artk
সোমবার, মে ২৫, ২০১৫ ৩:০৯

‘বজ্র আঁটুনি, ফসকা গেরো’

media

ঢাকা: মাদক ও মানবপাচার রোধে দেশের সমুদ্র সীমায় ও উপকূলবর্তী এলাকাগুলোতে বরাবরই ‘বজ্র আঁটুনি’ দিয়ে রেখেছে সরকার, যার ধারাবাহিকতায় শক্তিশালী নৌবাহিনী থাকা সত্ত্বেও গঠন করা হয় কোস্টগার্ড। কিন্তু নানা সীমাবদ্ধতায় সরকারের এই ‘বজ্র আঁটুনি’ মুহূর্তেই ‘ফসকা গেরো’ হয়ে উঠছে পাচারকারীদের কাছে। আর এই ‘ফসকা গেরো’ দিয়েই হচ্ছে মানব পাচার ও মাদক পাচারের মতো ভয়ঙ্কর সব অপরাধ।

 

সরকারের যত বজ্র আঁটুনি
নতুন বাহিনী গঠন: নৌপথে বাংলাদেশের সীমানা রক্ষায় নৌবাহিনী নিয়োজিত থাকলেও সুন্দরবনের নদ-নদীসহ দেশের জলভাগের ১ হাজার ৭০০ বর্গকিলোমিটারি এলাকার নিরাপত্তা এবং অপরাধ দমনে ১৯৯৫ সালে গঠন করা হয় কোস্টগার্ড নামের বিশেষ এক বাহিনী। দেশের ১৯টি জেলার বিশাল উপকূলের নিরাপত্তা ও অপরাধ দমনই এ বাহিনী গঠনের প্রধান উদ্দেশ্য।

পাস করা হয় নতুন আইন: মানব পাচার প্রতিরোধ ও দমনে ২০১২ সালে একটি আইনও পাস করেছে সরকার, যা এখনো স্বরাষ্ট্র মন্ত্রাণালয়ে পৌঁছেনি।

বজ্র আঁটুনি যেভাবে ফসকা গেরো:
সরকারের এই ‘বজ্র আঁটুনি ফসকা গেরো’ হওয়ার পেছনে রয়েছে বেশ কিছু সীমাবদ্ধতা। এর মধ্যে রয়েছে জনবল সংকট, জলযান সংকট, স্টেশন অপ্রতুল্যতার মতো সীমাবদ্ধতা।

জনবল সংকট: দেশের বিশাল সমুদ্র সীমার দেখভালের দায়িত্বে রয়েছেন কোস্ট গার্ডে ২২ শ’ জনবল, যা প্রয়োজনের তুলনায় খুবই সামান্য বলে মনে করেন খোদ বাহিনীটির কর্তা ব্যক্তিরা। তাছাড়া বিশাল উপকূলীয় এ এলাকায় প্রায় তিন কোটি মানুষের বসবাস, যার অর্ধেকের বেশি মানুষ মৎস্য আহরণ করে জীবিকা নির্বাহ করে। এই হিসাবে সাড়ে সাত হাজার জেলের নিরাপত্তার দায়িত্বে রয়েছে মাত্র একজন কোস্টগার্ড সদস্য!

জলযান সংকট: কোস্ট গার্ডের ২২ শ’ জনবলের বিপরীতে রয়েছে ৭০টি সাধারণ বোট এবং ৩০ উচ্চগতির বোট। মজার ব্যাপার হচ্ছে- সমুদ্র তীরবর্তী ৭১০ কিলোমিটার এবং উপকূলসংলগ্ন প্রায় ৩৪ হাজার বর্গকিলোমিটার টহলের জন্য কোস্ট গার্ডের নিজস্ব কোন জাহাজ নেই। গভীর সমুদ্রে টহল দেওয়ার জন্য তারা নৌ-বাহিনীর পরিত্যাক্ত বা অপেক্ষাকৃত পুরাতন ও ধীরগতি সম্পন্ন জাহাজ ব্যবহার করে থাকে।

অভিযানে বাধা: কোস্ট গার্ড সমুদ্র সীমার উপকূলে সর্বচ্চ ১ কিলোমিটার পর্যন্ত অভিযান চালাতে পারে। কিন্তু কোন অপরাধী যখন উপকূলে ১ কিলোমিটার অতিক্রম করে চলে যায়, তখন কোস্ট গার্ডের কিছু করার থাকে না। ঠিক এই সুযোগটি কাজে লাগিয়েই অপরাধীরা পার পেয়ে যায় বলে অভিযোগ সংশ্লিষ্ট বাহিনীর।

নিজস্ব গোয়েন্দা সেল না থাকা: কোস্ট গার্ডকে একটি পৃথক বাহিনী হিসেবে গঠন করা হলেও এই বাহিনীটির নেই কোন নিজস্ব গোয়েন্দা সেল। আর এ কারণেই অপরাধীদের প্রসঙ্গে আগাম কোন তথ্য কোস্টগার্ড পায় না। রুটিন টহল থেকেই তাদের কার্যক্রম পরিচালিত করতে হয়।

স্টেশনের অপ্রতুলতা: উপকূলের ১৭টি জেলার অপরাধ নিয়ন্ত্রণে কোস্ট গার্ডের স্টেশন রয়েছে মাত্র ৪টি, যেখানে অন্তত ৩০টি স্টেশন থাকা দরকার বলে ধারণা কোস্টগার্ড বাহিনীর কর্তা ব্যক্তিদের।

কোস্ট গার্ডের উপ-পরিচালক যা বলেন:
কোস্টগার্ডের উপ-পরিচালক কমান্ডার একেএম মারুফ হাসান নিউজবাংলাদেশকে বলেন, “গত কয়েক বছর ধরেই মানবপাচার রোধে কোস্টগার্ড কার্যকর ভূমিকা রাখছে। চার বছরে বাংলাদেশ, মিয়ানমার ও থাইল্যান্ড থেকে অবৈধভাবে বিদেশগামী দেড় হাজারের বেশি সংখ্যক ব্যক্তিকে আটক করতে সমর্থ হয়েছে কোস্টগার্ড।”

বাহিনীর অসীম সীমাবদ্ধতার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, “প্রতিষ্ঠার দীর্ঘ সময় পেরিয়ে গেলেও বাহিনীটি স্বয়ংসম্পূর্ণ ও আধুনিক হয়নি। তবে বর্তমান সরকার কোস্টগার্ডের উন্নয়নে কাজ করছে। ইতিমধ্যেই একনেকের সভায় আমাদের উন্নয়নের জন্য ৪৬৮ কোটি টাকার বরাদ্দ পাস হেয়েছে। তাছাড়া নতুন ৪টি জলজান ইতালি থেকে কেনা হচ্ছে। এর মধ্যে ২টি জাহাজ আগামী বছর আসবে। এগুলো দেখে নারায়াণগঞ্জের জাহাজ তৈরি প্রতিষ্ঠানগুলো আরো ৪টি জাহাজ বানিয়ে দেবে। আর ইতালি থেকে বাকি দুটো জাহাজ আসবে ২০১৮ সালের মধ্যে।”

এদিকে কোস্টগার্ড সদর দপ্তর সূত্রে জানা যায়, নানা সীমাবদ্ধতা সত্ত্বেও মানবপাচার রোধে তারা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। ২০১১ সালের ডিসেম্বর থেকে ১৮ মে ২০১৫ পর্যন্ত অবৈধভাবে বিদেশগামী ১ হাজার ৭৩৬ জনকে আটক করেছে কোস্টগার্ড। এরমধ্যে গত ১২ মে কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে মালয়েশিয়াগামী ১১৬ জনকে আটক করে কোস্টগার্ড।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এনএইচ/এজে

পশুর চেয়েও নিকৃষ্ট ধর্ষক: প্রধানমন্ত্রী করোনা ভাইরাসের কারণে হজে যাওয়া না হলে টাকা ফেরত: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী দাঙ্গা নয়, দিল্লিতে পরিকল্পিত গণহত্যা হয়েছে: মমতা ভারতের সম্মান তলিয়ে দিয়েছে মোদি সরকার: মমতা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে সুনামগঞ্জে এনামুল-রুপন ছয় দিনের রিমান্ডে পিরোজপুরে সাবেক ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা চলতি বছরই তিস্তা চুক্তির সম্ভাবনা: শ্রিংলা ঢাকা উত্তরের নির্বাচন বাতিল চেয়ে তাবিথের মামলা খুলনায় ছাত্রলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা অভিনেতা গোলাম মুস্তাফার জন্মদিন সোমবার আদালতে টাউট-বাটপার শনাক্তের নির্দেশ পাওয়ার ট্রলিকে ধাক্কা দিয়ে বিকল রেলইঞ্জিন কলকাতা সফরে এসে প্রবল বিক্ষোভের মুখে অমিত শাহ রোবট চালাবে গাড়ি! ভিপি নূরকে হত্যার হুমকি দেয়ার পর দুঃখ প্রকাশ টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৭ জন নিহত রাখাইনপ্রদেশে সেনাদের গুলিতে শিশুসহ ৫ রোহিঙ্গা নিহত ইস্কাটনে ভবনে আগুন: মায়ের পর চলে গেলেন রুশদির বাবাও চট্টগ্রামে একটি বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ২ দেশে প্রতিদিন যক্ষ্মায় মারা যায় ১৩০ জন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনাভাইরাস আতঙ্কে আয়ারল্যান্ডের স্কুল বন্ধ ঘোষণা বিশিষ্ট সুরকার সেলিম আশরাফ আর নেই মোদীকে অতিথি হিসেবে সর্বোচ্চ সম্মান দেওয়া হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মধুর যত জাদুকরী গুণ চিপসের প্যাকেটের ভিতর খেলনা নয়: হাইকোর্ট আমার গাড়িতেও অস্ত্র আছে কী না আমি জানি না: শামীম ওসমান ফ্র্যান্সেও করোনা, অনিশ্চিত কান চলচ্চিত্র উৎসব উপনির্বাচন: গাইবান্ধা-৩ আসনে প্রতীক বরাদ্দ গুজব ও গণপিটুনি রোধে হাইকোর্টের ৫ নির্দেশনা