artk
বৃহস্পতিবার, নভেম্বার ২১, ২০১৯ ১:৫৮   |  ৭,অগ্রহায়ণ ১৪২৬

তরিকুল ইসলাম মিঠু, যশোর প্রতিনিধি

বুধবার, এপ্রিল ১৭, ২০১৯ ৯:০৯

বেনাপোলে অগ্নি নির্বাপন ব্যবস্থা ছাড়াই গড়ে উঠছে শতশত মার্কেট ও বহুতল ভবন

media

দেশের প্রধান স্থলবন্দর বেনাপোলে অগ্নি নির্বাপন সংস্থার সক্রিয়তার যথেষ্ট অভাব রয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের অনুমোদন ছাড়াই এখানে গড়ে উঠেছে বহুতল বাণিজ্যিক ভবনসহ বিলাসবহুল শপিংমল। বিলাসবহুল মার্কেটগুলোতে রঙচঙের কোনো কমতি না থাকলেও অগ্নি নির্বাপনের সুব্যবস্থার অভাব রয়েছে। ফলে যে কোনো সময়ে এসব বহুতল ভবন ও মার্কেটে আগুন লেগে বড় ধরনের ক্ষতি হতে পারে। 

মার্কেটগুলোর মধ্যে রয়েছে লাল মিয়া সুপার মার্কেট, হিরা সুপার মার্কেট, ডব্লু মাকের্ট, মিলন মার্কেট, বিশ্বাস মার্কেট, স্কুল মার্কেট, মাদ্রাসা মার্কেট, হাজী মার্কেটসহ অর্ধশতাধিক মার্কেট। 

এছাড়া বন্দরে সাত কিলোমিটার এলাকা জুড়ে রয়েছে চার শতাধিক বহুতল ভবন। যেগুলোর কোনোটিতেই নেই কোনো অগ্নি নির্বাপন ব্যবস্থা। এসব ভবনের মধ্যে রয়েছে বেনাপোল কাস্টমস হাউসের সামনে অহি-সহি ভবন, ওয়াজেদ সাহেবের বিল্ডিং আলোম হাজীর হিমালয় ভবন, গাজী ভবন, গফুর ম্যানসনসহ বন্দরের চার শতাধিক ভবনে কোনো অগ্নি নির্বাপন যন্ত্র নেই। ফলে এসব মার্কেট ও বাণিজ্যিক ভবনগুলোতে আগুন ধরলে জানমালের অপূরণীয় ক্ষতি হতে পারে।  

ফারুক সুপার মার্কেটের কাপড়ের ব্যবসায়ী সাইদুর রহমান, বাবুসহ কয়েকজন ব্যবসায়ী জানান, বেনাপোলের মার্কেট মালিকরা প্রতিমাসে ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে মোটা অংকের ভাড়া নিলেও ব্যবসায়ীদের কোনো সুযোগ-সুবিধা দেখে না। এখানে অগ্নি নির্বাপনের ব্যবস্থা নেই। বেনাপোল বাজার থেকে দুই কিলোমিটার দূরে একটি ফায়ার সার্ভিস স্টেশন আছে। কিন্তু মার্কেটেগুলোতে আগুন লাগলে ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি আসতে আসতে জানমাল পুড়ে সব শেষ হয়ে যাবে। 

লালমিয়া সুপার মার্কেটের কাপড়ের ব্যবসায়ী খোকন বলেন, “এখানকার ব্যবসায়ীদের কোনো ইউনিটি না থাকায় মার্কেট মালিকরা কোনো রকম মার্কেট করেই ভাড়া তুলে খাওয়া শুরু করে। ব্যবসায়ীরা এসব বিষয় নিয়ে কথা বললে মালিক কর্তৃপক্ষ কারো কথায় কর্ণপাত করে না। ব্যবসায়ীরা পুড়ে মরুক আর যাই হোক না কেন সে বিষয়ে কারো কোনো দৃষ্টি নেই।”

তাছাড়া দেশের প্রধান এ স্থলবন্দরে ভারত থেকে আমদানিকৃত বিপুল পরিমাণের মালামাল বন্দরের সরকারি গোডাউনের শেডে নিয়ে সংরক্ষণ করা হয়। বিশেষ করে রাসায়নিক দ্রব্য ও দাহ্য পদার্থ এসব শেডে রাখা হয়। বিগত বছরগুলোতে এসব রাসয়নিক দ্রব্য ও দাহ্য পদার্থে  আগুন ধরে বড় ধরনের ক্ষয়-ক্ষতি হয়। এখনও কর্তৃপক্ষের চরম উদাসীনতার কারণে এখনো বন্দর ব্যবহারকারী ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক কাটেনি। এমনকি বেনাপোল ফায়ার সার্ভিসের কার্যক্রমও মানুষের নজরে আসনি। 

বেনাপোল ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের কর্মকর্তা তৌহিদুর রহমানের কাছে বন্দরের হাইরাজিং ভবন ও বিপণি বিতানগুলোতে আগুন নির্বাপনের কোনো ব্যবস্থা আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি নিউজবাংলাদেশকে বলেন, “বেনাপোল বন্দর দেশীয় প্রধান স্থলবন্দর হওয়ায় প্রতিনিয়ত এখানে নতুন নতুন এপার্টমেন্ট হাইরাইজিং বিল্ডিং ও বহুতল শপিং মল হচ্ছে। অথচ এখানে অগ্নি নির্বাপনের কোনো সুব্যবস্থা নেই। মার্কেটগুলোতে আগুন লাগলে ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি গিয়ে পানির উৎস খুঁজে বের করতে করতে সব কিছু পুড়ে ছাই হয়ে যায়। তাই এখানকার মার্কেট মালিক ও হাইরাইজিং বিল্ডিং মালিকদের  অগ্নি নির্বাপনের ব্যবস্থা করার জন্য পরামর্শ দেয়া হয়েছে। তাছাড়া নতুন করে যারা মার্কেট ও বহুতল ভবন তৈরি করছে তাদের বিল্ডিং কোড ও অগ্নি নির্বাপন ব্যবস্থা বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে।”

‘চাল নেই লবণ নেই বলে অপপ্রচার চালাচ্ছে একটি গোষ্ঠী’ বুরকিনা ফাসোতে পুলিশের অভিযানে ১৮ জিহাদি নিহত জীবনযাত্রায় বদল এনে নিয়ন্ত্রণে রাখুন রক্তচাপ সশস্ত্র বাহিনী দিবসে শিখা অনির্বাণে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা তিনদিনব্যাপী ‘শালুক’-এর নিবিড় সম্মিলন শুরু শুক্রবার ভারতের সাথে ১০০ কোটি ডলারের নৌ-অস্ত্র চুক্তি যুক্তরাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর আশ্বাসে কর্মবিরতি প্রত্যাহার মালিক-শ্রমিকদের চেকপোস্টে ডাকাতের হামলা, ৪ পুলিশ আহত মেলায় রাজস্ব আদায় ২৬১৩ কোটি টাকা রাজধানী সুপার মার্কেটের আগুন নিয়ন্ত্রণে ময়মনসিংহে এক বাড়িতেই ৭ হাজার কেজি লবণ ট্রান্সফাররেবল এলসির সঠিক ব্যবহারে বায়িং হাউজের দক্ষতা বাড়ানো জরুরী জনগণকে শাস্তি দেবেন না প্লিজ: কাদের কাউন্সিলর সাঈদের বিরুদ্ধে মামলা সৈয়দ নূরুল আলমের ‘আমার জীবন ও উন্নয়নের ৪৪ বছর’ টিকাটুলিতে রাজধানী সুপার মার্কেটে ভয়াবহ আগুন শিগগিরই ২২১ বন্ড লেনদেনযোগ্য হবে দেশের মানুষ এখন খোলা জেলে বন্দী: মির্জা আব্বাস ধর্মঘটের প্রভাব চালের বাজারে পড়বে না: খাদ্যমন্ত্রী বায়ুদূষণে শীর্ষে ঢাকা, ২৫ নভেম্বর আন্তমন্ত্রণালয় সভা চট্টগ্রামে পাহাড়ে অস্ত্র তৈরির কারখানা: ২০ অস্ত্রসহ ‘ডাকাত সর্দার’ গ্রেপ্তার ঢাকা-চট্টগ্রাম-সিলেট মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক বাস নেই, ভোগান্তি মাথায় নিয়ে হাঁটছে মানুষ ভুঁড়িওয়ালা পুরুষের কদর বেশি কেন নারীর কাছে ? সায়েদাবাদ থেকে দূরপাল্লার বাস বন্ধ শিক্ষকের থাপ্পড়ে কান ফাটলো ছাত্রের রাজধানীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত আমার বিরুদ্ধে অনুসন্ধান চালালে অনেক এমপি-মন্ত্রীর যাবজ্জীবন হবে: নাজমুল আইনের লাগাম ছেড়ার ধর্মঘটে সারাদেশে অচলাবস্থা দিনাজপুরে ট্রাকচাপায় ২ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত