artk
শুক্রবার, আগষ্ট ২৩, ২০১৯ ৭:০৯   |  ৮,ভাদ্র ১৪২৬

নিউজ ডেস্ক

শনিবার, আগষ্ট ১০, ২০১৯ ২:৪৯

ভারত কি বিমানবন্দর সম্প্রসারণের জন্য বাংলাদেশের কাছে জমি চেয়েছে?

media

বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী ত্রিপুরা বিমানবন্দর সম্প্রসারণের জন্য বাংলাদেশের কাছে ভারত জমি চেয়েছে বলে যে কথা বলা হচ্ছে, তা জোর গলায় অস্বীকার করেছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

গত কয়েকদিন ধরে বাংলাদেশ এবং ভারতের গণমাধ্যমে এই মর্মে খবর বের হয় যে ত্রিপুরা বিমানবন্দরের রানওয়ে সম্প্রসারণের জন্য ভারত বাংলাদেশের কাছে জমি চেয়েছে।

এ বিষয়ে সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রীকে উদ্ধৃত করে দেশের গণমাধ্যমে নানা ধরনের পরস্পরবিরোধী খবরও বের হয়।

ভারত কি আসলেই বাংলাদেশকে এরকম কোনো প্রস্তাব দিয়েছে?

এ ব্যাপারে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বিবিসি বাংলাকে বলেন, “ভারত আমাদের কাছে কোনো জমি চায়নি। যে খবরটি আপনারা জেনেছেন সেটা সম্পূর্ণ অসত্য।”

শাহরিয়ার আলম বলছেন, “ভারত মূলত যেটা চেয়েছে, সেটা হচ্ছে ত্রিপুরা বিমানবন্দরের রানওয়েতে লাইটের কমপ্লিট ফেইজ পূরণ করতে বাংলাদেশের অংশে কিছু লাইট বসাতে।”

“যেকোনো বিমানবন্দরের রানওয়েতে বিমান ওঠানামার নির্দেশনা দেয়ার জন্য লাইটের একটি কমপ্লিট ফেইজের প্রয়োজন হয়। যেখানে কয়েক ফুট অন্তর অন্তর প্রায় ৫০টি লাইট বসানো হয়। একে বলা হয় ক্যাট আই লাইট।”

তিনি বলেন, “লাইটের এই কমপ্লিট প্যানেলের যে দৈর্ঘ্য সেটা বসানোর মতো জায়গা ভারতের অংশে না থাকায় তারা বাকি কিছু লাইট বাংলাদেশের অংশে বসানোর অনুরোধ করে একটি প্রস্তাবনা দিয়েছে।”

সম্প্রতি ভারত এ নিয়ে একটি অনুরোধপত্র পাঠিয়েছে উল্লেখ করে তিনি জানান, “ভারত লাইট বসানোর বাইরে রানওয়ে সম্প্রসারণের জন্য জমি বা কোন অবকাঠামো নির্মাণের জন্য কিছু চায়নি।”

“এসব লাইটের বেশিরভাগ ভারতের অংশেই বসবে, এরমধ্যে কিছু লাইট আন্তর্জাতিক মানদণ্ড মেনে বাংলাদেশের অংশে বসানো হতে পারে।”

তিনি জানিয়েছেন, বর্তমানে বাংলাদেশের সিভিল এভিয়েশনকে ভারতের এই অনুরোধ যাচাই বাছাই করে তাদের মতামতের জন্য বলা হয়েছে। সিভিল এভিয়েশনের মতামতের ভিত্তিতে উচ্চ পর্যায়ের কমিটিতে আলাপ আলোচনা করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

আলম বলেন, “ভারতের থেকে কোনো প্রস্তাব এলেই এটা নিয়ে অনেক বাড়াবাড়ি করা হয়। অন্য দৃষ্টিকোণ থেকে দেখা হয়। একটি চক্র সবসময় একে তাদের সস্তা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ব্যবহারের চেষ্টা করে।”

“কিন্তু সরকারের নীতি হল, বাংলাদেশের সার্বভৌমত্ব এবং মর্যাদা সমুন্নত রেখে প্রতিবেশী দেশের সাথে ভাল সম্পর্কের ভিত্তিতে এগিয়ে যাওয়া।”

তিনি মনে করেন সরকারের এমন নীতির কারণেই বাংলাদেশ দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য ও যাতায়াতে অনেক ক্ষেত্রে অনেক দূর এগিয়ে গেছে।

“আর সব কিছুই সম্পন্ন হয়েছে একটি সুনির্দিষ্ট কার্যপ্রণালীর মাধ্যমে। এই লাইট বসানোর বিষয়টিও সেভাবেই করা হবে।”

বিয়ের গেটেই বরের মাথা ফাটালো কনেপক্ষ রাখাইনে প্রবেশাধিকার চায় ইউএনএইচসিআর-ইউএনডিপি ১৫ ও ২১ আগস্ট নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য: মাউশি পরিচালক ওএসডি থানা থেকে পুলিশের জব্দ করা মোটরসাইকেল চুরি ৫ দিনের রিমান্ডে ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রী কাশ্মিরে জুমার নামাজের পর কারফিউ ভাঙার ডাক বাজারের ব্যাগে ৫ কোটি টাকার হেরোইন! প্রাথমিকে আরো ২০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ সাব-রেজিস্ট্রার অফিসকে ভূমি মন্ত্রণালয়ের অধীনে আনার সুপারিশ দেড় বছর ধরে স্বাস্থ্যকেন্দ্রে আসেন না ডাক্তার জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে রেড অ্যালার্ট জারির উদ্যোগ পরমাণু বোমা আমরা এমনি এমনি রাখিনি: জাভেদ মিয়াঁদাদ কলকাতায় বাংলাদেশির মৃত্যু: আরসালান নয় চালক ছিলেন বড় ভাই রাগিব রাজধানীসহ দেশের ৬ স্থানে দুদকের অভিযান ভারতের সবচেয়ে ধনী অভিনেতা অক্ষয় কুমার! শুরুতেই ফিটনেসে মনোযোগী বাংলাদেশি কোচ কেমন আছেন মিয়ানমারের মুসলমান নাগরিকেরা? বেশি নম্বর দেয়ার কথা বলে ছাত্রীকে যৌন হয়রানি, শিক্ষক বরখাস্ত উপহাসকারী রিজভীদেরও বিচার হওয়া উচিত: তথ্যমন্ত্রী ডা. জাফরুল্লাহসহ ৭৬ জনের বিরুদ্ধে আ.লীগ নেতার মামলা ওজনে কারচুপি: ২ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে বিএসটিআইয়ের মামলা বজ্রপাতে ৫ জেলায় ৯ জনের মৃত্যু যাত্রাবাড়ীতে বাসের ধাক্কায় বাবা নিহত, ছেলে আহত তিন বিচারপতির বিষয়ে অনুসন্ধান অন্যদের জন্য বার্তা রোহিঙ্গাদের থাকতে প্ররোচনা দিলে ব্যবস্থা নেয়া হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী পুঁজিবাজারে সূচকের উত্থান বিচার বিভাগের অনেকের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আছে: খোকন ভুল চিকিৎসা: ঢাবি শিক্ষার্থীকে ৫ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ নয় কেন অনুসন্ধানে ব্যর্থরা অন্য প্রতিষ্ঠানে কাজ করুন: দুদক চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে ফরমায়েশি সাজা দেয়া হয়েছে: রিজভী