artk
সোমবার, আগষ্ট ১৯, ২০১৯ ৩:৩৫   |  ৪,ভাদ্র ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ১৭, ২০১৯ ২:২৩

যা কিছু প্রয়োজন মেটানো হচ্ছে, দুর্নীতি কেন: প্রধানমন্ত্রী

media

ফাইল ফটো

যা কিছু প্রয়োজন, সেটা মোটানো হচ্ছে, এর পরও কেন দুর্নীতি- এই প্রশ্ন তুলেছেন মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদের মতো দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টেলারেন্সের কথাও জানান টানা তৃতীয়বারের মতো প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেয়া আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে সচিবালয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে গিয়ে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। এই মন্ত্রণালয়টি প্রধানমন্ত্রী নিজের হাতে রেখেছেন। 

টেকসই উন্নয়নের জন্য সুশাসন প্রতিষ্ঠা ও দুর্নীতিমুক্ত প্রশাসন গড়ে তোলার ওপর জোর গুরত্বারোপ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের মতো দুর্নীতির বিরুদ্ধেও জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে সরকার।” 

এসময় দুর্নীতি দমনে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ার হুঁশিয়ারি দেন শেখ হাসিনা। প্রশাসনের সব পর্যায়ে স্বচ্ছতা ও জাবাবদিহি নিশ্চিত করার ঘোষণা দিয়ে দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য দেন তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, “সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতির যেমন আমরা ঘোষণা দিয়েছি, তেমনি দুর্নীতির বিরুদ্ধেও আমি জিরো টলারেন্স নীতি ঘোষণা দিয়েছি।”

‘এই কারণে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী সবার জন্য বেতন-ভাতা থেকে শুরু করে সবকিছু ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি করা হয়েছে’ উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, “আমি তো মনে করি, এখন আর ওই দুর্নীতির প্রয়োজন নাই। যা প্রয়োজন সেটা তো আমরা মেটাচ্ছি। তাহলে দুর্নীতি কেন হবে? কাজেই এখানে মানুষের মন-মানসিকতাটা পরিবর্তন করতে হবে। এবং সুনির্দিষ্ট একটা নির্দেশনা- আপনাদের যেতে হবে একেবারে তৃণমূল পর্যায় পর্যন্ত যে, কেউ যদি এ ধরনের দুর্নীতিগ্রস্ত হয় সঙ্গে সঙ্গে তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে হবে।”

দেশকে উন্নয়নের পথে এগিয়ে নিতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের দায়িত্ব স্মরণ করিয়ে দিয়ে সবার সহযোগিতা কামনা করেন প্রধানমন্ত্রী।

 

 

হামলার পরেও মৌলিক সেবা থেকে বঞ্চিত করেছে- ভিপি নুর রাতে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী গুগল ম্যাপের সাহায্যে বাড়ি ফিরলো মেয়েটি নবম ওয়েজ বোর্ড নিয়ে আপিলের আদেশ মঙ্গলবার ধর্ষণের থেকে মুক্তি চাইতে গিয়ে ভাইয়ের কাছেও... রাজধানীতে ‘আল্লাহর সরকার’ ৪ জঙ্গি আটক ২০৫০-মধ্যে তলিয়ে যেতে পারে জাকার্তা মার্কিনকে চাপ অগ্রাহ্য করে জিব্রাল্টার ছাড়ল ইরানি ট্যাংকার কনস্টেবলের লক্ষ্যভ্রষ্ট গুলি এএসপির বাসায় স্বামীর লাশ দেখে মারা গেলেন স্ত্রীও পদ্মায় ফেরি-লঞ্চ সংর্ঘষ, অল্পের জন্য বেঁচে যান ৩ শতাধিক যাত্রী মেসিকে খুশি রাখতেই নেইমার ‘নাটক’ জেলা প্রশাসকের কাছে সততার পুরস্কার পেলেন অটোচালক সিরাজগঞ্জে কাপড় ব্যবসায়ীর স্ত্রী-কন্যা নিখোঁজ পেয়ারা পাড়তে গিয়ে স্কুলছাত্রীর করুণ মৃত্যু খুলনার সঙ্গে রেল যোগাযোগ বন্ধ ভারত পরমাণু যুদ্ধ বাধাতে পারে: ইমরান খান রাঙামাটিতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে সেনা সদস্য নিহত এক মাসেই তিনবার বাড়লো সোনার দাম ছাত্রদলের নেতেৃত্বে আসতে মনোনয়নপত্র কিনলেন ১০৮ জন ‘অদৃশ্য খুঁটির’ জোরে ৪ লাখ টাকার গাছ ৮০ হাজার টাকায় বিক্রি সিপিডির ভবনে এডিস মশার লার্ভা, ২০ হাজার টাকা জরিমানা শোক দিবসের আলোচনা সভা করবেন ড. কামাল চামড়া শিল্পে আপাতত সমস্যা নেই: শিল্পমন্ত্রী শোক দিবসের অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগের রক্তদান সোমবার রাতে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অতিরিক্ত ডিআইজি হলেন পুলিশের ২০ কর্মকর্তা এএসপির মেয়ের টেবিলের ওপর আঘাত হানলো কনস্টেবলের গুলি চামড়া বিক্রি বন্ধের সিদ্ধান্তে নেই আড়তদাররা দেশে এলো কলকাতায় নিহত ২ বাংলাদেশির মরদেহ