artk
মঙ্গলবার, মে ২১, ২০১৯ ১০:২৬   |  ৭,জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

নিউজ ডেস্ক

বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ১৮, ২০১৯ ৮:৫৫

রোমে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালিত

media

ইতালির রোমে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালন করেছে বাংলাদেশ দূতাবাস। এ উপলক্ষে দূতাবাস কার্যালয়ে একটি আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। 

বুধবার বিকাল ৫টায় দূতাবাসের হল রুমে আয়োজিত এই আলোচনা সভায় রোমে বসবাসরত বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ নানা স্তরের প্রবাসী বাংলাদেশি এবং দূতাবাসের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী অংশগ্রহণ করেন। দূতাবাসের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।

পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াতের মাধ্যমে আলোচনা পর্ব শুরু হয়। এরপর দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রীর বাণীসমূহ পাঠ করেন দূতাবাসের প্রথম সচিব শেখ ছালেহ আহাম্মদ এবং প্রথম সচিব রাজীব ত্রিপুরা। 

আলোচনা সভায় বক্তারা মুক্তিযুদ্ধে এবং স্বাধীন দেশ হিসেবে বিশ্বের মানচিত্রে বাংলাদেশের অভ্যুদয়ে মুজিবনগর সরকারের ভূমিকা গভীর শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করেন। 

বক্তব্য দিচ্ছেন রাষ্ট্রদূত আবদুস সোবহান সিকদার

রাষ্ট্রদূত আবদুস সোবহান সিকদার তার বক্তব্যের শুরুতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন এবং শ্রদ্ধা জানান স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ে জাতীয় চার নেতার অবদানকে। তিনি সশ্রদ্ধ চিত্তে স্মরণ করেন মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের ও সম্ভ্রমহারা মা-বোনদের । 

মুক্তিযুদ্ধে মুজিবনগর সরকারের ভূমিকা সম্পর্কে রাষ্ট্রদূত বলেন, “মুজিবনগর সরকার গঠন বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জনকে ত্বরান্বিত করতে এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্বপক্ষে বিশ্ব জনমতকে সংগঠিত করতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে।”

মুজিবনগর সরকারের আনুগত্য স্বীকার করে তৎকালীন পাকিস্তান ফরেন সার্ভিসে কর্মরত অনেক বাঙালি কূটনীতিক বিশ্ব জনমত গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন বলেও রাষ্ট্রদূত উল্লেখ করেন। 

রাষ্ট্রদূত আরো বলেন, “বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাঙালি রাজনৈতিক স্বাধীনতা লাভ করেছে। কিন্তু অর্থনৈতিক মুক্তি অর্জনের জন্য তিনি যে স্বপ্ন দেখতেন তা অতি অল্প সময়ে বাস্তবায়ন করতে পারেননি। জাতির পিতার এ স্বপ্ন বাস্তবায়নে তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অত্যন্ত দূরদর্শিতা ও দক্ষতার সাথে কাজ করে যাচ্ছেন।”

ভূমধ্যসাগরে বেঁচে যাওয়া ১৫ বাংলাদেশি দেশে ফিরেছেন পাকিস্তানিদের ভিসা দেওয়া বন্ধ করে দিল বাংলাদেশ দীর্ঘায়ু লাভে জাপানি ডাক্তারের ৬ পরামর্শ সিডনিতে বঙ্গবন্ধুর আবক্ষ ভাস্কর্যে পুষ্পস্তবক অর্পণ ইফতারে যে কারণে ইসবগুলের ভুষির শরবত খাবেন শিগগিরই বাড়ি ফিরতে পারবেন এটিএম শামসুজ্জামান যেসব কারণে হুয়াওয়েকে নিয়ে পশ্চিমা বিশ্ব উদ্বিগ্ন ময়মনসিংহে নদী থেকে ২ শিশুর ভাসমান লাশ উদ্ধার রাজধানীতে দায়িত্ব পালনরত ট্রাফিক পুলিশের মৃত্যু নির্ধারিত সময়ের ২৪ দিন পর ১০৪০ টাকা দরে ধান কেনা শুরু খালেদা জিয়াকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে জেলে রাখা হয়েছে: খ. মাহবুব উৎপাদিত পণ্যে আগাম তারিখ দেয়ায় প্রিন্স ফুডকে ১২ লাখ টাকা জরিমানা নাটোরে রেলের দুই হাজার লিটার তেলসহ গ্রেপ্তার ৪ পাকিস্তানিদের ভিসা দেয়া বন্ধ করে দিল বাংলাদেশ নভেম্বরে ঢাকায় শুরু হচ্ছে ইমার্জিং এশিয়া কাপ সেতু নির্মাণে বেঁচে যাওয়া ৭৩৮ কোটি টাকা ফেরত দিলো জাপানি কোম্পানি কৃষকের কাছ থেকে ধান কেনার সুপারিশ সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কী বলে ডাকবেন জানতে চেয়ে আবেদন রাজউকের নতুন চেয়ারম্যান সুলতান আহমেদ নকল বিদেশি কসমেটিক্স বিক্রি: আলমাসসহ ৬ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা রাজনীতিবিদদের সম্মানে ‘৩০ টাকার’ ইফতার বিএনপির স্বপ্নের বিশ্বকাপ মিশনে ইংল্যান্ডে অনুশীলন শুরু টাইগারদের ঢাকা ব্যাংকের ২৪তম এজিএম অনুষ্ঠিত বিএনপির নেতৃত্ব খালেদা-তারেকের হাতে নেই: তথ্যমন্ত্রী মিলার বিরুদ্ধে মামলা করলেন সানজারি রূপপুরের বালিশকাণ্ড: গণপূর্তের তদন্ত রিপোর্ট চান হাইকোর্ট যা বললেন রুমিন ফারহানা মনোনয়নপত্র জমা দিলেন রুমিন ফারহানা অর্থপাচার রোধে সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে জঙ্গিদের কোনো ধর্ম, দেশ ও সীমানা নেই: প্রধানমন্ত্রী