artk
বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারী ২১, ২০১৯ ৯:২১   |  ৯,ফাল্গুন ১৪২৫

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

রোববার, জানুয়ারি ২০, ২০১৯ ৮:৩৯

শাটডাউন: আপসের প্রস্তাব ট্রাম্পের

media
যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সবচেয়ে দীর্ঘ সময় অর্থাৎ চার সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে এই আংশিক শাটডাউন চলছে। এর ফলে প্রায় আট লাখ ফেডারেল কর্মী ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সরকারের কার্যক্রমে অচলাবস্থা বা আংশিক শাটডাউন থেকে বেরিয়ে আসতে শেষ পর্যন্ত আপস করার প্রস্তাব দিলেন।

তিনি যুক্তরাষ্ট্রের অভিবাসন নীতির সাথে আপসের কথা বলেছেন। বিবিসি।

হোয়াইট হাউজ থেকে ট্রাম্প বলেছেন, প্রায় ১০ লাখ অভিবাসীকে বহিষ্কারের হুমকি তিনি প্রত্যাহার করে নেবেন। বৈধ কাগজপত্র ছাড়া যে তরুণরা রয়েছে, তারাও এর আওতায় পড়বে।

তিনি আরও বলেছেন, মানবিক সাহায্যের জন্য আটশ মিলিয়ন ডলার দেয়া হবে। একই সাথে সীমান্তে নিরাপত্তা বাড়ানোর জন্য একই পরিমাণ অর্থ দেয়া হবে। এই অর্থ সীমান্তে অতিরিক্ত ২৭৫০ জন নিরাপত্তা কর্মী নিয়োগে সহায়তা করবে।

কিন্তু ট্রাম্প মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের অবস্থান থেকে সরে আসেননি।

তিনি সেজন্য ৫৭০ মিলিয়ন ডলার যে চেয়েছিলেন, সমঝোতার প্রস্তাবেও তার সেই দাবি বহাল রয়েছে।

ট্রাম্পের প্রস্তাবকে অগ্রহণযোগ্য বলে বর্ণনা করেছে ডেমোক্র্যাটরা।

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সবচেয়ে দীর্ঘ সময় অর্থাৎ চার সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে এই আংশিক শাটডাউন চলছে। এর ফলে প্রায় আট লাখ ফেডারেল কর্মী ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

প্রেসিডেন্ট নিজেই তার ভাষণের আগে প্রচার করেছেন যে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা দেবেন।

তিনি শুরু করেন যে, যুক্তরাষ্ট্রের বৈধ অভিবাসীদের স্বাগত জানানোর গর্বিত ইতিহাস আছে। কিন্তু অভিবাসন পদ্ধতি খুব খারাপভাবে ভেঙে ফেলা হয়েছে দীর্ঘ সময় ধরে।

ট্রাম্প আরও বলেছেন, তার নির্বাচনী প্রচারণায় তিনি অভিবাসন নীতি বা পদ্ধতি ঠিক করার অঙ্গীকার করেছিলেন।

তিনি বলেছেন, “আমার সেই প্রতিশ্রুতি পালন করার ইচ্ছা রয়েছে।”

তার বক্তব্য হচ্ছে, তিনি তার প্রস্তাবের মাধ্যমে কংগ্রেসকে সরকারের কার্যক্রমের শাট ডাউন থেকে বেরিয়ে আসার একটা উপায় করে দিলেন। কিন্তু তিনি আবারও সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের পক্ষে যুক্তি তুলে ধরেন।

যদিও তিনি বলেছেন, এই দেয়াল পুরো সীমান্ত জুড়ে নয়, এটি সীমান্তের অগ্রাধিকার এলাকায় করা হবে। তবে তিনি ওই ৫৭০ মিলিয়ন ডলারের দাবির কথাই তুলে ধরেন।

ডেমোক্র্যাটরা কি বলেছে?

ট্রাম্পের বক্তব্য শেষ হওয়ার আগেই তার প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন ডেমোক্র্যাটরা।

ডেমোক্রেটিক হাউজের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি এক বিবৃতিতে বলেছেন, “দুর্ভাগ্যজনক যে, ট্রাম্পের প্রস্তাব যেগুলো অতীতে প্রত্যাখ্যাত হয়েছে, এখন সেগুলোই সংকলন করে তিনি আবার প্রস্তাব দিয়েছেন।”

তিনি আরও বলেছেন, এই প্রস্তাব অগ্রহণযোগ্য। এটি মানুষের জীবনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারবে না বলে তারা মনে করেন।”

বৃহস্পতিবার অমর একুশে বিনম্র শ্রদ্ধায় ভাষা শহীদদের স্মরণ চকবাজারে ভয়াবহ আগুন, মৃতের সংখ্যা ৬৯ যুক্তরাষ্ট্রকে সতর্ক করে দিলেন পুতিন একুশ আমাদের মাথা নত না করা শিখিয়েছ: প্রধানমন্ত্রী শামীমা বেগমকে নিয়ে এত হইচই কেন? সৌদি-ভারত সম্পর্ক জিনগত: সৌদি যুবরাজ ১২ দেশে ১২ বার বিয়ে! মালয়েশিয়ায় অগ্নিকাণ্ডে বাংলাদেশিসহ ৬ জনের মৃত্যু খালেদা জিয়ার মুক্তি কবে? তোপের মুখে বিএনপি নেতারা ‘শত্রুর চোখে দেখলে সেই চোখ উপড়ে ফেলা হবে’ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫ শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিষ্কার খালেদা জিয়াকে জেলে রাখার বিচার হবে: ফখরুল উপজেলায় দ্বিতীয় ধাপে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হচ্ছেন ২৪ প্রার্থী শহর পরিচ্ছন্ন রাখতে নাগরিকদেরই সচেতন হতে হবে: সাঈদ খোকন ইভটিজিংয়ের সাজা সূর্যের দিকে তাকিয়ে থাকা! মায়ের প্রেমিককে ছুরি মেরে খুন সড়কে গ্যাস লাইন ফেটে দুই বাসে আগুন সন্ত্রাবাদ সবার জন্যই হুমকি: বিন সালমান ঊনিশেই কোটিপতি! একুশে পদক প্রদান করলেন প্রধানমন্ত্রী ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে যুগান্তরের সাংবাদিক গ্রেপ্তার ‘৯৮ শতাংশ হাসপাতাল অগ্নিকাণ্ডের ঝুঁকিতে’ চতুর্থ ধাপে ১২২ উপজেলায় ভোট ৩১ মার্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান করতে অনুমতির বিষয়ে ভাবছে সরকার : শিক্ষামন্ত্রী ‘খালেদা জিয়া ঘুমাচ্ছেন, তাই হাজির করা যায়নি’ জামায়াতকে আশ্রয় দেয়ার জন্য বিএনপিরও ক্ষমা চাওয়া উচিত: তথ্যমন্ত্রী একাত্তরের ভূমিকার জন্য জামায়াতের ক্ষমা চাওয়া উচিত: নজরুল ইসলাম খান আরো ৫ শতাধিক ইয়াবা কারবারি শনাক্ত দীর্ঘ বিরতির পর ফের মঞ্চে ‘হাছনজানের রাজা’