artk
শুক্রবার, সেপ্টেম্বার ২০, ২০১৯ ১১:১৭   |  ৫,আশ্বিন ১৪২৬
শনিবার, আগষ্ট ১১, ২০১৮ ৫:২৯

ফৌজদারি মামলায় গ্রেপ্তার হলে কোথায় যাবেন, কি করবেন?

media

কিছু সাধারণ তথ্য জানিয়ে রাখি। যখনই কারো বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা হয় এবং সেই মামলায় সেই ব্যক্তি যদি গ্রেপ্তার হন তাহলে কোথায় যাবেন, কি করবেন? আইনজীবি নিজের উদ্যোগে কোন মামলা পরিচালনা করতে পারেন কিনা? অধিক সংখ্যক ব্যক্তি গ্রেপ্তার হলে কি কি সমস্যা মোকাবিলা করতে হয়? কথকতা ব্লগে বিস্তারিত লেখার অনুরোধ থাকায় এখানে কিছু সাম্প্রতিক বিষয়ে লিখছি।

প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের ২২ জন শিক্ষার্থী আটক ও তাদের রিমান্ড নিয়ে অনেকেই আমাদের/আমার কাছে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। অনেকেই অনুরোধ করেছেন তাদের মামলাগুলো যেন আমরা দেখি।

যতক্ষণ পর্যন্ত অভিযুক্ত ব্যক্তিকে আদালতে সোপর্দ করা না হচ্ছে ততক্ষণ পর্যন্ত একজন আইনজীবির তেমন কোন ভূমিকা রাখার সুযোগ নেই। তবে যদি আটক ব্যক্তি নিজে তার আইনজীবির সাথে পরামর্শ করতে চান, সেক্ষেত্রে আইনজীবি পুলিশ হেফাজতে গিয়ে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা নিতে পারবেন। এটি ব্লাস্ট বনাম বাংলাদেশ মামলায় সুপ্রিমকোর্ট বলে দিয়েছেন।
তাছাড়া, সংবিধানেও পরিস্কারভাবে বলা আছে আটক ব্যক্তির আইনজীবির সাথে পরামর্শ করতে পারার অধিকারের কথা। একটা প্রচলিত ভুল ধারণা হল পুলিশের কাছে রিমান্ডে থাকা অবস্থায় অভিযুক্ত ব্যক্তির সাথে আইনজীবির দেখা করার এক্তিয়ার নেই। এটি পুলিশের বানানো নিয়ম যার কোন আইনি ভিত্তি নেই।

মনে রাখবেন সংসদ কর্তৃক প্রণিত আইনকে প্রশাসনিক আদেশের অধীন করা যায় না। তাই পুলিশ বিভাগের কোন আদেশ/নির্দেশের মাধ্যমে ব্যক্তির সাংবিধানিক অধিকার খর্ব করা যাবে না। তবে মনে রাখবেন- আইনজীবি নিজে থেকে কখনো কোন মামলায় নাক গলাতে পারেন না, যদি না তাকে অভিযুক্ত ব্যক্তির পক্ষে নিয়োগ দেয়া হয়।

২২ জনকে নিম্ন আদালতে হাজির করার দিন আমরা কেউ আদালতে ছিলাম না, কেননা আমরা সবাই হাইকোর্ট এ প্র্যাকটিস করি। আমাদের জুনিয়র বন্ধুরা যারা নিম্ন আদালতে প্র্যাকটিস করেন তারাও জানতেন না কবে তাদের হাজির করা হবে। পরে খবর নিয়ে জানা যায় কেবল ২ জন শিক্ষার্থীর (মেহেদি, ইফতেখার) পক্ষে কোন আইনজীবি নেই। তাদের পক্ষে আমরা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। বাকী ২০ জনের পক্ষে বিভিন্ন আইনজীবি আছেন। তাদের কে বা কারা নিয়োগ দিয়েছেন তা আমাদের জানা নেই।

নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭ জন শিক্ষার্থীর বিষয়ে আমাদের সাথে যোগাযোগ করা হলে আমরা আদালতে খবর নিয়েছি, তাদেরও সবার আইনজীবি আছে।

আহসান উল্লাহ বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থী বাসা থেকে বের হয়ে কোচিং এ যাওয়ার পথে গ্রেফতার হয়েছেন। তার বাবা নিজে এসেছিলেন আমার কাছে। তিনিও আগেই আইনজীবি নিয়োগ দিয়েছেন। আমি তাকে বুঝিয়ে বলেছি কি করতে হবে, আমাদের দ্বারা মামলা পরিচালনা করতে হলে কি করতে হবে। আশা করি তিনি সে অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

এ পর্যন্ত নিজেদের গরজে শিক্ষার্থীদের সহযোগিতা করা উদ্দেশ্যে আমরা মোট ২১টি মামলার এজাহার (FIR) সংগ্রহ করেছি।

সব মামলা যদি একসাথে পরিচালনা করা যায় তাহলে সমন্বয় করা সহজ কিন্তু অন্য আইনজীবির হাতে থাকা মামলা আমরা আইনজীবি হিসেবে কোন সিদ্ধান্ত নেয়ার অধিকার রাখি না।

আশা করি, এই লেখা পড়ার পর আমাদের কাজ করার ইচ্ছা আছে এবিষয়ে কারো কোন সন্দেহ থাকবে না। আমি বা আমরা কাউকে আইনি সহায়তা দিতে অস্বীকার করিনি। এটা যেকোন ব্যক্তির সাংবিধানিক অধিকার।

জ্যোতির্ময় বড়ুয়া: আইনজীবী।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এএইচকে

বাংলা ভালো থাকলে গোটা ভারত ভালো থাকবে, এনআরসি প্রসঙ্গে মমতা বাবা হয়েছেন ভিপি নুর নিজ অঞ্চল থেকে ৭শ কিলোমিটার দূরের কারাগারে রাখা হয়েছে কাশ্মীরি বন্দিদের ওয়াশিংটনে বন্দুক হামলায় নিহত ১ ‘গরিবের ছেলের এমন অসুখ হলে বাঁচবে কীভাবে’ ডিজিটাল বাংলাদেশের দ্বিতীয় পর্যায় কক্সবাজারে সিএনজি-লেগুনা সংঘর্ষে মা-ছেলে নিহত কক্সবাজারে ব্র্যাক কর্মী খুন খুলনায় ডেঙ্গু জ্বরে গৃহবধূর মৃত্যু গোপন কুঠুরিতে ৩৩ লাখ টাকা রেখে মারা গেছেন বিআরটিএর কর্মকর্তা বিপর্যয়ের মুখে জাতিসংঘ সফর বাতিল করেছেন নেতানিয়াহু ছাত্রলীগের পর যুবলীগকে ধরেছি: প্রধানমন্ত্রী ক্ষমা চাইলেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী ব্রিটিশ প্রতিনিধিদলের কাছে দেশের পরিস্থিতি তুলে ধরলো বিএনপি শিশুটির প্রতি মাদকাসক্ত বাবার নৃশংসতা প্রধানমন্ত্রীকে বিএনপির অভিনন্দন জানানো উচিত: তথ্যমন্ত্রী ক্যাসিনো: এবার সুর নরম করলেন যুবলীগের চেয়ারম্যান চাঁদা না পেয়ে মডেল মসজিদের নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দিলো ছাত্রলীগ! যুবলীগ নেতা খালেদ অস্ত্র ও মাদক মামলায় ৭ দিনের রিমান্ডে রোহিঙ্গারা বাংলাদেশের জন্য বড় ধরনের বোঝা: প্রধানমন্ত্রী বিমানবন্দরে মোদির স্ত্রীর দেখা, শাড়ি উপহার দিলেন মমতা মিথ্যা কথা বলে চীন থেকে ক্যাসিনো মেশিন আমদানি ধৃষ্টতা দেখালে পিঠের চামড়া থাকবে না: ছাত্রলীগ সভাপতি অপরাধী ধরতে প্রযুক্তির অভাব দুদকে যুবকের দুই হাতের কবজি কেটে নিল চেয়ারম্যানের ক্যাডাররা দুদক কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণে যুক্তরাষ্ট্র ‘বাংলাদেশে সাপ্লাই চেইন ফাইন্যান্স জনপ্রিয় হচ্ছে’ হংকংয়ের ইদান পুরস্কার পাচ্ছেন ফজলে হাসান আবেদ গ্রেফতার হতে পারেন ঢাকা দ.যুবলীগ সভাপতি সম্রাট আইফায় সেরা রণবীর-আলিয়া