artk
বৃহস্পতিবার, জুন ২৭, ২০১৯ ৫:৫৫   |  ১২,আষাঢ় ১৪২৬
মঙ্গলবার, জুন ৪, ২০১৯ ৯:৩৭

সিডনিতে দেশীয় সাংবাদিকতা: একটি সামাজিক আন্দোলন

নাইম আবদুল্লাহ
media
বিদেশি সাংবাদিকরা সবাই তাকিয়ে আছেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী তার উত্তর শেষ করে বুম আমার হাতে ফিরিয়ে দিয়ে বললেন, ম্যানি থাঙ্কস ইয়াং ম্যান।

সিডনিতে প্রায় দেড় থেকে দুই ডজনেরও বেশি প্রিন্ট ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল রয়েছে। আছে আইপি টিভি ও অনলাইন টিভি। অনেকে দেশের প্রিন্ট, অনলাইন নিউজ পোর্টাল ও স্যাটেলাইট টিভির সাথে কাজ করছেন। বিগত কয়েক বছর আগেও হাতে গোনা কয়েকটি প্রিন্ট পত্রিকা ছিল। তাতে স্থানীয় বাংলাদেশি কমিউনিটির নিউজও ছিল হাতে গোনা কয়েকটি মাত্র।

প্রায় আট বছর আগে আমি যখন কিছু লেখালেখির চেষ্টার পাসশাপাশি প্রিন্ট পত্রিকাগুলিতে প্রকাশ করার আগ্রহ নিয়ে পাঠাই তখন তার একটাও প্রকাশিত হয়নি। লজ্জিত ভঙ্গিতে পত্রিকার সম্পাদক মহাদোয়দের সাথে যোগাযোগ করে জানতে পারি যে তাদের সম্পাদকীয় কমিটি আমার লেখাগুলি প্রকাশের জন্য মনোনীত করেনি। আমি অন্যভাবে চেষ্টা করি। কিছু নিউজ ছবিসহ লিখে পাঠাই। কিন্তু আমার কোন নিউজও প্রকাশিত হয় না।

পরবর্তীতে দেশের কিছু নামকরা পত্রিকায় গল্প ও নিউজ পাঠানো শুরু করলাম। তারা সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিল। কীভাবে নিউজ এডিট করতে হয় কীভাবে গল্পের প্লট সাজাতে হয় হাতে কলমে শিখতে লাগলাম। তারপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। সম্প্রতি সিডনি থেকে প্রকাশিত পাঠক প্রিয় বেশ কয়েকটি প্রিন্ট পত্রিকা তাদের সম্পাদকীয় টিমে কাজ করার অফার দিয়েছে।

আসলে আমি বিষয়টি অন্যভাবে দেখছি। সিডনিতে এখনও দেশীয় সাংবাদিকতা শক্ত ভিতের ওপর দাঁড়াতে পারেনি। আমি বরাবরই এখানকার প্রায় অনেকগুলি প্রিন্ট ও অনলাইন নিউজ পোর্টালগুলিতে নিউজ ও গল্প নামে কিংবা বেনামে কন্ট্রিবিউট করে থাকি। এখন যদি কোন একটি নিদিষ্ট পত্রিকার সম্পাদকীয় টিমে কাজ করার জন্য চুক্তিবদ্ধ হই সেক্ষেত্রে অন্য পত্রিকাগুলিতে নিউজের ঘাড়তি দেখা দিতে পারে। যা হয়তো এখানকার সংবাদ মিডিয়াকে টিকিয়ে রাখার জন্য হুমকি হতে পারে।

এখন অনেক কিছুরই পরিবর্তন ঘটেছে। সামাজিক কিংবা রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠানগুলি তাদের কোন মেলা বা অনুষ্ঠান করার আগে অন্তত একটি সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করে। রান শিটের মাধ্যমে তাদের পরিকল্পনা শেয়ারের পাশাপাশি সাংবাদিকদের পরামর্শ অত্যন্ত গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করে। মেলায় সাংবাদিকদের জন্য ফ্রি এন্ট্রি, গাড়ি পার্কিংসহ মিডিয়া সেলের ব্যবস্থা থাকে।

কয়েক বছর আগে আমন্ত্রিত সাংবাদিক হয়ে একটি মেলায় গেছি। আয়োজকদের একজন গেটে জানালেন, আমার টিকেট অন্য একজনকে দিয়ে দিয়েছেন। আমি ধৈর্যের পরীক্ষা দিলাম। অনেকক্ষণ অপেক্ষার পর একটি দলিত মতিথ টিকেট আমাকে করুনা ভরে ধরিয়ে দিলেন। আমি সেই রাতেই অনলাইন ও টিভি নিউজ করলাম। পরদিন দুপুরে ওই আয়োজকের ফোন পেলাম। তিনি জানালেন, আপনি তো ভাই চিচিং ফাঁক করে দিয়েছেন। টিভিতে আমাদের মেলার নিউজ দেখে দেশ থেকে আমার ছোট বোন ফোন করেছে, হা হা হা।

তবে মন্দের ভালো এখন কোথায় গেলে পরিচয়পত্র দেখতে চায় না। আগে তো পরিচয়পত্র দেখাতে না পারলে এই মারে তো সেই মারে অবস্থা।

গত মাসে একটা অনুষ্ঠানে গিয়ে খাবারের জন্য লাইনে দাঁড়িয়েছি। সামনের একজন বয়স্কা ভাবি বলল, দেখেন তো ভাই ভুল করে খাবারের টিকেট বাসায় ফেলে এসেছি। এখন গাড়িও তো সাথে নেই যে বাসায় গিয়ে টিকেট নিয়ে আসবো। আমি আমার খাবারের টিকেট ভাবিকে ধরিয়ে দিলাম। তিনি প্রশ্ন করলেন, আপনার কি হবে? আমি তাকে অভয় দিলাম। ভাবি খাবারের প্যাকেট নিয়ে আমার জন্য দাঁড়িয়ে রইলো।

আপনার খাবারের টিকেট কই? খাবার দাতা প্রশ্ন করলেন। আপনাকে তো এইমাত্র টিকেট দিলাম। ওই তো আপনি নিয়ে ওখানটায় রাখলেন। তিনি চমকে আমার আপাদমস্তক দেখলেন। মনের সাথে যুদ্ধ করে তাছিল্যের ভঙ্গিতে আমাকে খাবারের প্যাকেট ধরিয়ে দিলেন। কিছুক্ষণ পর আরেকটা খাবারের টিকেট পেলাম। খাবার দাতা সেই ভদ্রলোকের কাছে গিয়ে টিকেটটা তার হাতে ধরিয়ে দিয়ে বললাম, ভাইজান টিকেট তো পেয়েছেন আবার দয়া করে একটু মিষ্টি করে হাসেন।

গত বছর প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠান কভার করতে কনভেনশন সেন্টারে গেছি। প্রথমদিন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অস্ট্রেলিয়ার সাবেক পররাষ্ট্র মন্ত্রী জুলি বিশপসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা আছেন। আমি পররাষ্ট্র মন্ত্রীকে প্রশ্ন করলাম, আমাদের প্রধানমন্ত্রী অ্যাওয়ার্ড নিতে আগামীকাল এই অনুষ্ঠানে আসছেন, তোমার অনুভূতি কি? প্রশ্ন করার পর মনে হোল, আমি ক্যামেরা ও বুম দুইটা একসাথে কিভাবে ধরবো? আমি পররাষ্ট্র মন্ত্রীর সাহায্য চাইলাম। তিনি নিজ হাতে বুম তুলে নিলেন এবং আমাকে ক্যামেরা স্ট্যান্ডে বসাতে সময় দিলেন। বিদেশি সাংবাদিকরা সবাই তাকিয়ে আছেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী তার উত্তর শেষ করে বুম আমার হাতে ফিরিয়ে দিয়ে বললেন, ম্যানি থাঙ্কস ইয়াং ম্যান। চলবে...।

লেখক:

সিডনি প্রবাসী লেখক ও সাংবাদিক

আইএসপিএবি নির্বাচন: অভিজ্ঞ আর নতুন প্যানেলের লড়াই কোহলির চেয়ে এগিয়ে মুশফিক ‘রিমান্ডে দিয়ে ম্যাজিস্ট্রেটেরা সংবিধান লঙ্ঘন করছেন’ বরগুনায় স্ত্রীর সামনে স্বামীকে কুপিয়ে হত্যা যে মর্মান্তিক ছবিটি কাঁপিয়ে দিল বিশ্ব প্রাণ আরএফএলের বর্জ্যে দূষিত খোয়াই নদী, দুদকের অভিযান পাকিস্তানকে ২৩৮ রানের লক্ষ্য দিল কিউইরা বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচেও আম্পায়ার আলিম দার! ঘুষ কেলেঙ্কারি: বাছিরের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা ভারতের মিনারভা ক্লাবকে হারিয়ে আবাহনীর ইতিহাস ‘কোনো মাদক ব্যবসায়ীকে ছাড় দেয়া হবে না’ ভারতকে হারানো অবম্ভব কিছু নয়: স্পিন কোচ সুনীল প্রশ্নফাঁস: ৭৭ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা ‘রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে না পারলে নিরাপত্তা শঙ্কা আছে’ নাসিমের বক্তব্যের নিন্দা ও প্রতিবাদ গণফোরামের সশস্ত্র বাধার মুখেও সাংবাদিক হতে চান যে মেয়েটি হাসপাতাল ছাড়লেন ব্রায়ান লারা আসামে নাগরিক তালিকা থেকে বাদ পড়ছেন আরও ১ লাখ এরশাদের শারীরিক অবস্থার অবনতি: জিএম কাদের পাকিস্তানের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নিউজিল্যান্ড শিঙাড়া বেচে বছরে আয় ১ কোটি রুপি! সুইমিং পুলে বুরকিনি পরে নিষেধাজ্ঞা ভাঙলেন নারীরা ‘পরোয়ানা থাকলে আদালতে আত্মসমর্পণ করতে পারবেন মিজান’ ‘ট্রেন দুর্ঘটনায় গাফিলতির প্রমাণ পাওয়া গেলে কঠোর ব্যবস্থা’ বিএনপি রেল সেক্টর ধ্বংস করে দিয়েছে: রেলমন্ত্রী ‘উন্নয়ন এখন বিয়ে বাড়ির এক দিনের আলোকসজ্জার মতো’ খালে ভাসমান অবস্থায় মিললো ছাত্রলীগ নেতার ক্ষতবিক্ষত লাশ ২৮ বছর পর সচল সগিরা মোর্শেদ হত্যা মামলা সী পার্লের আইপিও শেয়ার বিওতে জমা দুদকের অমার্জনীয় ভাষায় তলব চিঠি প্রত্যাহারসহ ৪ দফা দাবি