artk
শুক্রবার, জুন ২৬, ২০১৫ ১:২৪

ডাক্তার হয়ে রোগীদের মুখে হাসি ফোটাবে অর্পা

media

পটুয়াখালী: স্বপ্নই মানুষকে তার লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে নিয়ে যায়, অবিচল রাখে। আর সেই স্বপ্ন যদি হয় মানুষের কল্যাণের জন্য তবে তা নিঃসন্দেহে অনেক বড়, অনেক মহৎ। এমনই এক স্বপ্নচারীর নাম ফাতিহা বিনতে হাবিব অর্পা। যারা জটিল রোগে আক্রান্ত অথচ গরীব, তাদের মুখে হাসি ফোটাতে চায় অর্পা। এ জন্য সে ডাক্তারের মতো মহৎ পেশাকেই বেছে নিতে চায়।

অর্পা এবার পটুয়াখালী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসিতে জিপিএ-৫ পেয়ে মেধা তালিকায় উত্তীর্ণ হয়েছে। তার বাবা আলহাজ্ব মো. হাবিবুর রহমান  সোনালী ব্যাংকের জেনারেল ম্যানেজার। মা আলহাজ্ব সামসুননাহার পটুয়াখালীর অনির্বাণ সমাজ উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক।

বাবা-মা আর বড় দুই ভাইসহ সবার কাছেই অর্পার এই ফলাফল প্রত্যাশিত ছিল। বিশেষ করে তার শিক্ষকরা তাকে নিয়ে খুব আশাবাদী ছিলেন। সেই আশার প্রতিদান দিয়েছে মেয়েটি।

স্বপ্নের প্রাথমিক শর্ত তো পূরণ হয়েছে, এবার মূল লক্ষ্যের দিকে যাত্রা। সেই লক্ষ্যকে সামনে রেখেই আবর্তিত হচ্ছে তার যাবতীয় চিন্তা আর কার্যক্রম।

অর্পার ভাষ্য- গরীব মানুষের কষ্ট আমাকে ভীষণ ব্যথিত করে। বিশেষ করে যারা টাকার অভাবে জটিল রোগের চিকিৎসা করাতে পারে না তাদের অসহায়ত্ব দেখে আমার কান্না পায়। আমি তাদের সেই কষ্ট ঘোচাতে চাই। ভবিষ্যতে ডাক্তার হয়ে সেইসব মানুষের সেবা করতে চাই।

সব পেশাতেই মানবসেবার সুযোগ থাকলেও চিকিৎসা মাধ্যমটিতে এ সুযোগ সবচেয়ে বেশি বলে মনে করে অর্পা। আর এই স্বপ্নপূরণে সব সময় উৎসাহ দিয়ে চলেছেন তার বাবা-মা।

অবরোধের মধ্যে পরীক্ষা দিতে হয়েছে, বার বার তারিখ পরিবর্তনে মানসিক যন্ত্রণায় ভুগতে হয়েছে তাকে। ফল প্রকাশের আগের রাতে প্রচণ্ড ভয় লাগছিল। অর্পার ভাইরা ইন্টারনেট থেকে তাকে প্রথম তার ভালো ফলাফলের খবরটি জানায়। খুশি হওয়ার পাশাপাশি প্রিয় বন্ধুদের মধ্যে একজন অপেক্ষাকৃত কম মেধা তালিকায় উত্তীর্ণ হওয়ায় খুব কষ্ট পেয়েছে শান্তশিষ্ট এই মেয়েটি।

হলিক্রস, ভিকারুন্নেসা, আইডিয়ালসহ কয়েকটি কলেজে ভর্তি প্রক্রিয়ায় অংশ নিয়েছে সে। 

স্কুলে থাকাকালীন তার ঘনিষ্ঠ বন্ধু যারা ছিল তাদের থেকে অর্পা এখন বিচ্ছিন্ন, একা। কাঁধে ব্যাগ ভর্তি বই নিয়ে বন্ধুদের সাথে ফটোকপির দোকান, প্রাইভেট শিক্ষকের কাছে যাওয়া, ছুটোছুটি, হৈ-হুল্লোড়- সেই দিনগুলো খুব মিস করছে সে। প্রিয় বন্ধুরা সবাই পটুয়াখালীতে, একমাত্র অর্পাই এখন ঢাকায়। তবে আশার কথা- বাণিজ্য বিভাগের এক ক্লাশমেট ঢাকায় ভর্তি হওয়ার জন্য এসেছে।

ইংরেজি ও পদার্থবিদ্যা বিষয় দুটি অর্পার খুব প্রিয়। তবে রসায়নে মাঝে মধ্যে বিরক্ত হয় সে। পাঠ্য বইয়ের বাইরে সে পত্রিকা পড়ে।

২৪ ঘন্টার মধ্যে ১৪ ঘন্টা পড়তে হয়েছে তাকে। টিভি  দেখা থেকে দূরে থাকলেও মাঝে মধ্যে প্রিয় শিল্পী তাহসানের গান শুনত সে। কার্টুনও তার খুব প্রিয়। 

পড়াশোনার জন্যই সকালে বাসা থেকে বের হওয়া আর সন্ধ্যায় ঘরে ফেরা। এছাড়া ছিল বন্ধুদের সঙ্গে গ্রুপ স্ট্যাডি।

অর্পা জানায়, তার ফলাফলের পেছনে মায়ের অবদান সবেচেয়ে বেশি। মা সব সময় তার প্রতি লক্ষ্য রাখতেন।

অর্পার শেষ বাক্যটি আরও আশাজাগানিয়া, আরও মর্মস্পর্শী- শুধু ডাক্তার নয়, ডাক্তার হওয়ার পাশাপাশি আমি একজন ভালো মানুষ হতে চাই, সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন।

নিউজবাংলাদেশ.কম/কেএইচ/এফই

যুক্তরাষ্ট্রকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিল হুয়াওয়ে ‘ভারত বুঝুক, হারের পর সামনে এসে উল্লাস করলে কেমন লাগে’ মৎস্য কর্মকর্তা লাঞ্ছিত, উপজেলা চেয়ারম্যান বরখাস্ত নারায়ণগঞ্জে শিশুসহ একই পরিবারের দগ্ধ ৮ নায়ক মান্না চলে যাওয়ার ১ যুগ করোনায় মৃত্যুর মিছিলে আরও ১০০ জন বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে ২ মেডিক্যাল শিক্ষার্থী নিহত ইঁদুরেই খেয়েছে ১ লাখ মেট্রিক টন ফসল করোনাভাইরাস আতঙ্কে সিঙ্গাপুরফেরত স্বামীকে রেখে পালালেন স্ত্রী ঘুষের অভিযোগ থেকে সিনহাকে অব্যাহতি কোভিড ১৯: এবার তাইওয়ানে প্রথম মৃত্যু ভোটাররা দেরিতে ঘুম থেকে উঠায় ভোট হবে ৯টায়: ইসি সচিব এই সেলফি তোলার পরেই ট্রেনের ধাক্কায় স্কুলছাত্রের মৃত্যু করোনাভাইরাস: প্রযুক্তিই চীনের শেষ ভরসা সঞ্চয়পত্রে নয়, সুদ কমেছে ডাকঘর সঞ্চয় স্কিমের: অর্থ মন্ত্রণালয় বিশ্বকাপজয়ী ৬ ক্রিকেটার নিয়ে বিসিবি একাদশ ঘোষণা সিরাজগঞ্জে বাস খাদে পড়ে নিহত ৩ চট্টগ্রাম, বগুড়া ও যশোর সিটিতে ভোট ২৯ মার্চ করোনাভাইরাস শনাক্তে বাংলাদেশকে উন্নত কিটস দেবে চীন একত্রে কাজ করবে ডিএসই ও সিএসই বিশ্রামে রিয়াদ, ফিরলেন তাসকিন-মোস্তাফিজ করের বকেয়া অর্থ না দেয়াও দুর্নীতি: দুদক চেয়ারম্যান দক্ষদের নিয়োগ দিচ্ছে টেসলা, ডিগ্রি না হলেও চলবে খালেদা জিয়ার প্যারোল আবেদন সরকার পায়নি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চিকেন পক্স হলে কী খাবেন বাংলা তারিখ ব্যবহারে নিষ্ক্রিয়তা কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট কারিগরি শিক্ষার্থীদের বেশি গুরুত্ব দেয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ডিএসইএক্সের সেরা দ্বিতীয় উত্থান মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে তৃতীয় মেয়াদে শপথ নিলেন কেজরিওয়াল ফিটনেস ও নিবন্ধনহীন গাড়ি বন্ধে সব জেলায় টাস্কফোর্স গঠনের নির্দেশ