artk
শুক্রবার, সেপ্টেম্বার ২০, ২০১৯ ৮:০৮   |  ৫,আশ্বিন ১৪২৬

এ কে এম ওয়াহিদুজ্জামান

শনিবার, জুলাই ২৭, ২০১৯ ৯:৪৩

ঢাকা থেকে মশা তাড়িয়েছিলেন হাবিবুল্লাহ বাহার

media

পূর্ব পাকিস্তানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হাবিবুল্লাহ বাহার চৌধুরী

ঐতিহাসিকভাবেই ঢাকা মশার জন্য বিখ্যাত ছিল। মশার যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ হয়ে মুঘলরা বাংলার রাজধানী ঢাকা থেকে মুর্শিদাবাদ সরিয়ে নিতে বাধ্য হয়েছিল।

ইংরেজ শাসনামলে ঢাকায় তাদের যে ক্যান্টনমেন্টে ছিল (পুরানা পল্টন এলাকায়; পল্টন মানে সেনা ইউনিট) সেটি মূলত ব্যবহৃত হতো বেয়ারা সৈনিকদের টাইট দেওয়ার জন্য পানিশমেন্ট পোস্টিং হিসেবে। সমগ্র ভারতবর্ষে যত বেয়াড়া সৈনিক, তাদেরকে ঢাকায় পাঠিয়ে দেয়া হতো, মশার কামড় খেয়ে, ম্যালেরিয়া বাঁধিয়ে তারা সোজা হয়ে যেত।

কালক্রমে ব্রিটিশরা চলে গেল, পাকিস্তান তৈরি হল, ঢাকা হল পূর্ব বাংলার রাজধানী। নতুন দেশের নতুন রাজধানীতে লোকজন বসতবাড়ি করতে শুরু করল, ভারত থেকে লাখে লাখে মুসলমান এসে ঢাকাতেই উঠলো। কিন্তু মশার যন্ত্রণা কমলো না।

সেই সময় পূর্ব পাকিস্তানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পেলেন ফেনীর সন্তান হাবিবুল্লাহ বাহার চৌধুরী। কলকাতা মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের সাবেক অধিনায়ক এই মানুষটি কথা কম বলতেন, কাজ বেশি করতেন। তিনি যুক্তরাষ্ট্র থেকে ২০,০০০ মশার ঔষধ ছিটানোর মেশিন আনালেন (ব্রাশের তৈরি এই মশার ঔষধ ছেটানোর লম্বা টিউব আকৃতির যন্ত্রগুলো আমি ১৯৮০-৯০ সাল পর্যন্ত ঢাকা শহরে দেখেছি)। রাস্তার পাশে গভীর ড্রেন খনন করালেন, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা আধুনিক করলেন, শহরের সবগুলো পুকুর খাল ডোবা পরিষ্কার করালেন, ইস্পাহানীর সহায়তায় মশার ওষুধ ছিটানোর উপযোগী দুটো বিমান পর্যন্ত ক্রয় করালেন। পঞ্চাশ দশকে মাত্র দুই বছরের মধ্যে উনি ঢাকার মশাকে এমন মাইর দিলেন যে, উনার মৃত্যুর আরো ১০ বছর পর ১৯৭৫/৭৬ সালেও ঢাকা শহরের মানুষ মশারি না টানিয়ে ঘুমাতে পারতো।

আফসোস! বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে, কিন্তু হাবিবুল্লাহ বাহার এর মত আরেকজন মানুষ জন্ম নেয়নি।

(লেখকের ফেসবুক পোস্ট থেকে নেওয়া)

কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের সভাপতি শফিকুল র‌্যাবের হেফাজতে তারা নিজেরাই নিজেদের দুর্নীতি প্রমাণ করেছেন: মির্জা ফখরুল মাদকাসক্ত চালকদের ধরতে পরীক্ষা করা হবে আওয়ামী লীগের অনেক নেতাই নজরদারিতে যাকে ধরবে তাকেই বহিষ্কার করা হবে: যুবলীগ সভাপতি খেলাঘরের জাতীয় সম্মেলন শুরু টস জিতে ব্যাটিংয়ে আফগানিস্তান ফাইনালের আগেই আফগানদের হারাতে চায় টাইগাররা ছাটাই হওয়ার আগেই ধোনির চলে যাওয়া উচিৎ: গাভাস্কার কলাবাগান ক্রীড়াচক্র ঘিরে রেখেছে র‌্যাব যুবলীগ নেতা শামীমের অফিস থেকে টাকা, মদ ও অস্ত্র জব্দ টাঙ্গাইলে ট্রাকচাপায় ভ্যানচালক নিহত দুই লাখ ইয়াবাসহ মিয়ানমারের ৮ নাগরিক আটক নোয়াখালীতে অজ্ঞাত ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধার নারী অঙ্গের ভ্রান্তি দূর করতে 'যোনি জাদুঘর' প্রেমপত্র পোড়াতে গিয়ে পুড়লো বাড়ি বিএনপি ক্যাসিনোর শহর বানিয়েছিল: কাদের ঠাকুরগাঁও সীমান্তে বাংলাদেশিকে পিটিয়ে মারলো বিএসএফ রাজশাহীর বড়াল নদী থেকে নারীসহ ৪ লাশ উদ্ধার বাংলা ভালো থাকলে গোটা ভারত ভালো থাকবে, এনআরসি প্রসঙ্গে মমতা বাবা হয়েছেন ভিপি নুর নিজ অঞ্চল থেকে ৭শ কিলোমিটার দূরের কারাগারে রাখা হয়েছে কাশ্মীরি বন্দিদের ওয়াশিংটনে বন্দুক হামলায় নিহত ১ ‘গরিবের ছেলের এমন অসুখ হলে বাঁচবে কীভাবে’ ডিজিটাল বাংলাদেশের দ্বিতীয় পর্যায় কক্সবাজারে সিএনজি-লেগুনা সংঘর্ষে মা-ছেলে নিহত কক্সবাজারে ব্র্যাক কর্মী খুন খুলনায় ডেঙ্গু জ্বরে গৃহবধূর মৃত্যু গোপন কুঠুরিতে ৩৩ লাখ টাকা রেখে মারা গেছেন বিআরটিএর কর্মকর্তা বিপর্যয়ের মুখে জাতিসংঘ সফর বাতিল করেছেন নেতানিয়াহু