artk

ঢাবি সংবাদদাতা

বৃহস্পতিবার, মার্চ ১৪, ২০১৯ ১১:১০

মধ্যরাতে রোকেয়া হলের অনশনকারী ছাত্রীদের হেনস্তা

media

ছবি সংগৃহীত

ফের ডাকসু ও হল সংসদ নির্বাচনের দাবিতে আমরণ অনশনে বসা রোকেয়া হলের পাঁচ ছাত্রী হেনস্তারে শিকার হয়েছেন।

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ ও ডাকসুর নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক (জিএস) গোলাম রাব্বানী এই হেনস্থা করেন বলে অনশনকারী ছাত্রীরা অভিযোগ করেন। 

অনশনকারী শ্রবণা শফিক দীপ্তি বলেন, “চারটি দাবিতে আমরা সুশৃঙ্খলভাবে অনশন করছিলাম। বুধবার রাতে গোলাম রাব্বানী তার নেতা-কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে এখানে এসে আমাদের, সমর্থনকারীদের হেনস্তা করেন। ছবি দেখিয়ে একজনকে চরিত্রহীন প্রমাণের চেষ্টা করেন। আমাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন, আমরা মদ-গাঁজা খেয়ে আন্দোলন করছি। এ ছাড়া আমাদের চিহ্নিত করে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের হুমকি দেন তিনি।”

ডাকসু ও হল সংসদে পুনর্নির্বাচন, হল প্রভোস্টের পদত্যাগ, মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও আন্দোলনকারীদের নিরাপত্তার দাবিতে বুধবার রাত ৯টায় আমরণ অনশনে বসেন রোকেয়া হলের পাঁচ শিক্ষার্থী। তাদের মধ্যে চারজন ডাকসু ও হল সংসদ নির্বাচনে বিভিন্ন পদের প্রার্থী ছিলেন। হলের প্রধান ফটকের সামনে তারা অনশন শুরু করেন। অনশন শুরু করার পর তাদের সমর্থনে হলের ফটকের ভেতরে ও বাইরে অবস্থান নেন অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী। এ সময় তারা হল প্রভোস্টের পদত্যাগের দাবিতে স্লোগান দেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ব্যক্তিদের ভাষ্য, রাত দেড়টার দিকে মোটরসাইকেলে করে শতাধিক নেতা-কর্মী সঙ্গে নিয়ে রোকেয়া হলের সামনে আসেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ ও ডাকসুর নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক (জিএস) গোলাম রাব্বানী। এসেই তিনি ছাত্রীদের হলের ফটকের বাইরে অনশন করা ও তাদের সমর্থকদের অবস্থান নিয়ে মুঠোফোনে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর গোলাম রাব্বানীর সঙ্গে কথা বলেন।

ডাকসুর নবনির্বাচিত জিএস মুঠোফোনে প্রক্টরকে বলেন, “এরা খুব বাড়াবাড়ি করছে, স্যার। এদের সবগুলোর ফাইল দেখে চিহ্নিত করে, গার্ডিয়ান ডেকে এনে স্থায়ীভাবে একাডেমিক বহিষ্কার করেন। বিশ্ববিদ্যালয় থেকে খোদা হাফেজ করে দেন।”

এ সময় প্রভোস্টের ‘পদত্যাগ’ দাবি করে ‘রোকেয়া হলের আঙিনা, তোমার-আমার ঠিকানা’ বলে স্লোগান দেন অনশনকারীদের সমর্থকেরা।

এরই মধ্যে ঘটনাস্থলে এসে উপস্থিত হন হল শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ইশরাত কাশফিয়া ইরা, বর্তমান সভাপতি ও ডাকসুর কমনরুম–বিষয়ক সম্পাদক লিপি আক্তার, হল সংসদের সদস্য সুরাইয়া আক্তারসহ ছাত্রলীগের কয়েকজন নেত্রী।

ডাকসুর জিএস রাব্বানীর কাছে তারা অভিযোগ করেন, অবস্থানকারীদের কারণে হলের শিক্ষার্থীরা ঘুমাতে পারছেন না, পড়তে পারছেন না।

এরপর রাব্বানী হলের গেটে দাঁড়িয়ে থাকা অনশনকারীদের কয়েকজন সমর্থককে দেখিয়ে ছাত্রলীগ নেত্রীদের প্রশ্ন করেন, “রাত দুইটার দিকে বোরকা, নেকাব পরা এরা কারা? ছাত্রী সংস্থা? শিবিরের কর্মী? ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিবিরের অবস্থান নিষিদ্ধ।”

এরপর রাব্বানী গণমাধ্যমকর্মীদের ডেকে বলেন, “এদের ফোকাস করেন।”

এ সময় ঘটনাস্থলে হলের হাউস টিউটর দিলারা জাহিদ, লোপামুদ্রা, সাদিয়া নূর খান এসে ডাকসুর জিএস রাব্বানীকে চলে যাওয়ার জন্য অনুরোধ করেন।

তিনি চলে যেতে উদ্যত হলে তাকে ফিরিয়ে আনেন হল ছাত্রলীগ নেত্রীরা। ফিরে এসে আন্দোলনকারীদের চিহ্নিত করতে হল ছাত্রলীগ নেত্রীদের নির্দেশ দেন রাব্বানী।

এরপর রাব্বানীর সঙ্গে গণমাধ্যমকর্মীরা কথা বলতে চাইলে তিনি বলেন, “হলের গেট খোলা রেখে ছাত্রীদের অবস্থানের কথা শুনে হলে অবস্থান করা অন্য শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এখানে আসি আমি। এসে দেখি, কয়েকজন মদ-গাঁজা খেয়ে এখানে আন্দোলন করছে। এই ১০-১৫ জনের কারণে অন্যদের ক্ষতি হলে সে দায় নেবে কে?”

এ সময় গণমাধ্যমের সামনে এক শিক্ষার্থীর ছবি দেখিয়ে রাব্বানী অভিযোগ করেন, “এই মেয়ে মদ-গাঁজা খেয়ে ধরা পড়েছিল। সে এখানে আন্দোলন করছে। এরাই ভোটের দিন ব্যালট ছিনতাই করে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ভোট দিতে দেয়নি। প্রভোস্ট ম্যামকেও লাঞ্ছিত করেছে। এদের সামনে প্রভোস্ট ম্যাম আসবেন কীভাবে?”

সবশেষ বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত হল গেটের সামনে অবস্থান করছিলেন শিক্ষার্থীরা।

খেজুরের যত উপকারিতা ঢাকাবাসীর জীবনমান উন্নয়নে বিএনপির কোনো পরিকল্পনা নেই: তাপস জনতাই আমাদের আগামী সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী: তাবিথ করোনা ভাইরাস: বেনাপোল ইমিগ্রেশনে কঠোর নজরদারী ফরিদপুরে ৩৫ কেজি গাঁজাসহ নারী আটক ২০২২ সালে বিদেশে স্মার্টফোন রপ্তানি করবে সিম্ফনি বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে আবারও চ্যাম্পিয়ন ফিলিস্তিন ঢাকা-জামালপুর রুটে চালু হচ্ছে জামালপুর এক্সপ্রেস ৯ উইকেটে লজ্জার হার টাইগারদের তিস্তা চুক্তির প্রস্তাব তৈরি করা হচ্ছে: পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নম্বর গণনায় ভুল করায় যশোর শিক্ষাবোর্ডের ২৯০ পরীক্ষককে শাস্তি নব্য জেএমবি সন্দেহে দুই খুবি শিক্ষার্থী আটক ২০ টাকার জন্য চানাচুর বিক্রেতা খুন বিশ্বজুড়ে প্রায় ২৬ কোটি শিশু শিক্ষাবঞ্চিত: জাতিসংঘ চাঁদপুরে ১২শ কেজি জাটকা জব্দ ব্যাটিং ব্যর্থতায় ১৩৬ রানেই থেমে গেল বাংলাদেশ মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ছোড়া গোলায় ২ রোহিঙ্গা নারী নিহত গরু আনতে গিয়ে গুলিতে নিহত হলে দায় নেবে না সরকার: খাদ্যমন্ত্রী জুলাই মাসে মঙ্গলে অনুসন্ধান শুরু করার ঘোষণা দিয়েছে চীন ট্যাক্সেশন অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি রেজাউল মহাসচিব কায়ছার কন্যা সন্তানের বাবা হলেন আন্দ্রে রাসেল পাকিস্তানের বিপক্ষে ২য় ম্যাচে ব্যাটিংয়ে নেমেই উইকেট হারালো বাংলাদেশ নৌকার কোনো ব্যাক গিয়ার নেই: আতিক বৃদ্ধার কোলে নবজাতক রেখে পালালেন নারী ৯ তলা ভবন থেকে নিচে পড়েই হাঁটা দিলেন নারী বরগুনায় বাসচাপায় মা-ছেলেসহ নিহত ৩ ডিএসইর পিই রেশিও বেড়েছে মূলধন বেড়েছে ২৫ হাজার ৬৯৯ কোটি টাকা ইঁদুর শূকরের মাংসেই বিপদ মধুসূদন দত্তের ১৯৬তম জন্মবার্ষিকী শনিবার