artk
বুধবার, জুলাই ১৭, ২০১৯ ৮:৪৪   |  ২,শ্রাবণ ১৪২৬

বিচিত্র ডেস্ক

মঙ্গলবার, জুলাই ৯, ২০১৯ ১১:৩৬

ক্লিনিকের ভুলে ভুল শিশুর জন্ম দিয়েছে দম্পতি

media

এশিয়ার এক দম্পতি অনেকদিন ধরেই সন্তান লাভ করার চেষ্টা করছিলেন। শেষপর্যন্ত তারা আইভিএফ পদ্ধতি বেছে নিয়েছিলেন, যার মাধ্যমে বাবা-মায়ের শুক্রাণু ও ডিম্বাণু ল্যাবে নিষিক্ত করে ইনজেকশনের মাধ্যমে আবার মায়ের গর্ভে স্থাপন করা হয়। পরবর্তীতে মায়ের গর্ভে শিশুটি বেড়ে ওঠে।

কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার একটি ফার্টিলিটি ক্লিনিকে আইভিএফ পদ্ধতিতে শিশু জন্ম দেয়ার পর এই দম্পতি দাবি করেছেন যে, ক্লিনিকের কারণে ভুল শিশুর জন্ম হয়েছে।

নিউইয়র্ক স্টেটে করা একটি মামলায় ওই দম্পতি দাবি করেছেন, যে যমজ শিশুর জন্ম হয়েছে, তারা তাদের সন্তান নয়। এই দম্পতি এশীয় বংশোদ্ভূত হলেও শিশুরা এশীয় নয়। এমনকি তাদের একে অপরের সঙ্গেও সম্পর্ক নেই।

মামলায় বলা হয়েছে, ডিএনএ পরীক্ষা করে দেখা গেছে যে, এই শিশুরা তাদের রক্ত সম্পর্কের নয়, ফলে তারা শিশুদের ওপর থেকে দাবিও তুলে নিয়েছেন।

তবে এই দাবির বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেনি সিএইচএ ফার্টিলিটি নামের ওই ক্লিনিক।

মামলায় ওই দম্পতি জানিয়েছেন, তারা কয়েক বছর ধরে পিতা-মাতা হওয়ার চেষ্টা করছেন। এজন্য ভ্রমণ, পরীক্ষা, ওষুধ ইত্যাদি মিলিয়ে প্রায় এক লাখ ডলার (প্রায় ৮৫ লাখ টাকা) খরচ করে ইন ভিট্রো ফার্টিলাইজেশন বা আইভিএফ পদ্ধতি গ্রহণ করেন।

কিন্তু সন্তানের জন্মের পর এই দম্পতি খুব আহত হয়, যখন তারা দেখতে পান যে, তাদের ভ্রণ থেকে সন্তানের জন্ম হলে তাদের যেরকম চেহারা হওয়ার কথা, শিশুদের চেহারা তা নয়।

এই শিশুরা শুধু যে বাবা-মায়ের জিন পায়নি তা নয়, তাদের একে অপরের মধ্যেও জিনগত কোনো সম্পর্ক নেই বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে।

এই দম্পতির আইনজীবী বিবিসিকে বলেছেন, “তার ক্লায়েন্ট সিএইচএ ফার্টিলিটি থেকে চরম অবহেলা আর দায়িত্বহীন আচরণ পেয়েছে।”

“আমাদের মামলা করার মূল উদ্দেশ্য হলো ক্লায়েন্টের ক্ষতিপূরণ পাওয়া আর যাবে এরকম ঘটনা ভবিষ্যতে না ঘটে, সেটা নিশ্চিত করা।” তিনি বলছেন।

ওই কোম্পানির মন্তব্য জানতে বিবিসি যোগাযোগ করেছে, যদিও এখনো তাদের সাড়া পাওয়া যায়নি।

ঈদে ‘ব্যাঙ’র রুচিশীল ও উৎসবনির্ভর পোশাক ঐতিহ্যের ২০ বছরে পদার্পণ উপলক্ষে বই উৎসব মহরতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তবু নায়িকার ব্যাগ হাওয়া! বন্যায় সিরাজগঞ্জ চরাঞ্চলের সাড়ে ৯শ গ্রাম তলিয়ে গেছে সিরাজগঞ্জে রেল দুর্ঘটনায় দোষীদের শাস্তি চায় জামায়াত অন্ধ্রপ্রদেশে মন্দিরে নরবলি! তিন লাশ উদ্ধার রিফাত হত্যাকাণ্ড: স্ত্রী মিন্নি গ্রেপ্তার ৯ এমপির সুপারিশে ৪৫ জন হজে যাচ্ছেন সরকারি খরচে অধ্যাপক আনু মুহাম্মদকে গুম করার হুমকি কোরবানির ঈদ পর্যন্ত ভারত থেকে গরু আনা বন্ধ কুড়িগ্রামে নৌকা ডুবে ৪ শিশুসহ নিহত ৫ বেরোবির সঙ্গে ইউডার সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর সরকারি টাকায় কি হজ করা যায়? বুড়িগঙ্গা তীরের ৪৪ অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ক্যাপটেক পপুলার ফান্ড ও ব্যাংক এশিয়ার বন্ড অনুমোদন গাফিলতি খুঁজে দেখা হচ্ছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যে কারণে বিজয়-তাইজুলকে ওয়ানডেতে ফেরানো হলো আক্তার চার্টার্ডকে বাদ দিয়ে অডিটরসের তালিকা প্রকাশ বিডারের প্রস্তাবিত দরেই শেয়ার কিনতে হবে প্লেসমেন্ট শেয়ারে লক ইন ২ বছর ‘দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে দেশের অর্থনীতি’ ‘ভারতে বাংলাদেশি পণ্যের রপ্তানি বাড়বে’ শেষ বলের আগে মুশফিকের ব্যর্থতার কথা মনে পড়েছিল: স্টোকস আমি নিশ্চিত নিয়ম বদলে যাবে: নিউজিল্যান্ড কোচ পল্লী নিবাসেই চিরনিদ্রায় শায়িত এরশাদ ইরানের পরমাণু চুক্তি লঙ্ঘন গুরুতর নয়: ইউরোপীয় ইউনিয়ন ডিআইজি মিজান ও বাছিরের বিরুদ্ধে মামলা নাইটক্লাবে শাহরুখকন্যার উদ্দাম নাচ ইনডোর হকিতে ইরানের সাথে লজ্জার হার বাংলাদেশের টাইগারদের শ্রীলঙ্কা সফরের দল ঘোষণা, ফিরলেন তাইজুল-বিজয়