artk
শুক্রবার, আগষ্ট ২৩, ২০১৯ ৬:৫৩   |  ৮,ভাদ্র ১৪২৬
শনিবার, জুন ১৫, ২০১৯ ১১:১০

এক মাস্টারেই চলছে দুই রেল স্টেশনের কার্যক্রম!

তরিকুল ইসলাম মিঠু, যশোর প্রতিনিধি
media
রেলওয়েতে জনবল সংকটের কারণে অনেক স্টাফ দিয়ে একাধিক কাজ করানো হয়। তারই ধারাবাহিকতা হিসেবে আমাকে দিয়ে দুই স্টেশনের দায়িত্ব পালন করানো হচ্ছে।

যশোরের দু’টি রেল স্টেশনে একই মাস্টার দিয়ে চলছে কার্যক্রম। ফলে যেকোনো মুহূর্তে ঘটে যেতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা। অপূরণীয় ক্ষতি হয়ে যেতে পারে এ রুটে চলাচলকারী যাত্রীদের জানমালের এমন আশংষ্কা প্রকাশ করেছে এলাকার নিয়মিত রেল যাতায়াতকারী যাত্রীরা।

স্টেশন দু’টি হলো যশোর ও বেনাপোল। উভয় স্টেশন দু’টি রেল জংশন হওয়ায় স্টেশন দু’টিতে স্টেশন মাস্টারের গুরুত্ব অপরিসীম বলে জানিয়েছে একাধিক যাত্রী।

সরেজমিন অনুসন্ধানে জানা যায়, গত তিন মাস আগে যশোর রেলস্টেশনে দায়িত্বে থাকা অবস্থায় অবসরে যান স্টেশন মাস্টার শ্রী পুষ্পল কুমার মণ্ডল। এ গুরুত্বপূর্ণ স্টেশনটি গত তিন মাস ধরে মাস্টারশূন্য ছিল।

অপরদিকে গত চার বছর ধরে বেনাপোল রেলস্টেশনের মাস্টার হিসাবে দায়িত্বরত আছেন সাইদুর রহমান। গত এক সপ্তাহ ধরে যশোর স্টেশন মাস্টারের রুমের সামনে স্টেশন মাস্টার হিসেবে সাইদুর রহমানে নেমপ্লেট ঝুলানো হয়েছে। তবে সপ্তাহ ধরে তার অফিসে গিয়ে এক দিনও তাকে পাওয়া যায়নি।

বিষয়টি নিয়ে সহকারী নারী স্টেশন মাস্টার নিগার সুলতানার কাছে জানতে চাইলে তিনি নিউজবাংলাদেশকে ডটকমকে বলেন, স্টেশন মাস্টার সাইদুর রহমান বর্তমানে দু’টি রেল স্টেশনের একই সাথে দায়িত্বে পালন করছেন। সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৬টা পর্যন্ত তিনি বেনাপোল রেলস্টেশনের দায়িত্বে থাকেন। এর পর সন্ধায় বেনাপোল থেকে ফিরে এসে তিনি যশোর রেলস্টেশনের দায়িত্বে থাকেন। এভাবেই চলছে যশোর রেলস্টেশনের মাস্টার পদের কার্যক্রম।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে রেলের এক কর্মচারী জানান, যশোর রেল স্টেশন থেকে মাস্টার অবসরে গেছে প্রায় চার মাস আগে। কিন্তু এখানে এখনো কোন স্টেশন মাস্টার আসেনি। যে কারণে এখানকার স্টাফরা তাদের খেয়াল-খুশি মতো চলে। তাছাড়া এখানে প্রায় একশ লোক তাদের অবসরের টাকা পয়সা নিতে আসেন। স্টেশন মাস্টার না থাকায় রেলের অবসর প্রাপ্তরা টাকা তুলতে চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছে প্রতিনিয়ত।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে অপর এক কর্মচারী জানান, যশোর রেলস্টেশনে অনেক মাস্টার আসার জন্য মুখিয়ে থাকে। কিন্তু উপরের কর্তা ব্যক্তিদের চাহিদা মোতাবেক ম্যানেজ করতে না পারলে এ স্টেশনে পোস্টিং দেন না।

সবাই এ স্টেশনে আসার আগ্রহের কারণ জানতে চাইলে তিনি জানান, এখানে টিকিট নিয়ে নয় ছয় আছে। এখানকার স্টেশন মাস্টারের সহযোগিতায় কাউন্টারের কিছু অসাধু লোক আছেন। যারা আগে থেকে দুরপাল্লার ট্রেনগুলোর টিকিট কেটে রাখেন। পরে দালাল বা পরিচিত জনদের মাধ্যমে অধিক মূল্যে ট্রেনের টিকিটগুলো বিক্রি করে থাকেন। কোন যাত্রী তিন দিন আগে কাউন্টারে গেলেও কাউন্টার থেকে বলা হয় ট্রেনের কোনো টিকিট নেই।

শাহিন, রাসেল, ইমরান, সুজনসহ একাধিক যাত্রী জানায়, তারা চার দিন আগে ঢাকাতে যাওয়ার জন্য স্টেশনের টিকিট কাউন্টারে গিয়েছিল টিকিট সংগ্রহের জন্য। কিন্তু কাউন্টার থেকে জানিয়ে দেওয়া হয় এক সপ্তাহের মধ্যে কোন টিকিট নেই।

বিষয়টি নিয়ে স্টেশন মাস্টার সাইদুর রহমাননের কাছে জানতে চাইলে তিনি নিউজবাংলাদেশকে বলেন, রেলওয়েতে জনবল সংকটের কারণে অনেক স্টাফ দিয়ে একাধিক কাজ করানো হয়। তারই ধারাবাহিকতা হিসেবে আমাকে দিয়ে দুই স্টেশনের দায়িত্ব পালন করানো হচ্ছে।

বাড়তি দায়িত্ব নেওয়ার জন্য কোন বেতন ভাতা দেওয়া হবে কি না তা জানতে চাইলে তিনি জানান, এর জন্য কোন বেতন ভাতা কর্তৃপক্ষ দেবে না। তবে এখানে তো আর কোন স্টেশন মাস্টার নেই।

আমি যাতে পরবর্তীতে স্থায়ীভাবে এ স্টেশনে দায়িত্ব পালন করতে পারি তার জন্য একই সাথে দু’স্টেশনের দায়িত্ব পালন করছি বলে তিনি জানান।

বিয়ের গেটেই বরের মাথা ফাটালো কনেপক্ষ রাখাইনে প্রবেশাধিকার চায় ইউএনএইচসিআর-ইউএনডিপি ১৫ ও ২১ আগস্ট নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য: মাউশি পরিচালক ওএসডি থানা থেকে পুলিশের জব্দ করা মোটরসাইকেল চুরি ৫ দিনের রিমান্ডে ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রী কাশ্মিরে জুমার নামাজের পর কারফিউ ভাঙার ডাক বাজারের ব্যাগে ৫ কোটি টাকার হেরোইন! প্রাথমিকে আরো ২০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ সাব-রেজিস্ট্রার অফিসকে ভূমি মন্ত্রণালয়ের অধীনে আনার সুপারিশ দেড় বছর ধরে স্বাস্থ্যকেন্দ্রে আসেন না ডাক্তার জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে রেড অ্যালার্ট জারির উদ্যোগ পরমাণু বোমা আমরা এমনি এমনি রাখিনি: জাভেদ মিয়াঁদাদ কলকাতায় বাংলাদেশির মৃত্যু: আরসালান নয় চালক ছিলেন বড় ভাই রাগিব রাজধানীসহ দেশের ৬ স্থানে দুদকের অভিযান ভারতের সবচেয়ে ধনী অভিনেতা অক্ষয় কুমার! শুরুতেই ফিটনেসে মনোযোগী বাংলাদেশি কোচ কেমন আছেন মিয়ানমারের মুসলমান নাগরিকেরা? বেশি নম্বর দেয়ার কথা বলে ছাত্রীকে যৌন হয়রানি, শিক্ষক বরখাস্ত উপহাসকারী রিজভীদেরও বিচার হওয়া উচিত: তথ্যমন্ত্রী ডা. জাফরুল্লাহসহ ৭৬ জনের বিরুদ্ধে আ.লীগ নেতার মামলা ওজনে কারচুপি: ২ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে বিএসটিআইয়ের মামলা বজ্রপাতে ৫ জেলায় ৯ জনের মৃত্যু যাত্রাবাড়ীতে বাসের ধাক্কায় বাবা নিহত, ছেলে আহত তিন বিচারপতির বিষয়ে অনুসন্ধান অন্যদের জন্য বার্তা রোহিঙ্গাদের থাকতে প্ররোচনা দিলে ব্যবস্থা নেয়া হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী পুঁজিবাজারে সূচকের উত্থান বিচার বিভাগের অনেকের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আছে: খোকন ভুল চিকিৎসা: ঢাবি শিক্ষার্থীকে ৫ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ নয় কেন অনুসন্ধানে ব্যর্থরা অন্য প্রতিষ্ঠানে কাজ করুন: দুদক চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে ফরমায়েশি সাজা দেয়া হয়েছে: রিজভী