artk

তরিকুল ইসলাম মিঠু

মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী ৫, ২০১৯ ১১:৪১

দুই উপজেলার মানুষের একমাত্র ভরসা বাঁশের সাঁকো

যশোর প্রতিনিধি
media

এখানে একটি ব্রিজ হলে দেয়াড়া ও ত্রিমোহিনী সকল প্রতিষ্ঠানসহ বাজার দুইটি উন্নত হতো এবং প্রতিবছর মধুমেলায় জনগণের দুর্ভোগ কমতো।

যশোরের কেশবপুর উপজেলায় কপোতাক্ষ নদের ওপর নির্মিত ঝুঁকিপূর্ণ বাঁশের সাঁকোটিই একমাত্র ভরসা দুই উপজেলার মানুষের।

যশোরের কেশবপুর ও সাতীরার কলারোয়া উপজেলার মানুষের চলাচলের মাধ্যম এই সাঁকোটি। সাঁকোটি ঝুঁকিপূর্ণ হলেও দূরত্ব কম হওয়ায় প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে এ অঞ্চলের মানুষ সাঁকোটি বেছে নিয়েছে। সাঁকোর ওপর নির্ভর করে পার্শ্ববর্তী উপজেলা কলারোয়া, তালা এলাকা ও কেশবপুর উপজেলার একটি অংশের ছাত্র-ছাত্রীসহ হাজার হাজার মানুষ প্রতিনিয়ত যাতায়াত করে থাকেন। এলাকাবাসী অবিলম্বে কপোতাক্ষ নদের ওপর একটি ব্রিজ নির্মাণের দাবি জানিয়েছেন।

সরোজমিনে দেখা যায়, ত্রিমোহিনী ভায়া কলারোয়া কপোতা নদের ওপর বাঁশের সাঁকোটির উপর দিয়ে প্রতিনিয়ত এলাকার মানুষ যাতায়াত করছে। সাঁকোর বাঁশগুলো পুরানো হয়ো যাওয়াতকালে ভেঙে পড়তে পারে যেকোন মুহূর্তে। দুই উপজেলার মানুষের চলাচলের জন্য এখানে একটি ব্রিজ নির্মাণ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ব্রিজ না থাকায় মানুষ তাদের কৃষি উৎপাদিত পণ্য কাঁধে বা মাথায় নিয়ে বাঁশের সাঁকোর ওপর দিয়ে হাঁট-বাজারে যাচ্ছে। কারো কাঁধে বেগুনের খাঁচি, কারো মাথায় সবজি, কারো কাধে ধান ও পাট ইত্যাদি।

স্থানীয় কয়েকজন জানান,স্বাধীনতার ৪৭ বছরেও কপোতাক্ষ নদের ওপর ব্রিজ নির্মাণে কোনো মন্ত্রী ও এমপি উদ্যোগ নেয়নি। অথচ সাঁকোটির জায়গায় একটি ব্রিজটি নির্মিত হলে কেশবপুর, তালা, কলারোয়া, সাতীরার লোকজনের জীবনযাত্রা পাল্টে যেত।

সাঁকোর পশ্চিম পাশের লোকজনদের ঝুঁকি নিয়ে কেশবপুর কলেজ, মাধ্যমিক বিদ্যালয়, স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কেন্দ্র, ব্যাংকসহ অসংখ্য বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে আসতে হয়। কেশবপুরে তাদের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা কেন্দ্রও রয়েছে। মধুকবির জন্মবার্ষিকী প্রতি বছর ২৫ জানুয়ারি সপ্তাহব্যাপী সরকারিভাবে উদযাপন করা হয়। ওই সময় এ বাঁশের সাঁকো দিয়ে হাজার হাজার লোকজন পার হয়  মধুমেলায় আসেন। মেলার সময়ে অতিরিক্ত লোকের সমাগমে যেকোন মুহূর্তে সাঁকোটি ভেঙে মানুষের বড় ধরনের ক্ষতি হতে পারে বলে জানান তারা।

বাঁশের সাঁকো ব্যবহারকারী কৃষক অসীম দাস, আব্দুল হালিম, আব্দুল কুদ্দুস, হায়দার আলী, শরিফুল ইসলাম, আব্দুল হান্নান,জবান আলী, ইউনুস আলী, নজরুল ইসলাম, আব্দুল জলিল, তরিকুল ইসলাম, মোহাম্মদ আলী, রমজান আলী বললেন, ব্রিজ না থাকায় যানবাহনের অভাবে কাঁধে ও মাথায় করে সবজি, ধান, পাট নিয়ে ত্রিমোহিনী ও কেশবপুর বাজারে যেতে বাধ্য হন। তাছাড়া বর্ষা মৌসুমে বাঁশের সাঁকোর ওপর দিয়ে স্কুল, কলেজগুলোতে আসতে হয় ৩/৪ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে ।

এলাকাবাসী জানান, কপোতাক্ষ নদের ওপর একটি ব্রিজ নির্মাণ হলে কেশবপুরে সকল প্রতিষ্ঠানসহ বাজারটিও উন্নত হতো এবং প্রতিবছর মধুমেলায় জনগণের দুর্ভোগ পোহাতে হতো না।

দেয়াড়া গ্রামের স্থানীয় ইউপি সদস্য বাবর আলী সরদার মন্টু জানান, কপোতাক্ষ নদের ওপর সেতুটি নির্মাণ হলে কেশবপুর, তালা, কলারোয়ার বিভিন্ন পেশার মানুষের দুর্ভোগ পোহাতে হতো না।

এলাকাবাসী জানান, তারা তাদের নিজেদের স্বার্থে প্রতিবছর ব্যক্তিগত তহবিল থেকে এই বাঁশের সাঁকোটি সংস্কার করে থাকেন। মধুকবির স্বপ্নের কপোতাক্ষ নদের ওপর একটি ব্রিজ নির্মিত হলে দু’টি উপজেলার মানুষের জীবনযাত্রা পাল্টে যাবে। তিনি উর্ধ্বতন কর্তৃপরে দৃষ্টি আর্কষণ করেছেন।

স্থানীয় লিয়াকত আলী জমিদার জানান, আমার উদ্যোগে, নাসির শেখ, আমির সরদারসহ ২০/২৫ জন মিলে ২০০১ সালে ৪ লাখ টাকা ব্যয়ে ২৭৫ ফুট কপোতাক্ষ নদের ওপর একটি সাঁকো নির্মাণ করা হয়। ওই সময় সাঁকো উদ্বোধন করেন এমপি হাবিবুল ইসলাম হাবিব। তিনি উদ্বোধনের সময় সাঁকোর জন্য ৫০ হাজার টাকা অনুদান দিয়েছিলেন। এখানে একটি ব্রিজ হলে দেয়াড়া ও ত্রিমোহিনী সকল প্রতিষ্ঠানসহ বাজার দুইটি উন্নত হতো এবং প্রতিবছর মধুমেলায় জনগণের দুর্ভোগ কমতো।

ত্রিমোহিনী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান জানান, কপোতাক্ষ নদের ওপর একটি ব্রিজ নির্মাণের জন্য আমরা বিভিন্ন সময়ে এমপি ও মন্ত্রীদের কাছে গিয়েছি। কিন্তু তারা বার বার আমাদের আশস্ত করেছেন এখানে একটি ব্রিজ হবে। কিন্তু আজও পর্যন্ত হয়নি। তবে বর্তমানে এ অঞ্চাল থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী একজন মন্ত্রী দিয়েছেন। আশা করি তিনি এ সাঁকোটির দিকে দৃষ্টি দিলে খুব তাড়াতাড়ি এখানে একটি ব্রিজ হওয়া সম্ভাব বলে তিনি জানান।

পশুর চেয়েও নিকৃষ্ট ধর্ষক: প্রধানমন্ত্রী করোনা ভাইরাসের কারণে হজে যাওয়া না হলে টাকা ফেরত: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী দাঙ্গা নয়, দিল্লিতে পরিকল্পিত গণহত্যা হয়েছে: মমতা ভারতের সম্মান তলিয়ে দিয়েছে মোদি সরকার: মমতা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে সুনামগঞ্জে এনামুল-রুপন ছয় দিনের রিমান্ডে পিরোজপুরে সাবেক ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা চলতি বছরই তিস্তা চুক্তির সম্ভাবনা: শ্রিংলা ঢাকা উত্তরের নির্বাচন বাতিল চেয়ে তাবিথের মামলা খুলনায় ছাত্রলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা অভিনেতা গোলাম মুস্তাফার জন্মদিন সোমবার আদালতে টাউট-বাটপার শনাক্তের নির্দেশ পাওয়ার ট্রলিকে ধাক্কা দিয়ে বিকল রেলইঞ্জিন কলকাতা সফরে এসে প্রবল বিক্ষোভের মুখে অমিত শাহ রোবট চালাবে গাড়ি! ভিপি নূরকে হত্যার হুমকি দেয়ার পর দুঃখ প্রকাশ টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৭ জন নিহত রাখাইনপ্রদেশে সেনাদের গুলিতে শিশুসহ ৫ রোহিঙ্গা নিহত ইস্কাটনে ভবনে আগুন: মায়ের পর চলে গেলেন রুশদির বাবাও চট্টগ্রামে একটি বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ২ দেশে প্রতিদিন যক্ষ্মায় মারা যায় ১৩০ জন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনাভাইরাস আতঙ্কে আয়ারল্যান্ডের স্কুল বন্ধ ঘোষণা বিশিষ্ট সুরকার সেলিম আশরাফ আর নেই মোদীকে অতিথি হিসেবে সর্বোচ্চ সম্মান দেওয়া হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মধুর যত জাদুকরী গুণ চিপসের প্যাকেটের ভিতর খেলনা নয়: হাইকোর্ট আমার গাড়িতেও অস্ত্র আছে কী না আমি জানি না: শামীম ওসমান ফ্র্যান্সেও করোনা, অনিশ্চিত কান চলচ্চিত্র উৎসব উপনির্বাচন: গাইবান্ধা-৩ আসনে প্রতীক বরাদ্দ গুজব ও গণপিটুনি রোধে হাইকোর্টের ৫ নির্দেশনা