artk
রোববার, মে ১৭, ২০১৫ ৭:৪১

‘গরিব উন্নয়নে পরিকল্পনার অভাব’

media

ঢাকা: দেশের প্রবৃদ্ধির ধারা অব্যহত থাকলেও গরিব মানুষের উন্নয়নে সার্বিক পরিকল্পনার অভাব আছে এমন মন্তব্য করে বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন বলেছেন, সাম্প্রদায়িক জঙ্গিবাদী বিএনপি-জামায়াতের সকল সড়যন্ত্র ব্যর্থ করে দিয়ে সাধারণ মানুষের পরিশ্রমের ওপর ভিত্তি করে দেশ এগুলেও তাদের উন্নয়ন হচ্ছে না।

রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টি আয়োজিত ‘সামাজিক সুরক্ষা গরীবমুখী উন্নয়ন, শিক্ষা, স্বাস্থ্য সেবা সহ জনমুখী বাজেটের দাবিতে ৭ দফা দাবি’ শীর্ষক বাজেট সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

দুর্নীতিই সকল উন্নয়নের প্রধান বাধা উল্লেখ করে তিনি বলেন, “দুর্নীতি দমনে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করে  বাজেটে সারা দেশের শ্রমজীবী গরিব মানুষের উন্নয়নের বিষয়কে প্রাধান্য দিতে হবে।”

বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধির পরিকল্পনা বন্ধ করার আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, “বিদ্যুৎ সংকটের স্থায়ী সমাধানের দিকে যেতে কুইক রেন্টালের মতো অস্থায়ী ব্যবস্থায় অধিক হারে ভর্তুকি দিয়ে বিদ্যুৎ ব্যবস্থায় অহেতুক ব্যয় বাড়ানো যাবে না।”

এ সময় তিনি বলেন, “গণশুনানিতেও  মূল্যবৃদ্ধির বিরুদ্ধেই অভিমত এসেছে। এমনকি আন্তর্জাতিক বাজারেও তেলের মূল্য কমেছে। তাই বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধি থেকে বিরত থাকতে হবে।”

আওয়ামী লীগ ঘুম-খুনের রাজনীতি করে না উল্লেখ করে মেনন বলেন, “সালাউদ্দিনের ঘটনায়ই বিএনপি ধরা খেয়েছে, এবার ইলিয়াস আলীকে বের করে দিন।”

মেয়রদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, “হকার উচ্ছেদের আগে বিকল্প ব্যবস্থা না করে হকারদের উচ্ছেদ করা যাবে না। গরীবের পেটে লাথি মারবেন না।”

ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক কমরেড ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, “বাজেট আসার আগে থেকেই অর্থমন্ত্রী দেশের সব মানুষকে করের আওতায় আনার যে ভীতিকর পরিকল্পনার কথা বলছেন। তা বন্ধ না করলে সাধারণ মানুষ সরকারের উপর আস্থা হারাবে।”

তিনি আরও বলেন, “কৃষকরা হাড়-ভাঙা পরিশ্রম করে ধান-গম উৎপাদন করে । তাদের ওপর করের বোঝা চাপিয়ে দিলে সাধারণ মানুষ কোথায় যাবে।”

সমাবেশ থেকে যেসব দাবি জানানো হয়, তাহলো-বিদ্যুৎ গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি করা যাবে না, বিদ্যুৎ খাতে চুরি ,দুর্নীতি বন্ধ করতে হবে। পল্লী বিদ্যুতের মূল্য কমাতে হবে, পল্লি অঞ্চলের বিদ্যুতের জন্য বাজেট বরাদ্দ দিতে হবে। গ্রাম-শহরে গরিবের জন্য পূর্ণাঙ্গ রেশনিং ব্যবস্থা চালু করতে হবে। সমতল আদিবাসীদের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে ৫০০০ কোটি টাকা থেকে বরাদ্দ দিতে হবে।

এছাড়া শিক্ষা খাতে, কারিগরি শিক্ষা খাতে বাজেট বাড়ানোসহ ৭ দফা দাবি উত্থাপন করা হয়।

আগামী ২০ তারিখে সারা দেশের সকল জেলায় মিছিল ও স্মারকলিপি প্রদান করা হবে বলে সমাবেশ থেকে জানানো হয়।

সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরো সদস্য  বিমল বিশ্বাস, নুরুল হাসান, নূর আহমেদ বকুল, ঢাকা মহানগর  সাধারণ সম্পাদক কমরেড কিশোরা রায় প্রমুখ।

নিউজবাংলাদেশ.কম/টিএ/কেজেএইচ
 

পশুর চেয়েও নিকৃষ্ট ধর্ষক: প্রধানমন্ত্রী করোনা ভাইরাসের কারণে হজে যাওয়া না হলে টাকা ফেরত: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী দাঙ্গা নয়, দিল্লিতে পরিকল্পিত গণহত্যা হয়েছে: মমতা ভারতের সম্মান তলিয়ে দিয়েছে মোদি সরকার: মমতা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে সুনামগঞ্জে এনামুল-রুপন ছয় দিনের রিমান্ডে পিরোজপুরে সাবেক ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা চলতি বছরই তিস্তা চুক্তির সম্ভাবনা: শ্রিংলা ঢাকা উত্তরের নির্বাচন বাতিল চেয়ে তাবিথের মামলা খুলনায় ছাত্রলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা অভিনেতা গোলাম মুস্তাফার জন্মদিন সোমবার আদালতে টাউট-বাটপার শনাক্তের নির্দেশ পাওয়ার ট্রলিকে ধাক্কা দিয়ে বিকল রেলইঞ্জিন কলকাতা সফরে এসে প্রবল বিক্ষোভের মুখে অমিত শাহ রোবট চালাবে গাড়ি! ভিপি নূরকে হত্যার হুমকি দেয়ার পর দুঃখ প্রকাশ টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৭ জন নিহত রাখাইনপ্রদেশে সেনাদের গুলিতে শিশুসহ ৫ রোহিঙ্গা নিহত ইস্কাটনে ভবনে আগুন: মায়ের পর চলে গেলেন রুশদির বাবাও চট্টগ্রামে একটি বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ২ দেশে প্রতিদিন যক্ষ্মায় মারা যায় ১৩০ জন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনাভাইরাস আতঙ্কে আয়ারল্যান্ডের স্কুল বন্ধ ঘোষণা বিশিষ্ট সুরকার সেলিম আশরাফ আর নেই মোদীকে অতিথি হিসেবে সর্বোচ্চ সম্মান দেওয়া হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মধুর যত জাদুকরী গুণ চিপসের প্যাকেটের ভিতর খেলনা নয়: হাইকোর্ট আমার গাড়িতেও অস্ত্র আছে কী না আমি জানি না: শামীম ওসমান ফ্র্যান্সেও করোনা, অনিশ্চিত কান চলচ্চিত্র উৎসব উপনির্বাচন: গাইবান্ধা-৩ আসনে প্রতীক বরাদ্দ গুজব ও গণপিটুনি রোধে হাইকোর্টের ৫ নির্দেশনা