artk
শনিবার, জুলাই ২৭, ২০১৯ ৬:০৬

ডেঙ্গুতে নিহত ঢাবি শিক্ষার্থীর ২২ ঘণ্টার বিল ১ লাখ ৮৬ হাজার!

স্টাফ রিপোর্টার
media

 রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে প্রায় ২২ ঘণ্টা চিকিৎসা নেন তিনি। এসময়ে তার চিকিৎসা বাবদ বিল করা হয়েছে ১ লাখ ৮৬ হাজার টাকা। যা সম্পূর্ণ ভুয়া, বানোয়াট ও মনগড়া হিসেবে প্রমাণিত হয়েছে। 

ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স বিভাগের স্নাতকোত্তর শিক্ষার্থী ফিরোজ কবীরের মৃত্যু হয়েছে। রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে প্রায় ২২ ঘণ্টা চিকিৎসা নেন তিনি। এসময়ে তার চিকিৎসা বাবদ বিল করা হয়েছে ১ লাখ ৮৬ হাজার টাকা। যা সম্পূর্ণ ভুয়া, বানোয়াট ও মনগড়া হিসেবে প্রমাণিত হয়েছে। 

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মফিজুর রহমান, ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন সেখানে উপস্থিত ছিলেন। তারা প্রমাণ করেন হাসপাতালের বিলটি বানোয়াট এবং মনগড়া। 

এর আগে, ডেঙ্গু আক্রান্ত হলে ফিরোজকে প্রথমে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। উন্নত চিকিৎসার জন্য কর্তব্যরত চিকিৎসকরা ফিরোজকে স্কয়ার হাসপাতালে পাঠায়। 

শুক্রবার (২৬ জুলাই) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ফিরোজ।

এ ঘটনায় স্কয়ার হাসপাতালের প্রতি ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্কয়ার হাসপাতালকে বয়কটের ঘোষণা দিয়েছেন শিক্ষার্থীদের একাংশ।

তারা বলেন, ওষুধের নামে ইচ্ছেমতো বিল ধরা হয়েছে। রক্তে ক্রসম্যাচ করা না হলেও বিল বানানো হয়েছে। এছাড়াও বিভিন্ন খাতে ইচ্ছেমতো বিল বসানো হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের নিউট্রেশন অ্যান্ড ফুড সায়েন্স বিভাগের শিক্ষার্থী সাদ্দাম হোসাইন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে লিখেছেন, ফিরোজকে স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে ২৫ জুলাই রাত ১১টা ২২ মিনিটে। ফিরোজ মারা যান ২৬ জুলাই রাত ৯টা ১০ মিনিটে। ২২ ঘণ্টারও কম সময়ে বিল এসেছে ১ লাখ ৮৬ হাজার টাকা।

রক্তে ক্রসম্যাচ দেখানো হয়েছে যেটা হাসপাতালে করা হয় নি। ওষুধ বাবদ দেখানো হয়েছে ৩২ হাজার টাকা। অথচ ডাক্তার বলেছেন স্যালাইন এবং ঢাকা মেডিকেলের নরমাল কিছু ওষুধের কথা যা সর্বোচ্চ ৫০০ টাকা হতে পারে।

এদিকে, ডেঙ্গু প্রতিরোধে কেমন ব্যবস্থা নিচ্ছে হল প্রশাসন এমন প্রশ্নের জবাবে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মফিজুর রহমান বলেন, ডেঙ্গু প্রতিরোধে সপ্তাহে চারদিন মশার ওষুধ প্রয়োগ করা হচ্ছে। গতকাল আমি নিজে স্বশরীরে হলের প্রতিটি কক্ষে গিয়ে শিক্ষার্থীদের খোঁজ নিয়েছি। ডেঙ্গু প্রতিরোধে হল প্রশাসন কাজ করে যাচ্ছে।

ডেঙ্গু প্রতিরোধের বিষয়ে সলিমুল্লাহ মুসলিম হক হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মাহবুবুল আলম জোয়ার্দারবলেন, হল প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রতিদিনই হলে মশার ওষুধ প্রয়োগ করা হচ্ছে। তাছাড়া আগামীকাল আমাদের বিশেষ একটি পরিকল্পনা আছে, শিক্ষার্থীদের সাথে নিয়ে হলের সম্পূর্ণ আবাসিক এলাকা পরিষ্কার করা হবে।

ডেঙ্গু প্রতিরোধে মশা নিধন এবং পরিস্কার পরিচ্ছন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হল সংসদ। হল সংসদ সদস্য মো. আলী হোসাইনের তত্ত্বাবধানে আগামী ২৬ জুলাই মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হলে এ মশা নিধন এবং পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান পরিচালিত হবে

পশুর চেয়েও নিকৃষ্ট ধর্ষক: প্রধানমন্ত্রী করোনা ভাইরাসের কারণে হজে যাওয়া না হলে টাকা ফেরত: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী দাঙ্গা নয়, দিল্লিতে পরিকল্পিত গণহত্যা হয়েছে: মমতা ভারতের সম্মান তলিয়ে দিয়েছে মোদি সরকার: মমতা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে সুনামগঞ্জে এনামুল-রুপন ছয় দিনের রিমান্ডে পিরোজপুরে সাবেক ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা চলতি বছরই তিস্তা চুক্তির সম্ভাবনা: শ্রিংলা ঢাকা উত্তরের নির্বাচন বাতিল চেয়ে তাবিথের মামলা খুলনায় ছাত্রলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা অভিনেতা গোলাম মুস্তাফার জন্মদিন সোমবার আদালতে টাউট-বাটপার শনাক্তের নির্দেশ পাওয়ার ট্রলিকে ধাক্কা দিয়ে বিকল রেলইঞ্জিন কলকাতা সফরে এসে প্রবল বিক্ষোভের মুখে অমিত শাহ রোবট চালাবে গাড়ি! ভিপি নূরকে হত্যার হুমকি দেয়ার পর দুঃখ প্রকাশ টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৭ জন নিহত রাখাইনপ্রদেশে সেনাদের গুলিতে শিশুসহ ৫ রোহিঙ্গা নিহত ইস্কাটনে ভবনে আগুন: মায়ের পর চলে গেলেন রুশদির বাবাও চট্টগ্রামে একটি বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ২ দেশে প্রতিদিন যক্ষ্মায় মারা যায় ১৩০ জন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনাভাইরাস আতঙ্কে আয়ারল্যান্ডের স্কুল বন্ধ ঘোষণা বিশিষ্ট সুরকার সেলিম আশরাফ আর নেই মোদীকে অতিথি হিসেবে সর্বোচ্চ সম্মান দেওয়া হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মধুর যত জাদুকরী গুণ চিপসের প্যাকেটের ভিতর খেলনা নয়: হাইকোর্ট আমার গাড়িতেও অস্ত্র আছে কী না আমি জানি না: শামীম ওসমান ফ্র্যান্সেও করোনা, অনিশ্চিত কান চলচ্চিত্র উৎসব উপনির্বাচন: গাইবান্ধা-৩ আসনে প্রতীক বরাদ্দ গুজব ও গণপিটুনি রোধে হাইকোর্টের ৫ নির্দেশনা