artk

স্টাফ রিপোর্টার

বৃহস্পতিবার, জুলাই ১১, ২০১৯ ৭:৫৬

‘পতন অব্যাহত থাকলে মারা যাব’

media

পুঁজিবাজারের পতন অবস্থার প্রতিবাদে বৃষ্টি মধ্যেও সাধারণ বিনিয়োগকারীরা রাজপথে বিক্ষোভ করেছেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ভবনের সামনে ফের বিনিয়োগকারীরা এ বিক্ষোভ করেন।

পুঁজিবাজারের পতন অবস্থার প্রতিবাদে বৃষ্টি মধ্যেও সাধারণ বিনিয়োগকারীরা রাজপথে বিক্ষোভ করেছেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ভবনের সামনে ফের বিনিয়োগকারীরা এ বিক্ষোভ করেন।

গতকালের মতো আজও এ বিক্ষোভের নেতৃত্ব দেন বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদ। দুপুর দেড়টা থেকে তিনটা পর্যন্ত তাদের নেতৃত্বে ডিএসইর সামনে আন্দোলন করেছে বিনিয়োগকারীরা।

বিক্ষোভে বিনিয়োগকারীরা বলেন, আমরা দিনের পর দিন পুঁজিবাজারের উত্থানে নানা কর্মসূচি করে আসছি। কিন্তু রেগুলেটরসহ সংশ্লিষ্টদের কাছ এ ব্যাপারে কোনো প্রকার ইতিবাচক সাড়া পাচ্ছি না। কেন জানি দেখেও দেখে না। 

পতনের কারণে পুঁজি হারাচ্ছে এমন ক্ষোভ প্রকাশ করে বিক্ষোভে বিনিয়োগকারীরা বলেন, বিনিয়োগ হারিয়ে আমরা রাস্তায় এসে পড়েছি। বর্তমান অবস্থা অব্যাহত থাকলে আমরা গণহারে মারা পরব।

বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) কর্মকর্তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বিনিয়োগকারীরা বলেন, বিএসইসির কর্মকর্তারা যদি বিনিয়োগকারীদের কথা চিন্তা করে কাজ করেন তবে বাজারে যে চলমান অস্থিরতা থাকবেনা। 

বিক্ষোভে বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদের সভাপতি মিজান উর রশিদ বলেন, বাজারের চলমান দুরবস্থা কাটাতে আমরা আন্দোলন করছি। আমরা উত্থান পুঁজিবাজার চাই। রোববার বিনিয়োগকারীরা ডিএসইর সামনে আবার একযোগে আন্দোলন করব এবং বাজার ঠিক না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে।

মিজান উর রশিদ আরও বলেন, দরপতনের প্রতিবাদে আমরা রোজার ঈদের আগেও মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছি। কিন্তু পতন ঠেকাতে কেউ কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না। আমাদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। তাই ফের আন্দোলনে নেমেছি। পতন রোধে আগামীতে বিনিয়োগকারীদের নিয়ে আরও কঠোর কর্মসূচি দিব।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটে পুঁজিবাজারের স্থিতিশীলতা এবং ঊর্ধ্বমুখী বাজারের স্বার্থে বেশ কিছু পদক্ষেপ নিলেও বাজারের নীতি নির্ধারক সংস্থার এদিকে ইতিবাচক নজর নেই। ইস্যুয়ার কোম্পানিবান্ধব নীতিনির্ধারক সংস্থা থাকলে বাজারের চলমান দুরবস্থা থামাতে কেউ এগিয়ে আসছে না।

পশুর চেয়েও নিকৃষ্ট ধর্ষক: প্রধানমন্ত্রী করোনা ভাইরাসের কারণে হজে যাওয়া না হলে টাকা ফেরত: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী দাঙ্গা নয়, দিল্লিতে পরিকল্পিত গণহত্যা হয়েছে: মমতা ভারতের সম্মান তলিয়ে দিয়েছে মোদি সরকার: মমতা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে সুনামগঞ্জে এনামুল-রুপন ছয় দিনের রিমান্ডে পিরোজপুরে সাবেক ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা চলতি বছরই তিস্তা চুক্তির সম্ভাবনা: শ্রিংলা ঢাকা উত্তরের নির্বাচন বাতিল চেয়ে তাবিথের মামলা খুলনায় ছাত্রলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা অভিনেতা গোলাম মুস্তাফার জন্মদিন সোমবার আদালতে টাউট-বাটপার শনাক্তের নির্দেশ পাওয়ার ট্রলিকে ধাক্কা দিয়ে বিকল রেলইঞ্জিন কলকাতা সফরে এসে প্রবল বিক্ষোভের মুখে অমিত শাহ রোবট চালাবে গাড়ি! ভিপি নূরকে হত্যার হুমকি দেয়ার পর দুঃখ প্রকাশ টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৭ জন নিহত রাখাইনপ্রদেশে সেনাদের গুলিতে শিশুসহ ৫ রোহিঙ্গা নিহত ইস্কাটনে ভবনে আগুন: মায়ের পর চলে গেলেন রুশদির বাবাও চট্টগ্রামে একটি বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ২ দেশে প্রতিদিন যক্ষ্মায় মারা যায় ১৩০ জন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনাভাইরাস আতঙ্কে আয়ারল্যান্ডের স্কুল বন্ধ ঘোষণা বিশিষ্ট সুরকার সেলিম আশরাফ আর নেই মোদীকে অতিথি হিসেবে সর্বোচ্চ সম্মান দেওয়া হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মধুর যত জাদুকরী গুণ চিপসের প্যাকেটের ভিতর খেলনা নয়: হাইকোর্ট আমার গাড়িতেও অস্ত্র আছে কী না আমি জানি না: শামীম ওসমান ফ্র্যান্সেও করোনা, অনিশ্চিত কান চলচ্চিত্র উৎসব উপনির্বাচন: গাইবান্ধা-৩ আসনে প্রতীক বরাদ্দ গুজব ও গণপিটুনি রোধে হাইকোর্টের ৫ নির্দেশনা