artk
মঙ্গলবার, অক্টোবার ২২, ২০১৯ ১০:৪৬   |  ৭,কার্তিক ১৪২৬
রোববার, এপ্রিল ৭, ২০১৯ ৬:৪৪

টবেই ফলাতে পারেন সুস্বাদু ‘রক মেলন’

ফিচার ডেস্ক
media

ফলন: এই গাছের সঠিক যত্ন এবং ফলের পরাগায়ণ ভালোমত হলে এক একটি গাছ থেকে ৮ থেকে ১২ টি পর্যন্ত ফল পেতে পারেন। পরাগায়নের ক্ষেত্রে প্রয়োজনে হাতে পরাগায়ণ করতে পারেন। ফলের আকৃতি গোলাকার হবে এবং এক একটি ফলের ওজন ৫০০ থেকে ৮০০ গ্রাম অনেক ক্ষেত্রে এর চেয়ে বেশি ওজন হতে পারে। পরিপক্কভাবে ফল পাকার ২ থেকে ৩ দিন আগেই ফলটি গাছ থেকে কেটে সংরক্ষণ করতে পারেন এবং বাজারজাত করতে পারেন।

রক মেলন, সুইট মেলন, মাস্ক মেলন, হানিডিউ মেলন, গালিয়া মেলন ও পার্সিয়ান মেলন নামে পরিচিত এই সুস্বাদু ফল। আরবিতে অনেক দেশে সাম্মামও বলে থাকে এটিকে। এই ফল অনেক প্রজাতির হয়ে থাকে, রং ও আকৃতি যেমনই হোক ভিতরটা একদম আমাদের দেশি বাঙ্গির মতো এবং মিষ্টি-সুস্বাদু।

বীজ বপনের সময়: রক মেলনের বীজ বপন করতে হয় গরমের সময়। এছাড়া, শীত আসার পূর্বে সেপ্টেম্বর থেকে নভেম্বর এবং মার্চ থেকে জুন মাসেও করা যায়। তবে বিশেষভাবে লক্ষ রাখতে হবে বীজ থেকে চারা হবার পর যাতে অতি বৃষ্টির পানির মধ্যে এই গাছ না পড়ে।

মাটি: যে কোন ভালো মানের মাটি যেমন বেলে মাটি, বেলে দোআশ মাটি। তবে মাটি অবশ্যই ঝুরঝুরে হতে হবে যাতে তলদেশ পর্যন্ত সেঁচের ব্যাবস্থা হয়। মাটির উপরের অংশে কোনভাবেই পানি জমতে দেয়া যাবে না।

বীজ বপন: টবে লাগানোর ক্ষেত্রে ১০ থেকে ১২ ইঞ্চি টবে বা এমন মাপের যে কোন পাত্রে মাটির আধা ইঞ্চি নিচে দুটি বীজ বপন করতে হবে। মাটি পরিমাণে কম হলেও এর মধ্যে যথেষ্ট পরিমান জৈবসার এবং জৈব উপাদান বিদ্যমান থাকতে হবে। পাত্রের মাটি সবসময় ঝুরঝুরে রাখতে হবে এবং ভালো হবে টব বা পাত্রের মাটির উপরের অংশ কোন প্লাষ্টিক কাগজ বা ভালো গেঞ্জির কাপড় দিয়ে ঢেকে রাখলে।

একটি টবে দুই থেকে তিনটি বীজ বপন করতে হবে। বীজ অথবা চারা রোপন শেষে হালকা সেঁচ দিতে হবে। টবে যাতে অতিরিক্ত পানি না জমে। মাটির উপরের অংশ অবশ্যই মালচিং করতে হবে। প্লাস্টিক কাগজ বা মোটা কাগজ অথবা মোটা গেঞ্জির কাপড় দিয়ে ও সিমেন্টের ব্যাগ দিয়ে এই মালচিং করতে পারেন। 

৫ থেকে ১০ দিনের মধ্যেই অনেক সময় তাপমাত্রা কম হলে ১২ থেকে ১৫ দিন সময় লাগতে পারে। বীজ অঙ্কুরোদগম হওয়ার পর থেকে ৭০ থেকে ৮০ দিনে ফুল আসে এবং ১০০ দিনের মধ্যে পরিপূর্ণ ফল পাওয়া যায়। 

চারা অঙ্কুরোদগম হওয়ার পর থেকে ২ থেকে ৩ দিন পর পর হাল্কা সেঁচ দিতে হবে এবং কোন অবস্থাতে সেঁচ এমনভাবে দেওয়া যাবে না যে পাত্রে অথবা চারার নিচে পানি জমে থাকে। ফুল আসার সাথে সাথে সেঁচ প্রতি একদিন পর পর দিতে পারলে ভাল। ২ থেকে ৩ দিন পর পর দিলেও চলবে।

যেহেতু এটি একটি লতা জাতীয় গাছ এবং এর লতা দ্রুত বৃ্দ্ধি পায় তাই এর লতা ধারনের জন্য অতিরিক্ত ব্যবস্থা নিতে হবে। দুইভাবে এর ব্যবস্থা নেয়া যেতে পারে। মাচা পদ্ধতি বা মাটিতে খড়কুটো বিছিয়ে দিয়ে।

পরিচর্যা: এই ফলে হলুদ মাছি পোকা এসে গাছের পাতা ফুটো করে দেয়, পাতা এবং কান্ডের রস টেনে গাছের ক্ষতি করে এবং ফল আসার পরে ফল ছিদ্রকারী পোকার আক্রমণ হয়। তাতে ফল পঁচা রোগের সৃষ্টি হয় এবং ফল পঁচে যায়, সমাধান হলো- মাটি এবং গাছ প্রতিদিন লক্ষ্য রাখতে হবে। মাছি যাতে না আসে তার জন্য প্রায়শ জৈব বালাই নাশক নিতে হবে। ফল যাতে ছিদ্র না করতে পারে তার জন্য ফল আসার সাথে সাথেই আপনার গাছের ফলটি পলি ব্যাগ দিয়ে ঢেকে দিতে পারেন।

ফলন: এই গাছের সঠিক যত্ন এবং ফলের পরাগায়ণ ভালোমত হলে এক একটি গাছ থেকে ৮ থেকে ১২ টি পর্যন্ত ফল পেতে পারেন। পরাগায়নের ক্ষেত্রে প্রয়োজনে হাতে পরাগায়ণ করতে পারেন। ফলের আকৃতি গোলাকার হবে এবং এক একটি ফলের ওজন ৫০০ থেকে ৮০০ গ্রাম অনেক ক্ষেত্রে এর চেয়ে বেশি ওজন হতে পারে। পরিপক্কভাবে ফল পাকার ২ থেকে ৩ দিন আগেই ফলটি গাছ থেকে কেটে সংরক্ষণ করতে পারেন এবং বাজারজাত করতে পারেন।

রণবীর-আলিয়ার বিয়ের কার্ড নিয়ে হুলস্থুল! ছাত্রী হোস্টেলে ছাত্রলীগ নেতাদের যাতায়াত, লাঞ্ছিত ছাত্রীরা বাংলাদেশে ঢুকে মাছ ধরায় ১৪ ভারতীয় জেলে আটক ভোলার সেই বিপ্লবের ভগ্নিপতিকে তুলে নেয়ার অভিযোগ পদত্যাগ করবেন না দুর্জয়-সুজন জাপান সম্রাটের অভিষেকে যোগ দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি বাংলাদেশকেও নিষিদ্ধ করতে চেয়েছিল আইসিসি: পাপন আন্তর্জাতিক সংগঠন ফিকার সমর্থন পাচ্ছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা সীতাকুণ্ডে যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে এসআই আটক ১৪ দলের বৈঠকে যাননি মেনন ঘুষ নেয়ার সময় রাজস্ব কর্মকর্তা গ্রেফতার ‘ভারত সফরে যাবে বাংলাদেশ’ ‘ষড়যন্ত্রকারী’দের খুঁজে বের করার সময় চান পাপন ক্রিকেটারদের ১১ দাবি নিয়ে মাশরাফি যা বললেন আবারও ১৪ ভারতীয় জেলে আটক কানাডায় আবারো প্রধানমন্ত্রীর চেয়ারে জাস্টিন ট্রুডো ৮১ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে ঢাকায় নদীর তীরে ফ্ল্যাট কিনতে সাবধান ক্রিকেটাররা খেললে খেলবে, না খেললে নাই: পাপন দুদকের কেউ কাউকে হয়রানি করলে ব্যবস্থা: ইকবাল মাহমুদ নতুন এমপিওভুক্ত হচ্ছে ২৬২৭ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান: শিক্ষামন্ত্রী শিক্ষক বাবাকে রড দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে ৯৯৯–এ ফোন! ইসরাইলে সরকার গঠনে ব্যর্থ নেতানিয়াহু ভোলার ঘটনায় উস্কানিমূলক পোস্ট, কুমিল্লায় আটক ২ সবাই জেনেশুনে অংশ নিয়েছে বলে মনে হয় না: পাপন ২০২০ সাল পর্যন্ত ল্যান্ডফোন সংযোগ ফ্রি: মোস্তাফা জব্বার পদ্মা সেতুতে বসলো ১৫তম স্প্যান দ্বিতীয় দিনের মতো অনশনে শিক্ষকরা আবারো বাড়তে পারে পেঁয়াজের দাম ক্রিকেটারদের ধর্মঘট ষড়যন্ত্রের অংশ: বিসিবি সভাপতি