artk
সোমবার, আগষ্ট ১৯, ২০১৯ ৪:৩৭   |  ৪,ভাদ্র ১৪২৬

জেলা সংবাদদাতা

রোববার, মে ১৯, ২০১৯ ৭:২৬

বিড়ি শিল্প টিকিয়ে রাখতে যৌক্তিক আন্দোলনের সঙ্গে আছি: রসিক মেয়র মোস্তফা

media

রংপুর সিটি কর্পোরেশনের (রসিক) মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা বলেছেন, বিড়ি শিল্পের সঙ্গে লাখ লাখ শ্রমিক জড়িত। আমার রংপুরের লাখ লাখ চাষী, ব্যবসায়ী জড়িত। হঠাৎ করে এ শিল্প বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে না। বিড়ি শিল্প টিকিয়ে রাখতে যৌক্তিক আন্দোলনের সঙ্গে আমি একাত্মতা ঘোষণা করছি। 

শনিবার বেলা ১১টায় রংপুর পাবলিক লাইব্রেরি মাঠে বাংলাদেশ বিড়ি শ্রমিক ফেডারেশন আয়োজিত এক মহাসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় বিড়ি শ্রমিকের মজুরি বৃদ্ধির জন্য বিড়ি মালিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আমার শ্রমিক ভাইদের রুটি-রুজি এই বিড়ি শিল্প। যে কোন মূল্যে এই শিল্প রক্ষা করা হবে। আপনারা যারা এ শিল্পের মালিক তাদের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি শ্রমিক ভাই বোনদের মজুরি বাড়াবেন।

বাংলাদেশ বিড়ি শ্রমিক ফেডারেশনের কার্যকরী সভাপতি আমিন উদ্দীন বিএসসির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন রংপুর সিটি কর্পোরেশনের ৩০নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর আলম তোতা। 

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন, বাংলাদেশ বিড়ি শ্রমিক ফেডারেশনের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুল মতিন, যুগ্ম-সম্পাদক হারিক হোসেন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল হাসনাত লাভলু, প্রচার সম্পাদক শামিম ইসলাম, শ্রমিক নেতা আমিরুল ইসলাম, মোজাফফর হোসেন, রাশেদুল ইসলাম, জামিল আখতার, আফজাল হোসেন, গোলাপ হোসেন, হামিদার রহমান, জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ। সমাবেশে হাজার হাজার বিড়ি শ্রমিক উপস্থিত ছিলেন।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, বিড়ির ওপর ষড়যন্ত্রমূলকভাবে কর চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে। অতিরিক্ত করের চাপে এ শিল্প ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে। ফলে বেকার হয়ে পড়ছে লাখ লাখ বিড়ি শ্রমিক। কাজ না পেয়ে অনেকে অপরাধমূলক কর্মে লিপ্ত হয়ে পড়ছে। কর্ম হারিয়ে সংসার চালাতে হিমশিম খাচ্ছে বিড়ি শ্রমিকরা। সরকার ধূমপান কমিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আমরাও চাই ধূমপান বন্ধ হোক। কিন্তু ধূমপান বন্ধের নামে সিগারেটকে একচিটিয়া ব্যবসার সুযোগ করে দেওয়া হচ্ছে। ধূমপান বন্ধের নামে শুধু বিড়িকে বন্ধ করার পাঁয়তারা করা হচ্ছে। আমরা এ ষড়যন্ত্র কোনভাবে বাস্তবায়িত হতে দেব না। প্রয়োজনে রাজপথে কঠোর আন্দোলনে নামব। 

এ সময় বিড়িকে কুটির শিল্প ঘোষণাসহ ৭ দফা দাবি তোলেন বক্তারা। দাবিগুলো হলো বিড়ির ওপর অর্পিত সকল কর প্রত্যাহার করা, ভারতের ন্যায় এ শিল্পকে কুটির শিল্প ঘোষণা করা, বিদেশি সিগারেট বাংলাদেশে বন্ধ করা, বিড়ি শিল্পকে ধ্বংস করার পায়তারা বন্ধ করা, বিড়ি যেন কম মূল্যে পাওয়া যায় সে ব্যবস্থা বজায় রাখা। সমাবেশে বলা হয়, বাংলাদেশে সিগারেট যতদিন থাকবে, বিড়িশিল্প তত দিন থাকবে ও প্রতি বছর বাজেটে বিড়ি সিগারেটের কর বৈষম্য দূর করতে হবে।

মিন্নির মামলার বৃত্তান্ত দাখিলের নির্দেশ পরিবেশদূষণ প্রতিরোধে দুদকের বিশেষ উদ্যোগ এফআর টাওয়ারের জমির মালিক ফারুক গ্রেপ্তার হামলার পরেও মৌলিক সেবা থেকে বঞ্চিত করেছে- ভিপি নুর রাতে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী গুগল ম্যাপের সাহায্যে বাড়ি ফিরলো মেয়েটি নবম ওয়েজ বোর্ড নিয়ে আপিলের আদেশ মঙ্গলবার ধর্ষণের থেকে মুক্তি চাইতে গিয়ে ভাইয়ের কাছেও... রাজধানীতে ‘আল্লাহর সরকার’ ৪ জঙ্গি আটক ২০৫০-মধ্যে তলিয়ে যেতে পারে জাকার্তা মার্কিনকে চাপ অগ্রাহ্য করে জিব্রাল্টার ছাড়ল ইরানি ট্যাংকার কনস্টেবলের লক্ষ্যভ্রষ্ট গুলি এএসপির বাসায় স্বামীর লাশ দেখে মারা গেলেন স্ত্রীও পদ্মায় ফেরি-লঞ্চ সংর্ঘষ, অল্পের জন্য বেঁচে যান ৩ শতাধিক যাত্রী মেসিকে খুশি রাখতেই নেইমার ‘নাটক’ জেলা প্রশাসকের কাছে সততার পুরস্কার পেলেন অটোচালক সিরাজগঞ্জে কাপড় ব্যবসায়ীর স্ত্রী-কন্যা নিখোঁজ পেয়ারা পাড়তে গিয়ে স্কুলছাত্রীর করুণ মৃত্যু খুলনার সঙ্গে রেল যোগাযোগ বন্ধ ভারত পরমাণু যুদ্ধ বাধাতে পারে: ইমরান খান রাঙামাটিতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে সেনা সদস্য নিহত এক মাসেই তিনবার বাড়লো সোনার দাম ছাত্রদলের নেতেৃত্বে আসতে মনোনয়নপত্র কিনলেন ১০৮ জন ‘অদৃশ্য খুঁটির’ জোরে ৪ লাখ টাকার গাছ ৮০ হাজার টাকায় বিক্রি সিপিডির ভবনে এডিস মশার লার্ভা, ২০ হাজার টাকা জরিমানা শোক দিবসের আলোচনা সভা করবেন ড. কামাল চামড়া শিল্পে আপাতত সমস্যা নেই: শিল্পমন্ত্রী শোক দিবসের অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগের রক্তদান সোমবার রাতে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অতিরিক্ত ডিআইজি হলেন পুলিশের ২০ কর্মকর্তা