artk
রোববার, এপ্রিল ৭, ২০১৯ ৮:৫৭

সিডনির ‘বঙ্গবন্ধু পরিষদ’ আয়োজিত বৈশাখী মেলা অনুষ্ঠিত

নাইম আবদুল্লাহ, সিডনি সংবাদদাতা
media

এছাড়াও মেলায় উপস্থিত ছিলেন প্রবাসী বাংলাদেশি রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক নেতারা, সিডনি থেকে প্রকাশিত অনলাইন ও পেপার পত্রিকার সম্পাদক ও টিভি সাংবাদিক, লেখক, সাহিত্যিক, কবি ও সুশীল সমাজসহ সর্বস্তরের প্রবাসী বাংলাদেশিরা

পহেলা বৈশাখ বাঙালি জাতির প্রাণের উৎসব। এদিন থেকেই শুরু হয় বাংলা সনের গণনা। বাঙালি তার নিজস্ব জাতিসত্ত্বার অস্তিত্বকে টিকিয়ে রাখার জন্য যতগুলো উৎসব পালন করে তার মধ্যে বৈশাখবরণ অন্যতম। বৈশাখ বরণের সঙ্গে যে অনুষ্ঠানটি অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িত তা হল বাঙলির ঐতিহ্যবাহী বৈশাখী মেলা।

বৈশাখী মেলা আমাদের মনে করিয়ে দেয় যাত্রা, পুতুল নাচ, নাগরদোলা, জারি-সারি, গম্ভীরা কীর্তন, পালার আসর, ষাঁড়ের লড়াই, মোরগ লড়াই, লাঠি ও হাডুডু খেলার কথা। সেইসঙ্গে গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর কৃষ্টি ও সংস্কৃতির নিবিড় যোগসূত্র।

গত ৬ এপ্রিল (শনিবার) বঙ্গবন্ধু পরিষদ সিডনি, অস্ট্রেলিয়ার উদ্যোগে ফেয়ারফিল্ড শো গ্রাউন্ডে অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী বাঙালি কমিউনিটির প্রাণের মেলা ঐতিহ্যবাহী ‘বৈশাখী মেলা’ অনুষ্ঠিত হয়। সিডনির এই বৈশাখী মেলা অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী বাঙালি ও অন্যান্য ভাষা-ভাষীদের এক মহামিলন মেলা। গত ১৮ বছর ধরে বঙ্গবন্ধু পরিষদ সিডনি অস্ট্রেলিয়া এই বৈশাখী মেলার আয়োজন করে আসছে।

বাংলা নববর্ষকে সামনে রেখে এবারের মেলাপ্রাঙ্গণ দর্শক-অতিথিতে ছিল কানায় কানায় পূর্ণ। শুধু অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী বাঙালিরাই নয়, অন্যান্য ভাষা-ভাষী অতিথিদের উপস্থিতিও ছিল উল্লেখযোগ্য।

সিডনির দূর দূরান্ত ছাড়াও ক্যানবেরা, মেলবোর্ন থেকেও মেলায় অগনিত দর্শকদের সমাগম ঘটে। পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে অস্ট্রেলিয়ার বিভিন্ন এলাকা থেকে ছোট ছোট বাচ্চা থেকে শুরু করে প্রবীণরাও বৈশাখী সাজে সজ্জিত হয়ে মেলাতে অংশগ্রহণ করতে ও মেলা প্রাঙ্গণে মুখরোচক দেশীয় খাবার নিয়ে পাটি বিছিয়ে অনেককে খেতে দেখা যায়। আবার অনেককে বলতে শোনা গেছে ‘ফেয়ারফিল্ড শো গ্রাউন্ডে নয়, এ যেন প্রবাসে এক বাংলা মায়ের কোল’।

অস্ট্রেলিয়ায় জন্ম নেয়া ও বেড়ে উঠা বাঙালি প্রজন্মকে জাতির ভাষা, সাহিত্য, সংস্কৃতি ও এর ইতিহাসের সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়াই এই মেলার প্রধান উদ্দেশ্য।

বিকেল ৪টায় দেশের ও অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় সঙ্গীত দিয়ে অনুষ্ঠান শুরুর পর সঞ্জয় টাবু ও আশিক সুজনের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য দেন মেলা কমিটির আহ্বায়ক গাউসুল আলম শাহজাদা।

কিশোর সংঘ, কিশলয় কচিকাঁচা ও একতারা’র ক্ষুদে শিল্পীরা একক ও দলীয় গান ও নৃত্য পরিবেশন করে। ক্ষুদে শিল্পীদের এই মন জুড়ানো পরিবেশনায় পুরো মেলা প্রাঙ্গণে ছিল মুহুর্মুহু করতালি। পাশাপাশি বৈশাখী মেলার উম্মুক্ত মঞ্চে ছিল শিশু কিশোর শিল্পীদের অংশগ্রহণে দেশাত্মবোধক গান, ছড়া, কবিতা, নাচের সুবিশাল আয়োজন।

তারপর একক নৃত্য পরিবেশন করেন স্মিতা বড়ুয়া, মিশা, অমিয়া মতিন, সৈয়দ আশিক সুজন ও বেগম আশিক।

মাগরিবের নামাজের বিরতির পর অতিথিরা মঞ্চে সংক্ষিপ্ত আলোচনায় অংশ নেন। আলোচনা পর্বের পর সঞ্জয় টাবুর মিউজিক, লাইটিং ও সাউন্ডের তত্ত্ববধায়নে শুরু হয় মূল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং চলে রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত। মনোমুগ্ধকর ফ্যাশন শো পরিবেশন করেন তানিয়া ও তার দল। তারপর স্থানীয় জনপ্রিয় ব্যান্ড দল কৃষ্টি গান পরিবেশন করে।

সবশেষে দেশ থেকে আগত মেলার অন্যতম আকর্ষন জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী ফেরদৌস ওয়াহিদ ও হাবিব ওয়াহিদ গান পরিবেশন করে মেলার দর্শকদের সুরের মুর্ছনায় মাতিয়ে রাখে। প্রতিবারের মতো এবারেও মেলায় ছিল বর্ণিল আলোকসজ্জা, জমকালো ফায়ার ওয়ার্কস ও রাফেল ড্র।

সবশেষে বঙ্গবন্ধু পরিষদ সিডনি, অস্ট্রেলিয়ার সাধারণ সম্পাদক এবং মেলা কমিটির আহ্বায়ক গাউসুল আলম শাহজাদা তার শুভেচ্ছা বক্তব্যে প্রবাসী কমিউনিটির সার্বিক সহযোগিতার কথা গভীর কৃতজ্ঞতা ও শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করে সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়ে মেলার আলোচনা পর্বের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

এছাড়াও মেলায় উপস্থিত ছিলেন প্রবাসী বাংলাদেশি রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক নেতারা, সিডনি থেকে প্রকাশিত অনলাইন ও পেপার পত্রিকার সম্পাদক ও টিভি সাংবাদিক, লেখক, সাহিত্যিক, কবি ও সুশীল সমাজসহ সর্বস্তরের প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

ঐতিহ্যবাহী এই ‘বৈশাখী মেলা’ প্রাঙ্গণে চারিদিক ঘিরে ছিল বাঙালি খাবার ও দেশীয় পোশাকের নানাবিধ স্টল। খাবারের স্টলগুলিতে ছিল নানা ধরনের মুখরোচক দেশীয় খাবারসহ পুরি,  চটপটি,  পিঁয়াজু,  হালিম,  জিলাপি,  সিঙ্গারা বিরানি সহ রকমারি পিঠা ও মিষ্টি। আর তৈরি পোশাকের স্টলগুলোতে ছিল সালোয়ার কামিজ, জামদানি ও অন্যান্য তাঁতের শাড়ির বিপুল সমাহার।

বৈশাখী মেলা উপলক্ষে একটি বিশেষ ক্রোড়পত্রও প্রকাশ করা হয়। মেলায় বিভিন্ন রকমের রাইড বড় দর্শকদের যেমন গ্রাম্য নাগরদোলার স্মৃতি মনে করিয়ে দিয়েছে তেমনি ছোট ছোট বাচ্চাদের সারাবেলা আনন্দে মাতিয়ে রেখেছিল। এ মেলায় নামাজের জন্যও তৈরি করা হয়েছিল আলাদা প্যান্ডেল।

পশুর চেয়েও নিকৃষ্ট ধর্ষক: প্রধানমন্ত্রী করোনা ভাইরাসের কারণে হজে যাওয়া না হলে টাকা ফেরত: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী দাঙ্গা নয়, দিল্লিতে পরিকল্পিত গণহত্যা হয়েছে: মমতা ভারতের সম্মান তলিয়ে দিয়েছে মোদি সরকার: মমতা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে সুনামগঞ্জে এনামুল-রুপন ছয় দিনের রিমান্ডে পিরোজপুরে সাবেক ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা চলতি বছরই তিস্তা চুক্তির সম্ভাবনা: শ্রিংলা ঢাকা উত্তরের নির্বাচন বাতিল চেয়ে তাবিথের মামলা খুলনায় ছাত্রলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা অভিনেতা গোলাম মুস্তাফার জন্মদিন সোমবার আদালতে টাউট-বাটপার শনাক্তের নির্দেশ পাওয়ার ট্রলিকে ধাক্কা দিয়ে বিকল রেলইঞ্জিন কলকাতা সফরে এসে প্রবল বিক্ষোভের মুখে অমিত শাহ রোবট চালাবে গাড়ি! ভিপি নূরকে হত্যার হুমকি দেয়ার পর দুঃখ প্রকাশ টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৭ জন নিহত রাখাইনপ্রদেশে সেনাদের গুলিতে শিশুসহ ৫ রোহিঙ্গা নিহত ইস্কাটনে ভবনে আগুন: মায়ের পর চলে গেলেন রুশদির বাবাও চট্টগ্রামে একটি বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ২ দেশে প্রতিদিন যক্ষ্মায় মারা যায় ১৩০ জন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনাভাইরাস আতঙ্কে আয়ারল্যান্ডের স্কুল বন্ধ ঘোষণা বিশিষ্ট সুরকার সেলিম আশরাফ আর নেই মোদীকে অতিথি হিসেবে সর্বোচ্চ সম্মান দেওয়া হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মধুর যত জাদুকরী গুণ চিপসের প্যাকেটের ভিতর খেলনা নয়: হাইকোর্ট আমার গাড়িতেও অস্ত্র আছে কী না আমি জানি না: শামীম ওসমান ফ্র্যান্সেও করোনা, অনিশ্চিত কান চলচ্চিত্র উৎসব উপনির্বাচন: গাইবান্ধা-৩ আসনে প্রতীক বরাদ্দ গুজব ও গণপিটুনি রোধে হাইকোর্টের ৫ নির্দেশনা