artk
রোববার, সেপ্টেম্বার ২২, ২০১৯ ৯:৩৫   |  ৭,আশ্বিন ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

বৃহস্পতিবার, জুলাই ১১, ২০১৯ ১০:৫২

অস্ত্র আইনে দণ্ড কমের ব্যাখ্যা চান হাইকোর্ট

media

অস্ত্র মামলা আইনের বিধান অনুযায়ী আসামিকে নির্ধারিত সাজার (সর্বনিম্ন ১০ বছর) থেকে কম (৭ বছরের দণ্ড) সাজা দেয়ার কারণ জানাতে নাটোরের তিন নম্বর বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক বেগম রুবাইয়া ইয়াসমিনের কাছে ব্যাখ্যা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট।

অস্ত্র মামলা আইনের বিধান অনুযায়ী আসামিকে নির্ধারিত সাজার (সর্বনিম্ন ১০ বছর) থেকে কম (৭ বছরের দণ্ড) সাজা দেয়ার কারণ জানাতে নাটোরের তিন নম্বর বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক বেগম রুবাইয়া ইয়াসমিনের কাছে ব্যাখ্যা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট।

আগামী ২৫ জুলাইয়ের মধ্যে তাকে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে। সেদিন পরবর্তী আদেশের জন্য দিন ধার্য করেছেন আদালত।

ওই কোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে আসামির আপিল আবেদনের শুনানিতে বৃহস্পতিবার হাইকোর্টের বিচারপতি এএনএম বশির উল্লাহ ও বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলামের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে আসামিপক্ষের শুনানিতে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট মো. তাহেরুল ইসলাম। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. আমিনুল ইসলাম ও আনোয়ারা শাহজাহান এবং সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল ফাতেমা রশিদ।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আমিনুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, ২০১৭ সালের ২৭ জুলাই পিস্তলসহ মো. রাজ্জাককে গ্রেফতার করে পুলিশ। একইদিন তার বিরুদ্ধে নাটোর সদর থানায় মামলা হয়। এই মামলায় বিচার শেষে চলতি বছরের ২৮ মার্চ রাজ্জাককে সাত বছরের কারাদণ্ড দেন নাটোরের তিন নম্বর বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক বেগম রুবাইয়া ইয়াসমিন। ১৮৭৮ সালের অস্ত্র আইনের ১৯(ক) ধারায় এই সাজা দেয়া হয়। অথচ আইনের এই ধারায় সর্বোচ্চ শাস্তি যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং সর্বনিম্ন সাজা ১০ বছর কারাদণ্ড।

আসামি ওই রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল আবেদন করেন। বৃহস্পতিবার আদালত তার আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ করে নথি তলব করেছেন। একই সঙ্গে দণ্ডের বিষয়টি নজরে আসায় ওই বিচারকের কাছে বিষয়টি জানতে ব্যাখ্যা চেয়েছেন হাইকোর্ট।

আইনের কোন কর্তৃত্ববলে এ আদেশ দিয়েছেন তা আগামী ২৫ জুলাইয়ের মধ্যে বিচারক বেগম রুবাইয়া ইয়াসমিনকে ব্যাখ্যা দিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আদালত আগামী ২৫ জুলাই পরবর্তী আদেশের জন্য দিন ধার্য করেছেন।

‘মিসেস বাংলাদেশ’ হলেন মুনজারিন অবনী টেকনাফে আটকের পর ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গা দম্পতি নিহত বাগেরহাটে ধর্ষণ মামলায় আ.লীগ নেতা গ্রেপ্তার পানির নিচে বিয়ের প্রস্তাব দিতে গিয়ে যুবকের মৃত্যু লাইবেরিয়ায় অগ্নিকাণ্ডে কুরআন তেলাওয়াতরত ২৭ শিক্ষার্থীর মৃত্যু ভারত থেকে অস্কারে যাচ্ছে ‘গাল্লি বয়’ সাকিব তাণ্ডবে আফগানদের বিরুদ্ধে জয় পেল টাইগাররা শিবপুরে মদপানে দুই শ্রমিকের মৃত্যু পাটগ্রামে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে কলেজছাত্রীর অবস্থান চট্টগ্রামের মুক্তিযোদ্ধা ক্রীড়া সংসদেও জুয়ার আসর ১৩০টি দেশ ভ্রমণ করেছেন এই অন্ধ পর্যটক ৪০ কোটি টাকা নিয়ে পালানো সেই টার্কি বাবলু স্ত্রীসহ গ্রেপ্তার দুর্নীতির দায়ে সরকারের পদত্যাগ করা উচিত: ফখরুল চলমান অভিযান জনমনে প্রত্যাশার সৃষ্টি করবে: টিআইবি স্কুল মাস্টারের ছেলে জি কে শামীমের ডন হয়ে ওঠা রাজধানীর ভূতের আড্ডায় অভিযান! পরিবহন ব্যবস্থায় শৃঙ্খলার উন্নতি ঘটেছে: প্রধানমন্ত্রী আফগানদের হারাতে ১৩৯ রানের লক্ষ্য পেল টাইগাররা রোহিঙ্গা নিয়ে ক্যামেরনের সঙ্গে মিথ্যাচার সু চির গাজীপুর সদর উপজেলা আ.লীগের সভাপতির বিরুদ্ধে মামলা শিক্ষার্থীদের উপর হামলা, পদত্যাগ করলেন সহকারী প্রক্টর দলের ভাবমূর্তি উদ্ধারে আগাছা-পরগাছা দূর করা হবে: কাদের কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের সভাপতি শফিকুল ১০ দিনের রিমান্ডে বহুদলীয় গণতন্ত্র হুমকির মুখে: জিএম কাদের ইংল্যান্ডের সব ফরম্যাটের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে আর্চার নিয়ম রক্ষার ম্যাচে টসে জিতে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ ফাহিমের জোড়া গোলে বাংলাদেশের উড়ন্ত শুরু ১০ দিনের রিমান্ডে কৃষকলীগ নেতা ফিরোজ মসজিদের নির্মাণ কাজ বন্ধ করা সেই ছাত্রলীগ নেতাকে শোকজ যে ফুল ফোটে একশো বছর পরে