artk
শুক্রবার, সেপ্টেম্বার ২০, ২০১৯ ১১:৪৮   |  ৫,আশ্বিন ১৪২৬

দেবদুলাল মুন্না

শনিবার, জানুয়ারি ৫, ২০১৯ ১০:২৫

সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম কী কিছুটা অভিমান নিয়েই চলে গেলেন?

media

দেবদুলাল মুন্না

ঢাকা থেকে মাওয়া যেতে যতক্ষণ লাগে ঢাকা থেকে ব্যাংকক যেতে প্লেনে ততোক্ষণই লাগে। কোনো আওয়ামী লীগ নেতা যাননি তাকে দেখতে যতোটুকু আমি জানি। 

১. সৈয়দ আশরাফ লন্ডনে শিক্ষাজীবনে কমিউনিস্ট পার্টির সাথে যুক্ত ছিলেন। তখন পরিচয় ও প্রেম শীলা ঠাকুরের সাথে। গতবছর তার ব্রিটিশ-ভারতীয় স্ত্রী শীলা ঠাকুর মারা যান। শীলা ঠাকুর ব্রিটেনে শিক্ষকতা করতেন। তাদের এক মেয়ে রীমা ঠাকুর লন্ডনের এইচএসবিসি ব্যাংকে চাকরি করেন।

পরে সিভিল ম্যারেজ করেন। অসাম্প্রদায়িক ছিলেন। তার স্ত্রী মারা যাওয়ার পর একটু একাকীই হয়ে পড়েন তিনি। মেয়ে লন্ডনে সেটেলড হতে বললেও হননি। ছিলেন রাজনীতির সাথে যুক্ত। কিন্তু কেমন যেন কোণঠাসা। 

২. সোহেল তাজ যখন স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী পদ থেকে আদর্শিক কারণে পদত্যাগ করেন তখন শেখ হাসিনা তাকেই সোহেল তাজের কাছে পাঠিয়েছিলেন সে কারণে যে সোহেল তাজের মতো পরিচ্ছন্ন রাজনীতি তিনিও করেন। তাই। যাহোক, সৈয়দ আশরাফ সোহেল তাজকে ম্যানেজ করতে পারেননি।

কিন্তু একটু হতাশা তখন থেকেই ছিল তার।

৩. রাজনৈতিক হতাশার কারণে দলের মধ্যে একটু নীরবই ছিলেন। সাধারণ সম্পাদক পদে তাকে না রাখার কারণে তিনি হতাশ হননি এমনটিই আশা করেছিলেন কিন্তু মেনে নিয়েছিলেন।

৪, একটি প্রভাবশালী দৈনিকের সম্পাদকের অডিও সংলাপ গতবছর ফাঁস হয়েছিল। যে সম্পাদকের সাথে সৈয়দ আশরাফের ভালো সম্পর্ক একসময় ছিল। সেই অডিও ইউটিউবে ছড়িয়ে পড়েছিল। সেই অডিওতে সেই সম্পাদক পত্রিকার এক সহযোগী সম্পাদককে বলেছিলেন, ‌তার ক্লিন ইমেজের জন্য আমরা তাকে অনেক কনসিডার করেছি। কিন্তু আর নয়। তাকে আর কনসিডার করা যাবে না। সে একটা বদ। তাকে নিয়ে রিপোর্ট করার ব্যবস্থা করো।

৫. জেলখানায় হত্যা করা হয়েছিল যে চার জাতীয় নেতাকে তাদের মধ্যে অন্যতম সৈয়দ নজরুল ইসলাম তার বাবা ছিলেন। তার মৃত্যু তাকে আজীবন তাড়িত করেছে এবং মৃত্যুভয়ও কাজ করতো তার। 

এসব তথ্য তার পরিবারের এক সদস্যের কাছ থেকে অনেক আগেই শুনেছিলাম। একদিন দেখা হয়েছিল সংসদ ভবন এলাকায়। দেখেই ভালো লেগেছিল। ‌‌ ‌‌‌ ‌‌

চা ঠাণ্ডা হয়ে যাচ্ছে চা খান, --এমন আন্তরিক আহ্বান একজন মন্ত্রীর কাছ থেকে শুনিইনি বলা যায়। 

কেন যেন তাকে আমার আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে বরাবরই কোণঠাসা মনে হয়েছিল। আমার ধারণা ভুল হতে পারে। 

আমার এমনও মনে হচ্ছে তিনি অনেক অভিমান নিয়ে চলে গেলেন। ঢাকা থেকে মাওয়া যেতে যতক্ষণ লাগে ঢাকা থেকে ব্যাংকক যেতে প্লেনে ততোক্ষণই লাগে। কোনো আওয়ামী লীগ নেতা যাননি তাকে দেখতে যতোটুকু আমি জানি। 

স্যালুট ও ভালোবাসা এই নির্মোহ মানুষটিকে।

ঠাকুরগাঁও সীমান্তে বাংলাদেশিকে পিটিয়ে মারলো বিএসএফ রাজশাহীর বড়াল নদী থেকে নারীসহ ৪ লাশ উদ্ধার বাংলা ভালো থাকলে গোটা ভারত ভালো থাকবে, এনআরসি প্রসঙ্গে মমতা বাবা হয়েছেন ভিপি নুর নিজ অঞ্চল থেকে ৭শ কিলোমিটার দূরের কারাগারে রাখা হয়েছে কাশ্মীরি বন্দিদের ওয়াশিংটনে বন্দুক হামলায় নিহত ১ ‘গরিবের ছেলের এমন অসুখ হলে বাঁচবে কীভাবে’ ডিজিটাল বাংলাদেশের দ্বিতীয় পর্যায় কক্সবাজারে সিএনজি-লেগুনা সংঘর্ষে মা-ছেলে নিহত কক্সবাজারে ব্র্যাক কর্মী খুন খুলনায় ডেঙ্গু জ্বরে গৃহবধূর মৃত্যু গোপন কুঠুরিতে ৩৩ লাখ টাকা রেখে মারা গেছেন বিআরটিএর কর্মকর্তা বিপর্যয়ের মুখে জাতিসংঘ সফর বাতিল করেছেন নেতানিয়াহু ছাত্রলীগের পর যুবলীগকে ধরেছি: প্রধানমন্ত্রী ক্ষমা চাইলেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী ব্রিটিশ প্রতিনিধিদলের কাছে দেশের পরিস্থিতি তুলে ধরলো বিএনপি শিশুটির প্রতি মাদকাসক্ত বাবার নৃশংসতা প্রধানমন্ত্রীকে বিএনপির অভিনন্দন জানানো উচিত: তথ্যমন্ত্রী ক্যাসিনো: এবার সুর নরম করলেন যুবলীগের চেয়ারম্যান চাঁদা না পেয়ে মডেল মসজিদের নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দিলো ছাত্রলীগ! যুবলীগ নেতা খালেদ অস্ত্র ও মাদক মামলায় ৭ দিনের রিমান্ডে রোহিঙ্গারা বাংলাদেশের জন্য বড় ধরনের বোঝা: প্রধানমন্ত্রী বিমানবন্দরে মোদির স্ত্রীর দেখা, শাড়ি উপহার দিলেন মমতা মিথ্যা কথা বলে চীন থেকে ক্যাসিনো মেশিন আমদানি ধৃষ্টতা দেখালে পিঠের চামড়া থাকবে না: ছাত্রলীগ সভাপতি অপরাধী ধরতে প্রযুক্তির অভাব দুদকে যুবকের দুই হাতের কবজি কেটে নিল চেয়ারম্যানের ক্যাডাররা দুদক কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণে যুক্তরাষ্ট্র ‘বাংলাদেশে সাপ্লাই চেইন ফাইন্যান্স জনপ্রিয় হচ্ছে’ হংকংয়ের ইদান পুরস্কার পাচ্ছেন ফজলে হাসান আবেদ