artk
শনিবার, মার্চ ২৩, ২০১৯ ২:৫৮   |  ৯,চৈত্র ১৪২৫
বুধবার, ফেব্রুয়ারী ২০, ২০১৯ ২:৫৬

আরো ৫ শতাধিক ইয়াবা কারবারি শনাক্ত

কক্সবাজার প্রতিনিধি
media

ফাইল ছবি

যেখানে অনেক প্রভাবশালী ব্যক্তি এবং সাংবাদিকদের নাম পাওয়া গেছে। এখন অধিকতর তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ

কক্সবাজারে টেকনাফে ইয়াবা কারবারিদের অজানা তথ্য এখন পুলিশের হাতে রয়েছে। পুলিশ এসব তথ্য অধিকতর তদন্ত শুরু করেছে।

পুলিশ বলছে, গত শনিবার টেকনাফে আত্মসমর্পণকারি ১০২ জন ইয়াবা কারবারির দেয়া স্বীকারোক্তিতে উঠে এসেছে এসব অজানা তথ্য।

প্রাপ্ত তথ্যমতে, আত্মসমর্পণ করা ১০২ ইয়াবা কারবারিদের দেয়া স্বীকারোক্তিতে নতুন করে পাঁচ শতাধিক ইয়াবা কারবারি শনাক্ত করা হয়েছে। যেখানে অনেক প্রভাবশালী ব্যক্তিসহ সাংবাদিকরাও রয়েছে। একই সঙ্গে ইয়াবা কারবারিদের কাছ থেকে নানাভাবে মাসোহারা আদায় করা পুলিশ ও সাংবাদিকদেরও চিহ্নিত করা সম্ভব হয়েছে। এছাড়া ইয়াবার অর্থ লেনদেন পরিচালনায় জড়িত ৩০ হুন্ডি ব্যবসায়ীকে শনাক্ত করা গেছে।

পুলিশ বলছে, আত্মসমর্পণকারিদের সম্পদের তথ্য সংগ্রহ শুরু হয়েছে। শর্ত মতে, তাদের সম্পদের বিররণ দুদক, সিআইডির মানি লন্ডারিং বিভাগ এবং এনবিআরকে দেয়া হচ্ছে। অবৈধ সম্পদের ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থাও নেয়া হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, গত ১৬ ফেব্রুয়ারি পুলিশের উদ্যোগে দেশে প্রথমবারের মতো ১০২ জন ইয়াবা কারবারি আত্মসমর্পণ করেছে। টেকনাফ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান, বাংলাদেশ পুলিশের প্রধান আইজিপি জাবেদ পাটোয়ারীসহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

আত্মসমর্পণকারিদের ৫৭ জনই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত শীর্ষ ইয়াবা কারবারি রয়েছে। এসব ইয়াবা কারবারিদের কাছ থেকে তথ্য সংগ্রহ করেছে পুলিশ।

কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন জানান, ১০২ জন ইয়াবা কারবারি তাদের স্বীকারোক্তিতে পাঁচ শতাধিক নতুন ব্যক্তির নাম বলেছে। যারা নানাভাবে ইয়াবা ব্যবসার নিয়ন্ত্রণ করে থাকেন। যেখানে অনেক প্রভাবশালী ব্যক্তি এবং সাংবাদিকদের নাম পাওয়া গেছে। এখন অধিকতর তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

তিনি জানান, পুলিশ মাদকের নীতিতে কোনভাবে আপোষ নই, কঠোর। এসব নাম যাচাই বাছাই শেষে অন্যান্য মাদক ব্যবসায়ীদের মতো তাদের বিরুদ্ধেও আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এসপি মাসুদ জানান, ইয়াবা ব্যবসায়ীদের আত্মসমর্পণ চাননি কিছু পুলিশ এবং সাংবাদিক। তার কারণও পাওয়া গেছে ১০২ জনের স্বীকারোক্তিদের। ইয়াবা কারবাবিদের কাছ থেকে কারা কীভাবে মাসোহারা আদায় করতো তা এখন পরিষ্কার।

শেখ হাসিনাকে ডাকসুর আজীবন সদস্য করার প্রস্তাব, নুরের আপত্তি বাংলাদেশে ‘স্কিনকোড’র বাণিজ্যিক যাত্রা শুরু পুরো ঢাকা যেন টাইম বোমা না হয়: বেনজীর সিডনিস্থ ক্যাম্বেল টাউন সিটি কাউন্সিল পতাকা অর্ধনমিত থাকবে আইপিএল শুরু শনিবার, যে দুটি দল মাঠে নামবে ওবায়দুল কাদের সম্পূর্ণ সুস্থ একটি কবুতরের মূল্য ১২ কোটি টাকা! শাকিবের নতুন সিনেমা ‘হিটার’ সুবর্ণচরে গণধর্ষণ: রুহুল আমিনের জামিন বাতিল দুপুরমনি পাঁচ প্রতিষ্ঠানের ডিভিডেন্ড ঘোষণা বাবু অভিনীত ‘মাস্তুল’র শুটিং সম্পন্ন ট্রাম্পের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিলেন মুলার ডিএসইর লেনদেন কমেছে ৪০ শতাংশ স্ট্রোকের ঝুঁকি হ্রাস করতে আদা চা ব্লক মার্কেটে লেনদেন ৫৩ কোটি টাকা যুবলীগের দুপক্ষের সংঘর্ষে আহত ১৫ ডিএসইর পিই রেশিও কমেছে সিডনিতে ক্রাইস্টচার্চে নিহত ড. আব্দুস সামাদ স্মরণে দোয়া মাহফিল শাহজালালে ময়লার ঝুড়িতে ৮ কোটি টাকার স্বর্ণের বার কো–চেয়ারম্যানের পদ হারালেন জি এম কাদের ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর জন্য গান গরম চায়ে ক্যানসারের ঝুঁকি মেসি ফিরেও আর্জেন্টিনাকে জেতাতে পারলেন না স্কুল বন্ধ রেখে ১৫ দিনের প্রমোদ ভ্রমণে শিক্ষকরা মলদ্বারে চুলকানির কারণ ও প্রতিকার দৈনিক কতটা চুল পড়া স্বাভাবিক? ফাঁস হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে কোটি কোটি ফেইসবুক পাসওয়ার্ড শাহজালালে পিস্তল ও ৩২ রাউন্ড গুলিসহ আ.লীগ নেতা আটক বিড়াল হত্যার দায়ে তরুণীর বিরুদ্ধে মামলা