধান অন্যদের জন্য বার্তা রোহিঙ্গাদের থাকতে প্ররোচনা দিলে ব্যবস্থা নেয়া হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী পুঁজিবাজারে সূচকের উত্থান বিচার বিভাগের অনেকের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আছে: খোকন ভুল চিকিৎসা: ঢাবি শিক্ষার্থীকে ৫ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ নয় কেন অনুসন্ধানে ব্যর্থরা অন্য প্রতিষ্ঠানে কাজ করুন: দুদক চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে ফরমায়েশি সাজা দেয়া হয়েছে: রিজভী