artk
রোববার, এপ্রিল ২৮, ২০১৯ ১২:৩৯

রাণীনগরে মাদুর বিছিয়ে পাঠদান!

আব্দুর রউফ রিপন, নওগাঁ সংবাদদাতা
media

তাই প্রচণ্ড গরমের সময় গাদাগাদি করে শিশুদের বসানোর কারণে পাঠদানের সময় মাঝে-মধ্যে ছাত্র-ছাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়ে।

নওগাঁর রাণীনগর উপজেলার মনোহরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় বর্তমানে নানা সমস্যায় জর্জরিত। প্রয়োজনীয় অবকাঠামো, শ্রেণিকক্ষের সংকট, বৈদ্যুতিক ফ্যান না থাকাসহ নানা সমস্যায় জর্জরিত হয়ে পাঠদান ব্যবস্থা দিনদিন মুখ থুবড়ে পড়েছে।

বিদ্যালয়ে শ্রেণিকক্ষ সংকটের কারণে বাধ্য হয়ে বারান্দায় মাদুর বিছিয়ে সারিবদ্ধভাবে বসিয়ে পাঠদান কার্যক্রম চালানো হচ্ছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বারবার জানানোর পরও এখনো কোন সমাধান মিলেনি। 

জানা গেছে, উপজেলার একডালা ইউনিয়নের মনোহরপুর গ্রামে অবস্থিত মনোহরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। এটি ১৯৯১ সালে স্থানীয় কিছু শিক্ষানুরাগী তাদের নিজস্ব তহবিল থেকে ৩৩ শতাংশ জমি ক্রয় করে স্থানীয় ছেলে-মেয়েদের শিক্ষা প্রদানের লক্ষ্যে স্থাপন করা হয়। ১৯৯৫ সালের ১৬ জানুয়ারিতে বিদ্যালয়টি রেজিস্টার্ডভুক্ত হলে ২০০২ সালে তিন কক্ষের ভবন নির্মাণের পর থেকে আজ পর্যন্ত সরকারি বরাদ্দে আর কোন নতুন ভবন নির্মাণ না হওয়ায় শ্রেণিকক্ষ সংকটের কারণে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ কোমলমতি শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয়ের বারান্দায় মাদুর বিছিয়ে পাঠদান কার্যক্রম চালিয়ে আসছে।

তিন কক্ষ বিশিষ্ট পুরাতন ভবনে প্রতিদিন বিদ্যালয়ের প্রায় ১০২ জন শিক্ষার্থী পাঠগ্রহণ করে। প্রতি কক্ষে চারটি করে ফ্যান থাকার কথা থাকলেও রয়েছে দু’টি করে। তাই প্রচণ্ড গরমের সময় গাদাগাদি করে শিশুদের বসানোর কারণে পাঠদানের সময় মাঝে-মধ্যে ছাত্র-ছাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়ে।



অভিভাবক এনামুল হক ওবায়দুলসহ বেশ কয়েকজন বলেন, আমাদের এই বিদ্যালয়টি অনেক সমস্যায় জর্জরিত। পুরাতন ভবনের কারণে আমরা সন্তানদের স্কুলে পাঠানোর পর আতংকেই থাকি। শিক্ষার্থীরা অনেক কষ্ট করে বিদ্যালয়ে এসে শিক্ষা গ্রহণ করে। বিদ্যালয়টির উপযুক্ত পরিমাণ জায়গা থাকলেও সরকারি বরাদ্দে নতুন ভবন না পাওয়ায় শ্রেণিকক্ষ সংকটে রয়েছে বিদ্যালয়টি। তাই সরকার যদি একটি আধুনিক মানসম্মত নতুন ভবন নির্মাণ করে দিতো তাহলে বারান্দায় মাদুরে বসে আমাদের সন্তানদের আর শিক্ষাগ্রহণ করতে হতো না।


প্রধান শিক্ষক ফজলার রহমান বলেন, আমরা অনেক কষ্ট করে বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের পাঠদান করায়। এলাকার অনেক মানুষ বিদ্যালয়ের এমন অবস্থা দেখে তাদের সন্তানকে বিদ্যালয়ে ভর্তি করাতে চায় না। শ্রেণিকক্ষ সংকট, বেঞ্চের সংকট, জরুরি কাগজপত্র রাখার জন্য নেই পর্যাপ্ত পরিমাণ আসবাবপত্র। এই সব সমস্যার কারণে মুখ থুবড়ে পড়েছে পাঠদানের পরিবেশ। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলছে স্থানীয়রা।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এমএ মাহবুবুর রহমান বলেন, ওই বিদ্যালয়ে অবকাঠমোগত কিছু সমস্যা রয়েছে। শিক্ষার মান উন্নয়নের জন্য বিদ্যালয়ের যাবতীয় সমস্যা চিহ্নিত করে ইতোমধ্যেই সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বরাবর জানানো হয়েছে। আশা করছি খুব শিগগিরই সমস্যার সমাধানে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।



খেজুরের যত উপকারিতা ঢাকাবাসীর জীবনমান উন্নয়নে বিএনপির কোনো পরিকল্পনা নেই: তাপস জনতাই আমাদের আগামী সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী: তাবিথ করোনা ভাইরাস: বেনাপোল ইমিগ্রেশনে কঠোর নজরদারী ফরিদপুরে ৩৫ কেজি গাঁজাসহ নারী আটক ২০২২ সালে বিদেশে স্মার্টফোন রপ্তানি করবে সিম্ফনি বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে আবারও চ্যাম্পিয়ন ফিলিস্তিন ঢাকা-জামালপুর রুটে চালু হচ্ছে জামালপুর এক্সপ্রেস ৯ উইকেটে লজ্জার হার টাইগারদের তিস্তা চুক্তির প্রস্তাব তৈরি করা হচ্ছে: পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নম্বর গণনায় ভুল করায় যশোর শিক্ষাবোর্ডের ২৯০ পরীক্ষককে শাস্তি নব্য জেএমবি সন্দেহে দুই খুবি শিক্ষার্থী আটক ২০ টাকার জন্য চানাচুর বিক্রেতা খুন বিশ্বজুড়ে প্রায় ২৬ কোটি শিশু শিক্ষাবঞ্চিত: জাতিসংঘ চাঁদপুরে ১২শ কেজি জাটকা জব্দ ব্যাটিং ব্যর্থতায় ১৩৬ রানেই থেমে গেল বাংলাদেশ মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ছোড়া গোলায় ২ রোহিঙ্গা নারী নিহত গরু আনতে গিয়ে গুলিতে নিহত হলে দায় নেবে না সরকার: খাদ্যমন্ত্রী জুলাই মাসে মঙ্গলে অনুসন্ধান শুরু করার ঘোষণা দিয়েছে চীন ট্যাক্সেশন অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি রেজাউল মহাসচিব কায়ছার কন্যা সন্তানের বাবা হলেন আন্দ্রে রাসেল পাকিস্তানের বিপক্ষে ২য় ম্যাচে ব্যাটিংয়ে নেমেই উইকেট হারালো বাংলাদেশ নৌকার কোনো ব্যাক গিয়ার নেই: আতিক বৃদ্ধার কোলে নবজাতক রেখে পালালেন নারী ৯ তলা ভবন থেকে নিচে পড়েই হাঁটা দিলেন নারী বরগুনায় বাসচাপায় মা-ছেলেসহ নিহত ৩ ডিএসইর পিই রেশিও বেড়েছে মূলধন বেড়েছে ২৫ হাজার ৬৯৯ কোটি টাকা ইঁদুর শূকরের মাংসেই বিপদ মধুসূদন দত্তের ১৯৬তম জন্মবার্ষিকী শনিবার