artk
সোমবার, আগষ্ট ১৯, ২০১৯ ৪:৪৬   |  ৪,ভাদ্র ১৪২৬

লাইফস্টাইল ডেস্ক

বুধবার, জুন ১২, ২০১৯ ১২:১৬

বসে খেলে বেশি স্বাদ

media

সাম্প্রতিক এক গবেষণা বলছে, দাঁড়িয়ে খাওয়ার থেকে বসে খাওয়া অনেক বেশি কার্যকর। বসে নিয়ে তবে খাবার খেলে তা পাচনে সাহায্য করে। জার্নাল অব কনজিউমার রিসার্চে প্রকাশিত এক গবেষণাপত্রে বলা হয়েছে সেরকমটাই।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ফ্লোরিডা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক দীপায়ন বিশ্বাস তার গবেষণায় দেখিয়েছেন, মাধ্যাকর্ষণের ফলে রক্ত শরীরের নিচের দিকে নামতে শুরু করে। স্বাভাবিকভাবেই দেহের ওপরের অংশে রক্ত সরবরাহ করতে রীতিমত বেগ পেতে হয় হৃদযন্ত্রকে। ফলত, হৃদস্পন্দন বেড়ে যায়। তার ফলে হাইপো থ্যালামিক পিটুইটারি অ্যাড্রিনাল অতি সক্রিয় হয়ে ওঠায় স্ট্রেস হরমোন নিঃসরণের হার বেড়ে যায়। তার ফলে খাবারের স্বাদ, তাপমাত্রা, খাদ্য গ্রহণের পরিমাণও প্রভাবিত হয়।

শরীরে কোনোরকম অস্বস্তি হলে খাবার তুলনামূলকভাবে কম সুস্বাদু লাগে। ৩৫০ জন অংশগ্রহণকারীকে নিয়ে সমীক্ষা চালিয়ে এই সিদ্ধান্তে এসেছেন অধ্যাপক দীপায়ন বিশ্বাস। যারা দাঁড়িয়ে খাবার খেয়েছেন, তারা খাবারের স্বাদের ব্যাপারে তুলনামূলক কম রেটিং দিয়েছেন। আর যারা গদিযুক্ত চেয়ারে বসে খেয়েছেন, খাবারের স্বাদের ব্যাপারে তারা বেশি রেটিং দিয়েছেন।

মজার ব্যাপার, দাঁড়িয়ে খেলে খাবারের স্বাদ সঠিক পাওয়াই যায় না, বলছে গবেষণা। শহরের বেকারিতে তৈরি হওয়া লোভনীয় পুডিং-এর স্বাদও যেমন তারা পাননি, আবার একইভাবে পুডিংকে বিস্বাদ করার জন্য প্রচুর পরিমাণে লবণ দিয়ে তা খাওয়ানো হলে ফল হয়েছে একেবারে উল্টো। যারা বসে, আরাম করে খেলেন, তারা তেমন কোনও স্বাদের ফারাক বুঝতে পারলেন না।

অধ্যাপক বিশ্বাস বলেছেন, “অভিভাবকেরা যদি স্বাস্থ্যকর অথচ তেমন সুস্বাদু নয়, এমন খাবার তাদের সন্তানদের খাওয়াতে চাইলে দাঁড় করিয়ে খাওয়ান। তেঁতো ওষুধ গেলাতে হলেও বাচ্চাকে দাঁড় করিয়ে খাওয়ান।”

একই গবেষণায় স্পষ্টই ধরা পড়েছে, খাবারের তাপমাত্রার ফারাক বোধ তেমন প্রখর হয় না দাঁড়িয়ে থাকলে। যারা দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় খাচ্ছেন, তারা তুলনামূলকভাবে কম জল পান করেন। স্ট্রেসের ফলে খিদে কমে যায় এদের। কাজেই ওজন কমানোর প্রয়োজন হলে দারড়িয়ে খাওয়াই কাম্য, এতে কম খাবার খাওয়া হয়।

ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সফরে প্রত্যাশার কিছুই নেই: ফখরুল যে কারণে বেড়েছে আছাদুজ্জামান মিয়ার মেয়াদ মিন্নির মামলার বৃত্তান্ত দাখিলের নির্দেশ পরিবেশদূষণ প্রতিরোধে দুদকের বিশেষ উদ্যোগ এফআর টাওয়ারের জমির মালিক ফারুক গ্রেপ্তার হামলার পরেও মৌলিক সেবা থেকে বঞ্চিত করেছে- ভিপি নুর রাতে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী গুগল ম্যাপের সাহায্যে বাড়ি ফিরলো মেয়েটি নবম ওয়েজ বোর্ড নিয়ে আপিলের আদেশ মঙ্গলবার ধর্ষণের থেকে মুক্তি চাইতে গিয়ে ভাইয়ের কাছেও... রাজধানীতে ‘আল্লাহর সরকার’ ৪ জঙ্গি আটক ২০৫০-মধ্যে তলিয়ে যেতে পারে জাকার্তা মার্কিনকে চাপ অগ্রাহ্য করে জিব্রাল্টার ছাড়ল ইরানি ট্যাংকার কনস্টেবলের লক্ষ্যভ্রষ্ট গুলি এএসপির বাসায় স্বামীর লাশ দেখে মারা গেলেন স্ত্রীও পদ্মায় ফেরি-লঞ্চ সংর্ঘষ, অল্পের জন্য বেঁচে যান ৩ শতাধিক যাত্রী মেসিকে খুশি রাখতেই নেইমার ‘নাটক’ জেলা প্রশাসকের কাছে সততার পুরস্কার পেলেন অটোচালক সিরাজগঞ্জে কাপড় ব্যবসায়ীর স্ত্রী-কন্যা নিখোঁজ পেয়ারা পাড়তে গিয়ে স্কুলছাত্রীর করুণ মৃত্যু খুলনার সঙ্গে রেল যোগাযোগ বন্ধ ভারত পরমাণু যুদ্ধ বাধাতে পারে: ইমরান খান রাঙামাটিতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে সেনা সদস্য নিহত এক মাসেই তিনবার বাড়লো সোনার দাম ছাত্রদলের নেতেৃত্বে আসতে মনোনয়নপত্র কিনলেন ১০৮ জন ‘অদৃশ্য খুঁটির’ জোরে ৪ লাখ টাকার গাছ ৮০ হাজার টাকায় বিক্রি সিপিডির ভবনে এডিস মশার লার্ভা, ২০ হাজার টাকা জরিমানা শোক দিবসের আলোচনা সভা করবেন ড. কামাল চামড়া শিল্পে আপাতত সমস্যা নেই: শিল্পমন্ত্রী শোক দিবসের অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগের রক্তদান