artk
শনিবার, জুন ২৭, ২০১৫ ২:১৫

জাবি গবেষকদের দুর্ঘটনারোধক নৌকা উদ্ভাবন

media

জাবি: জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন গবেষক আবিস্কার করেছেন সৌরচালিত নৌকা। এ নৌকা নিজেই সব ধরনের দুর্ঘটনা এড়াবে। দেশে প্রতি বছর নৌকা, লঞ্চ ও জাহাজডুবিতে শত শত মানুষের প্রাণহানি ঘটে। অসচেতনতা ও আইন না মেনে বেশি যাত্রী আরোহনের কারণে এ দুর্ঘটনা বেশি ঘটে। বর্ষা মৌসুমে পানি বাড়ার কারণে এবং প্রযুক্তির ব্যবহার না থাকায় নৌদুর্ঘটনা ঘটছে অহরহ। এ সমস্যা থেকে রক্ষা পেতে বাংলাদেশি তিন গবেষক উদ্ভাবন করলেন সৌরচালিত নৌকা। এ নৌকা উদ্ভাবন করতে তাদের সময় লেগেছে এক বছর।

এ নৌকায় ১২ জন যাত্রী চলাচল করতে পারবে। এ সংখ্যার বেশি হলে বা অন্য কোনো অতিরিক্ত মালামাল তুললে নৌকাটি নিজের থেকেই সঙ্কেত দেবে। এমনকি নৌকাটির ইঞ্জিন সাথে সাথে বন্ধ হয়ে যাবে। বিরূপ আবহাওয়ার বার্তা, সতর্কীকরণ নির্দেশনা চালককে জানাতে পারবে। মাইক্রোকন্ট্রোলার যন্ত্র ব্যবহার করে নৌকাটির যাতায়াত নিয়ন্ত্রণ ব্যবহার রয়েছে। যার মাধ্যমে নৌকাটি নদীর কোথায় আছে তাও বলে দিতে পারবে। এমনকি নৌকাটি ডুবে গেলেও তা কোথায় আছে তা বলে দেবে যন্ত্রটি।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্যপ্রযুক্তি ইনস্টিটিউটের সহযোগিতায় সার্বিক গবেষণা কার্যক্রমটি পরিচালিত হচ্ছে। যা উদ্ভাবনের মূল কাজ করছেন তথ্যপ্রযুক্তি ইনস্টিটিউটের সহকারী অধ্যাপক শামীম আল মামুন, সহকারী অধ্যাপক  ড. এম শামীম কায়সার ও প্রভাষক জামশেদ ইকবাল চৌধুরী। তৈরি করা নৌকাটি বর্তমানে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি লেকে পরীক্ষামূলকভাবে চালিয়ে সফল হয়েছেন গবেষকরা।

সরকারি সহযোগিতা ছাড়াই নিজেদের অর্থায়নে গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা করছেন ওই তিন গবেষক। এমন নৌকা বানাতে তাদের প্রায় এক লাখ টাকা খরচ পড়েছে বলে জানান গবেষক শামীম আল মামুন।

তিনি নিউজবাংলাদেশকে বলেন, “বর্তমানে সরকারের বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের অধীনে আর্থিক সহযোগিতায় তাদের আবিস্কৃত প্রযুক্তি লঞ্চ, স্টিমার ও জাহাজ ইত্যাদি গণপরিবহনে স্থাপনের প্রক্রিয়া চলছে। তাদের আবিস্কৃত যন্ত্রটির সকল উপকরণ তারা চীন থেকে নিয়ে আসবে।”

তিনি আরো বলেন, “এর মাধ্যমে আমরা অক্টোবরে সকল নৌপরিবহনে প্রযুক্তিটি স্থাপন করতে সক্ষম হবো।”

গবেষকরা জানান, নৌকাটি সোলার প্যানেলের মাধ্যমে শক্তি সংগ্রহ করতে পারবে। নৌকা যখন ঘাটে থাকবে তখন তার কোনো বিদ্যুৎশক্তি খরচ না হলেও সোলার প্যানেল সিস্টেম থাকার কারণে ব্যাটারি চার্জ হতেই থাকবে। একবার ফুল চার্জ হলে নৌকাটি টানা ১০ থেকে ১২ ঘণ্টা চালানো সম্ভব।

ব্যাটারি যাতে দুই-তিন ঘণ্টার মধ্যে সম্পূর্ণ চার্জ করা যাবে। এ নৌকাটিতে গ্লোবাল পজিশনিং সিস্টেম (জিপিএস) ব্যবহার করা হয়েছে। এর ব্যবহারে সব সময় নৌকার অবস্থান সম্পর্কে তথ্য জানা যাবে। জিপিএস থেকে প্রাপ্ত তথ্য নিয়ন্ত্রণকক্ষের সফটওয়্যারে প্রদর্শিত হবে।

নৌকার এসব ব্যবস্থা থাকবে একটি বক্সে, যা পানি নিরোধক হবে। নৌকা ডুবে গেলেও ব্লাকবক্সে সংরক্ষিত তথ্যাদি থেকে দুর্ঘটনা সম্পর্কিত তথ্য পাওয়া যাবে। এ বক্স ও সফটওয়্যারের কাজ শেষ হয়েছে বলে জানিয়েছেন গবেষকরা।

সৌরচালিত নৌকা নিয়ে ড. এম শামীম কায়সার নিউজবাংলাদেশকে বলেন, “একজন মাঝি প্রতিদিন বৈঠা দিয়ে নৌকা চালানোর ফলে দীর্ঘমেয়াদে তার শারীরিক বিভিন্ন সমস্যা দেখা দেয়। ফলে তাদের পক্ষে সপ্তাহজুড়ে টানা কাজ করা সম্ভব হয় না। বিদ্যুৎ শক্তিচালিত নৌকায় পরিবেশ দূষণজনিত জটিলতা থাকবে না।”

তিনি আরো বলেন, “চালকরাও অতিরিক্ত কায়িক শ্রম থেকে বাঁচবেন। সৌর বিদ্যুতের মাধ্যমে নৌকা চালানো হলে ব্যাটারি নিজে থেকেই শক্তি সঞ্চয় করবে। ফলস্বরূপ বিদ্যুতের জন্যও কোনো খরচ হবে না। জীবাশ্ম জ্বালানি ব্যবহার না হওয়ায় বায়ু ও পানিদূষণ হবে না।”

আরেক অন্যতম উদ্ভাবক ও গবেষক অধ্যাপক শামীম আল মামুন নিউজবাংলাদেশকে বলেন, “প্রতিবছর দেশে নৌপরিবহনে দুর্ঘটনা ঘটছে অহরহ। বিশেষ করে অতিরিক্ত যাত্রী বহন করার কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটে। কিন্তু আমাদের আবিস্কৃত এ প্রযুক্তির মাধ্যমে অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহনে উঠলে তা নিজে জানিয়ে দেবে তার অতিরিক্ত যাত্রী সম্পর্কে।”

তিনি আরো বলেন, “এছাড়া কর্তৃপক্ষ প্রেরিত আবহাওয়ার পূর্বাভাসের বার্তাটি চালককে পড়ে শোনাবে নৌকাটি। এমনকি  ঝড়ের পূর্বাভাস অথবা নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের যেকোনো সতর্কীকরণ বার্তা ও নির্দেশিকা পড়ে শোনাবে নৌকাটি। যার মাধ্যমে সকল দুর্ঘটনা এড়ানো সম্ভব।”

নিউজবাংলাদেশ.কম/এটিএস

যুক্তরাষ্ট্রকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিল হুয়াওয়ে ‘ভারত বুঝুক, হারের পর সামনে এসে উল্লাস করলে কেমন লাগে’ মৎস্য কর্মকর্তা লাঞ্ছিত, উপজেলা চেয়ারম্যান বরখাস্ত নারায়ণগঞ্জে শিশুসহ একই পরিবারের দগ্ধ ৮ নায়ক মান্না চলে যাওয়ার ১ যুগ করোনায় মৃত্যুর মিছিলে আরও ১০০ জন বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে ২ মেডিক্যাল শিক্ষার্থী নিহত ইঁদুরেই খেয়েছে ১ লাখ মেট্রিক টন ফসল করোনাভাইরাস আতঙ্কে সিঙ্গাপুরফেরত স্বামীকে রেখে পালালেন স্ত্রী ঘুষের অভিযোগ থেকে সিনহাকে অব্যাহতি কোভিড ১৯: এবার তাইওয়ানে প্রথম মৃত্যু ভোটাররা দেরিতে ঘুম থেকে উঠায় ভোট হবে ৯টায়: ইসি সচিব এই সেলফি তোলার পরেই ট্রেনের ধাক্কায় স্কুলছাত্রের মৃত্যু করোনাভাইরাস: প্রযুক্তিই চীনের শেষ ভরসা সঞ্চয়পত্রে নয়, সুদ কমেছে ডাকঘর সঞ্চয় স্কিমের: অর্থ মন্ত্রণালয় বিশ্বকাপজয়ী ৬ ক্রিকেটার নিয়ে বিসিবি একাদশ ঘোষণা সিরাজগঞ্জে বাস খাদে পড়ে নিহত ৩ চট্টগ্রাম, বগুড়া ও যশোর সিটিতে ভোট ২৯ মার্চ করোনাভাইরাস শনাক্তে বাংলাদেশকে উন্নত কিটস দেবে চীন একত্রে কাজ করবে ডিএসই ও সিএসই বিশ্রামে রিয়াদ, ফিরলেন তাসকিন-মোস্তাফিজ করের বকেয়া অর্থ না দেয়াও দুর্নীতি: দুদক চেয়ারম্যান দক্ষদের নিয়োগ দিচ্ছে টেসলা, ডিগ্রি না হলেও চলবে খালেদা জিয়ার প্যারোল আবেদন সরকার পায়নি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চিকেন পক্স হলে কী খাবেন বাংলা তারিখ ব্যবহারে নিষ্ক্রিয়তা কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট কারিগরি শিক্ষার্থীদের বেশি গুরুত্ব দেয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ডিএসইএক্সের সেরা দ্বিতীয় উত্থান মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে তৃতীয় মেয়াদে শপথ নিলেন কেজরিওয়াল ফিটনেস ও নিবন্ধনহীন গাড়ি বন্ধে সব জেলায় টাস্কফোর্স গঠনের নির্দেশ