artk

নিউজ ডেস্ক

শনিবার, আগষ্ট ১০, ২০১৯ ২:৪৯

ভারত কি বিমানবন্দর সম্প্রসারণের জন্য বাংলাদেশের কাছে জমি চেয়েছে?

media

বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী ত্রিপুরা বিমানবন্দর সম্প্রসারণের জন্য বাংলাদেশের কাছে ভারত জমি চেয়েছে বলে যে কথা বলা হচ্ছে, তা জোর গলায় অস্বীকার করেছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

গত কয়েকদিন ধরে বাংলাদেশ এবং ভারতের গণমাধ্যমে এই মর্মে খবর বের হয় যে ত্রিপুরা বিমানবন্দরের রানওয়ে সম্প্রসারণের জন্য ভারত বাংলাদেশের কাছে জমি চেয়েছে।

এ বিষয়ে সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রীকে উদ্ধৃত করে দেশের গণমাধ্যমে নানা ধরনের পরস্পরবিরোধী খবরও বের হয়।

ভারত কি আসলেই বাংলাদেশকে এরকম কোনো প্রস্তাব দিয়েছে?

এ ব্যাপারে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বিবিসি বাংলাকে বলেন, “ভারত আমাদের কাছে কোনো জমি চায়নি। যে খবরটি আপনারা জেনেছেন সেটা সম্পূর্ণ অসত্য।”

শাহরিয়ার আলম বলছেন, “ভারত মূলত যেটা চেয়েছে, সেটা হচ্ছে ত্রিপুরা বিমানবন্দরের রানওয়েতে লাইটের কমপ্লিট ফেইজ পূরণ করতে বাংলাদেশের অংশে কিছু লাইট বসাতে।”

“যেকোনো বিমানবন্দরের রানওয়েতে বিমান ওঠানামার নির্দেশনা দেয়ার জন্য লাইটের একটি কমপ্লিট ফেইজের প্রয়োজন হয়। যেখানে কয়েক ফুট অন্তর অন্তর প্রায় ৫০টি লাইট বসানো হয়। একে বলা হয় ক্যাট আই লাইট।”

তিনি বলেন, “লাইটের এই কমপ্লিট প্যানেলের যে দৈর্ঘ্য সেটা বসানোর মতো জায়গা ভারতের অংশে না থাকায় তারা বাকি কিছু লাইট বাংলাদেশের অংশে বসানোর অনুরোধ করে একটি প্রস্তাবনা দিয়েছে।”

সম্প্রতি ভারত এ নিয়ে একটি অনুরোধপত্র পাঠিয়েছে উল্লেখ করে তিনি জানান, “ভারত লাইট বসানোর বাইরে রানওয়ে সম্প্রসারণের জন্য জমি বা কোন অবকাঠামো নির্মাণের জন্য কিছু চায়নি।”

“এসব লাইটের বেশিরভাগ ভারতের অংশেই বসবে, এরমধ্যে কিছু লাইট আন্তর্জাতিক মানদণ্ড মেনে বাংলাদেশের অংশে বসানো হতে পারে।”

তিনি জানিয়েছেন, বর্তমানে বাংলাদেশের সিভিল এভিয়েশনকে ভারতের এই অনুরোধ যাচাই বাছাই করে তাদের মতামতের জন্য বলা হয়েছে। সিভিল এভিয়েশনের মতামতের ভিত্তিতে উচ্চ পর্যায়ের কমিটিতে আলাপ আলোচনা করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

আলম বলেন, “ভারতের থেকে কোনো প্রস্তাব এলেই এটা নিয়ে অনেক বাড়াবাড়ি করা হয়। অন্য দৃষ্টিকোণ থেকে দেখা হয়। একটি চক্র সবসময় একে তাদের সস্তা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ব্যবহারের চেষ্টা করে।”

“কিন্তু সরকারের নীতি হল, বাংলাদেশের সার্বভৌমত্ব এবং মর্যাদা সমুন্নত রেখে প্রতিবেশী দেশের সাথে ভাল সম্পর্কের ভিত্তিতে এগিয়ে যাওয়া।”

তিনি মনে করেন সরকারের এমন নীতির কারণেই বাংলাদেশ দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য ও যাতায়াতে অনেক ক্ষেত্রে অনেক দূর এগিয়ে গেছে।

“আর সব কিছুই সম্পন্ন হয়েছে একটি সুনির্দিষ্ট কার্যপ্রণালীর মাধ্যমে। এই লাইট বসানোর বিষয়টিও সেভাবেই করা হবে।”

ঢাবির ৬৭ শিক্ষার্থীকে স্থায়ী বহিষ্কার আমাদের গ্যাস আমরা জনকল্যাণে ব্যবহার করব: প্রধানমন্ত্রী কমলায় বিপ্লব: স্কুল প্রতিষ্ঠা করে পদ্মশ্রী বিজয় সিজিসির সংযোজন ও সংশোধন অনুমোদন ঢাকার ২ সিটি নির্বাচন: শুক্রবার থেকে ঢাকায় যান চলাচল বন্ধ শর্ত না মানায় কন্টিনেন্টাল ইনস্যুরেন্সকে সতর্ক সব জেলাকে রেল নেটওয়ার্কের আওতায় আনতে নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর রিজেন্ট টেক্সটাইলের প্রত্যেক পরিচালককে ২ লাখ টাকা করে জরিমানা আমান ফিডের প্রত্যেক পরিচালককে ২৫ লাখ টাকা করে জরিমানা কক্সবাজারকে ব্যয়বহুল শহর হিসেবে ঘোষণা সোলেইমানি হত্যার নীল নকশাকারী ডি আন্দ্রিয়া বিমান দুর্ঘটনায় নিহত পুঁজিবাজারে সূচকের উত্থান কার্ডের স্বল্পতার কারণে ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রিন্ট হচ্ছে না: কাদের এসএমএসে জানা যাবে ভোটার নম্বর ও ভোটকেন্দ্র এবি ব্যাংকের অর্থ আত্মসাৎ, ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা মেট্রোরেল উদ্বোধন ২০২১ সালের ১৬ ডিসেম্বর ঝিনাইদহ পলিটেকনিকের দুই শিক্ষার্থীর কৃষিভিত্তিক রোবট পাহাড়তলীতে বাস উল্টে নারীসহ নিহত ২ আহাদুজ্জামান আলীর নক্ষত্র নিভে যায় পদ ছাড়লেন আবদুল্লাহ, কাতারের নতুন প্রধানমন্ত্রী খালিদ টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতে মিসবাহ’র স্বস্তির নিঃশ্বাস করোনা আতঙ্ক: এবার তামাবিল স্থলবন্দরে মেডিকেল টিম গভীর রাতে নিরাপদে দেশে ফিরেছে ক্রিকেট দল রোমান সানাকে ল্যান্সনায়েক পদে সম্মানিত প্রধানমন্ত্রী ইতালি সফরে যাচ্ছেন ফেব্রুয়ারিতে করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণ করতে সরকার প্রস্তুত: স্বাস্থ্যমন্ত্রী দেনমোহর হিসেবে স্ত্রীর বই দাবি মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ ও ফেনীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৭ অস্ত্র মামলায় জেএমবি সদস্যের ১০ বছরের কারাদণ্ড ফখরুলের কাছে ভোট ও দোয়া চাইলেন আতিক