artk
বুধবার, জুলাই ১৭, ২০১৯ ৯:১৮   |  ২,শ্রাবণ ১৪২৬
রোববার, জুলাই ৭, ২০১৯ ১১:০৩

সিডনিতে দেশীয় সাংবাদিকতা: একটি সামাজিক আন্দোলন

নাইম আবদুল্লাহ
media
সমস্যা বোধ করি নতুন লেখকদের নিরুৎসাহিত করা। তাহলে তো আর পুরনো লেখকদের খদ্দরের পাঞ্জাবি আর কাপড়ের ব্যাগের কোন চল থাকবে না।

পূর্ব প্রকাশের পর: সিডনিতে এখন প্রায় সবাই পড়াশুনা করে। আমি বুঝাতে চাইছি পাঠক সংখ্যা বেড়ে চলেছে। অনেক পাঠক পড়তে পড়তে লিখতে শুরু করেছে। তারা লজ্জা বা পাছে লোকে কিছু বলে কিংবা সমালোচনার বেড়াজাল ডিঙ্গিয়ে বেরিয়ে আসতে শুরু করেছে। এটা সামাজিক আন্দোলনের একটি অন্যতম সুফল।

কেউ কেউ বলছেন, লেখকদের চেয়ে পাঠকরাই বেশি কলাম লিখছেন। তাই নামী দামি লেখকরা লিখতে বিব্রত বোধ করছেন। নামী দামি লেখকদের বরং পাঠক কিংবা নবীন লেখকদের জন্য বেশি বেশি লিখে উৎসাহিত করা উচিত। লেখক প্লাটফর্মের এই দাম্ভিকতার কারণেই গত একযুগ সিডনিতে লেখালেখির চর্চা মুখ থুবড়ে পড়েছিল। যখন আবার পালে বাতাস পেলো তখন আবারো নবীনদের থামিয়ে দেওয়ার পাঁয়তারা চলছে।

আমি মনে করি লেখালেখি কিংবা মনের ভাব প্রকাশ করা কোন ব্যাকরণ বই নয় যে ণত্ব বিধান সত্ত্ব বিধান কিংবা পাগুটাদীপতি মেনে চলতে হবে। আর যারা পুরানো লেখক বলে দাবি করছেন তাদের লেখায়ও কোন ব্যাকরণ কপচা নেই। তাহলে সমস্যা কোথায়?

সমস্যা বোধ করি নতুন লেখকদের নিরুৎসাহিত করা। তাহলে তো আর পুরনো লেখকদের খদ্দরের পাঞ্জাবি আর কাপড়ের ব্যাগের কোন চল থাকবে না।

লেখক কবিরা লিখবেন, দেশে গিয়ে বইমেলায় বই প্রকাশ করবেন অটোগ্রাফ দিয়ে সেই ছবি ফেজবুকে পোস্ট করবেন তারপর সিডনিতে এসে বইমেলায় বই বিক্রি করে প্রতিষ্ঠিত লেখক হিসেবে জাহির করবেন। তাতে কারও কোন আপত্তি নাই। কিন্তু তাতে সিডনিতে নতুন প্রজন্ম কতটুকু উপকৃত হবে? সাহিত্য চর্চা নতুন পাঠক কিংবা লেখক তৈরিতে কতটুকু অবদান রাখবে?

আমি কোন লেখক কিংবা কবি নই। আমি সিডনিতে দেশীয় সাংবাদিকতা ও সামাজিক আন্দোলনে আরও অনেকের মতো একজন সাধারণ কর্মী মাত্র। আমাকে যদি কেউ জিজ্ঞেস করে আচ্ছা ভাই আপনি নতুন পাঠক কিংবা লেখক তৈরিতে কিভাবে কাজ করছেন? আমি গর্ব করে নাম ঠিকানাসহ তাদের কথা বলতে পারবো।

কিছুদিন আগে আমার এক পরিচিত শুভাকাঙ্ক্ষি একটি প্লাটফর্মে লেখা দেবার জন্য অনুরোধ করেছিলেন। আমি তাকে ছোট্ট একটি আবদার করে বলেছিলাম, যে প্লাটফর্মের আপনি একজন অন্যতম উদ্যোক্তা সেখানে আপনি লেখা দিলেই আমিও লেখা দিবো। উনি আজ সকালে লেখা পোস্ট করে আমাকে জানিয়েছেন। একজন অনিয়মিত লেখক এখন থেকে নিয়মিত লিখবেন।

অন্য একজন অনিয়মিত লেখক আমাকে তার একটি কলাম পাঠিয়ে একটি অনলাইন পোর্টালে প্রকাশের অনুরোধ করেছিলেন। আমি পত্রিকা অফিসে তার নামে পাঠালাম। তারা প্রকাশে গররাজি থাকলেও পরিশেষে প্রকাশ করলেন। পরবর্তীতে তার কলাম পাঠক প্রিয় হয়েছে। পোর্টাল থেকে তিনি এখন নিয়মিত লেখার অনুরোধ পাচ্ছেন।

একজন নতুন কিংবা অনিয়মিত লেখকের লেখা প্রকাশিত হলে তাদের উজ্জ্বল কিংবা উদ্ভাসিত মুখের দিকে কেউ তাকিয়ে দেখেছেন? আমি আমার নিজের মুখ আয়নায় দেখেছি।

আগামী একযুগ পরে সিডনিতে দেশীয় সাংস্কৃতির সামাজিক আন্দোলন কতটা জারি থাকবে তা কি আমরা ভেবে দেখেছি? আর কতটুকুই বা নতুন প্রজন্মের অন্তরে রেখে যেতে পারবো? আমি সেখানে খুব বেশি আলো দেখি না।

সিডনিতে নাট্য আন্দোলন চলছে। অনেকেই দেশে স্কুল কলেজ ভার্সিটিতে অভিনয় করেছেন। তারাও ছেলেমেয়েদের নিয়ে এগিয়ে আসতে চান। কিন্তু সেই পরিবেশ কি আমরা এখনও তৈরি করতে পেরেছি?

এখানকার প্রিন্ট ভার্সন পত্রিকা অর্থনৈতিক পৃষ্ঠপোষকতার অভাবে মাসিক থেকে ত্রৈমাসিকে প্রকাশের পাঁয়তারা করছে। যেখানে অন্যান্য বাংলা ভাষাভাষি দেশগুলিতে মাসিক থেকে পাক্ষিক কিংবা এখন প্রতি সপ্তাহে প্রকাশিত হচ্ছে। এই পিছু হটার দায়ভার আমাদের। এই দুরাবস্থার গ্লানি সবার। (চলবে)

লেখক: সাংবাদিক ও সিডনি প্রবাসী।

রিফাত হত্যায় মিন্নির সংশ্লিষ্টতা ‘প্রাথমিকভাবে সত্য বলে প্রতীয়মান’ ঈদে ‘ব্যাঙ’র রুচিশীল ও উৎসবনির্ভর পোশাক ঐতিহ্যের ২০ বছরে পদার্পণ উপলক্ষে বই উৎসব মহরতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তবু নায়িকার ব্যাগ হাওয়া! বন্যায় সিরাজগঞ্জ চরাঞ্চলের সাড়ে ৯শ গ্রাম তলিয়ে গেছে সিরাজগঞ্জে রেল দুর্ঘটনায় দোষীদের শাস্তি চায় জামায়াত অন্ধ্রপ্রদেশে মন্দিরে নরবলি! তিন লাশ উদ্ধার রিফাত হত্যাকাণ্ড: স্ত্রী মিন্নি গ্রেপ্তার ৯ এমপির সুপারিশে ৪৫ জন হজে যাচ্ছেন সরকারি খরচে অধ্যাপক আনু মুহাম্মদকে গুম করার হুমকি কোরবানির ঈদ পর্যন্ত ভারত থেকে গরু আনা বন্ধ কুড়িগ্রামে নৌকা ডুবে ৪ শিশুসহ নিহত ৫ বেরোবির সঙ্গে ইউডার সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর সরকারি টাকায় কি হজ করা যায়? বুড়িগঙ্গা তীরের ৪৪ অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ক্যাপটেক পপুলার ফান্ড ও ব্যাংক এশিয়ার বন্ড অনুমোদন গাফিলতি খুঁজে দেখা হচ্ছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যে কারণে বিজয়-তাইজুলকে ওয়ানডেতে ফেরানো হলো আক্তার চার্টার্ডকে বাদ দিয়ে অডিটরসের তালিকা প্রকাশ বিডারের প্রস্তাবিত দরেই শেয়ার কিনতে হবে প্লেসমেন্ট শেয়ারে লক ইন ২ বছর ‘দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে দেশের অর্থনীতি’ ‘ভারতে বাংলাদেশি পণ্যের রপ্তানি বাড়বে’ শেষ বলের আগে মুশফিকের ব্যর্থতার কথা মনে পড়েছিল: স্টোকস আমি নিশ্চিত নিয়ম বদলে যাবে: নিউজিল্যান্ড কোচ পল্লী নিবাসেই চিরনিদ্রায় শায়িত এরশাদ ইরানের পরমাণু চুক্তি লঙ্ঘন গুরুতর নয়: ইউরোপীয় ইউনিয়ন ডিআইজি মিজান ও বাছিরের বিরুদ্ধে মামলা নাইটক্লাবে শাহরুখকন্যার উদ্দাম নাচ ইনডোর হকিতে ইরানের সাথে লজ্জার হার বাংলাদেশের