artk
রোববার, মে ১৭, ২০১৫ ৬:৪৫

জামায়াতে ডুবছে বিএনপি!

media

ঢাকা: মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত এবং ‘জঙ্গী’ তকমা পাওয়া জামায়াতের সাথে জোটবদ্ধ থাকার কারনেই বিএনপি কাঙ্খিত লক্ষ্য থেকে দূরে রয়েছে। লক্ষ্যের খুব কাছে গিয়েও পৌঁছুতে পারছে না। এমন মন্তব্য বিএনপি নেতাকর্মীদের।

বিএনপি-জামায়াত সম্পর্ক নিয়ে বিএনপির বিভিন্ন পর্যায়ের ৩০ জনের অধিক নেতাকর্মদের সাথে আলাপকালে তারা জানান, কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌছুতে এবং পূর্বের মতো একটি স্বনির্ভর শক্তিশালি রাজনৈতিক দল হিসেবে গড়ে ওঠার জন্য এখনই জামায়াতের সঙ্গ ত্যাগ করা উচিৎ। এমনকি ২০ দলীয় জোটও ভেঙ্গে দেয়ার পক্ষে মত দেন তারা।

আলাপকালে বিএনপির নেতাকর্মীরা বলছেন, সারা বিশ্বে কঠোর হস্তে জঙ্গী দমন অভিযান চলছে। আর যে সব দেশে জঙ্গী আছে, তা দমন এবং নির্মূল করার জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ও সেইসব দেশকে সহযোগীতা করছে। কোন দলে জঙ্গী সম্পৃক্ততা থাকলেই তাকে এক ঘরে করে ফেলা হচ্ছে।

তারা বলছেন, এক সময় বর্তমান ক্ষমাতসীন আওয়ামী লীগ জামায়াতকে সাথে নিয়ে বিএনপির বিরুদ্ধে আন্দোলন করেছে। পরবর্তীতে তারা জোট ভেঙ্গে জামায়াতকে বাদ দিয়ে নতুন জোট গঠন করেছে। সেই আওয়ামী লীগই এখন ক্ষমতায় বসে তাদের এক সময়ের মিত্র জামায়াত ইসলামীর সিনিয়র নেতাদের যুদ্ধাপরাধীর অভিযোগে বিচার করছে। আদালতের রায়ে তাদের কয়েকজনের সাজা, এমনকি ফাসিও হয়েছে। জামায়াত ইসলামীর প্রকাশ্য সকল কার্যাক্রম বন্ধ করে দিয়েছে। সারাদেশের কোন জামায়াতে কোন এ্যাকটিভিটি নেই। গণমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতি এবং ঝটিকা মিছিলেই সিমাবদ্ধ তাদের কার্যাক্রম। এমনকি রাজনৈতিক দল হিসেবে তাদের নিবন্ধনও এখন হুমকীর মুখে। সরকার আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে জামায়াতকে জঙ্গী সংগঠন হিসেবে দাড় করিয়ে তাদের বিপক্ষে সমর্থন আদায় করে নিয়েছে।

অথচ বিএনপি এখনো সেই জামায়াতের সাথেই জোট বেধে আছে। তাই যৌক্তিক ইস্যুতেও আন্তর্জাতিক সমর্থন পাচ্ছে না বিএনপি। এর সুফল পাচ্ছে আওয়ামী লীগ। আর এই জামায়াতের কারনেই বিএনপি ক্ষমতা থেকে দুরে রয়েছে।

বিএনপির নেতাকর্মীদের প্রশ্ন, জামায়াতকে কেন আকড়ে থাকতে হবে? তাদের মতে, "তিন বার রাষ্ট্র ক্ষমতায় যাওয়া বিএনপি দেশের সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দল। জামায়াতকে সাথে রাখায় বিএনপির ক্ষতির পাল্লাই ভারি হয়েছে। বিএনপি ছাড় দেয়ায় জামায়াত শক্তিশালি হয়েছে। কারন জামায়াত একা নির্বাচন করলে হাতে গোনা কয়েকটা সিট পেতো। কিন্তু জোটে থাকায় জামায়াত বেশি সিট পাচ্ছে। এর কারন তারা সেখানে বিএনপির ভোটগুলোও পাচ্ছে।" যেসব সিটে জামায়াত নির্বাচিত হচ্ছে সেসব এলাকায় বিএনপি মাথা তুলে দাড়াতে পারছে না বলেও অভিযোগ করেন তারা।
 
জামায়াত ছাড়ার প্রসঙ্গে একমত পোশন করে বিএনপির একাধিক নেতা নাম প্রকাশ করার শর্তে মতামত দিয়ে বলেন, সারা বিশ্বের শক্তিধর রাষ্ট্রগুলো এখন ইসলামকে এবং ইসলামী সংগঠনগুলোকো এনিমি মনে করছে। ভারতে বিজেপি হিন্দু মৌলবাদী সংগঠন। বাংলাদেশে মৌলবাদী সংগঠন থাকলেও কোন রায়ট বা দাঙ্গার সাথে সম্পৃক্ত নয়। কিন্তু ভারতে রায়ট হয়, হাজার হাজার মুসলমানকে হত্যা করা হয়, বাড়ি ঘর জ্বালিয়ে দেয়া হয়। এধরনের ধ্বংসাত্নক ভয়ঙ্কর কর্মকান্ড বিজেপি করে। তারপরও বিজেপির প্রতি ভারত বা বিশ্ব সম্প্রদায় কারো তেমন কোন ‘শত্রুতা’ নেই যেমনটা আছে জামায়াত, ইসলাম বা ইসলামী রাস্ট্র ও সংগঠনগুলোর প্রতি।

দলটির এক নেতা বলেন, বিএনপি বরাবরই বলে আসছে জামায়াতের সাথে বিএনপির কোন আদর্শিক মিল নেই, এই জোট শুধু মাত্র আন্দোলন এবং নির্বাচনের জোট। এই কথা খুব পরিস্কার করে বলা সত্বেও, উপরে উল্লেখিত কারণে বাংলাদেশ ও সারা বিশ্বে ইসলাম বিরোধী প্রচারনা এবং ‘শত্রুতার’ মনোভাব দানা বাধছে। তারা মনে করে ইসলাম এবং ইসলামী দলগুলো তাদের মুল শত্রু। এই কারনেই জামায়াতের সাথে বিএনপি থাকার কারনে বিএনপির গায়ে জঙ্গি তকমাটা লাগানোর চেস্টা সবসময় চলছে।
বিশেষ করে বর্তমান সরকার তো এই তকমাটা বিএনপিকে লাগিয়েই যাচ্ছে।
 
জামায়াত যেহেতু বিএনপির সাথে আছে, তাই তারা বলছে, জামায়াত সকল অপকর্মে হোতা। বিএনপি জামায়াতকে লালন করে। তাই তারা একই দোষে দুষ্ট।

দলের সিনিয়র নেতারা আরো মনে করেন, জামায়াতের কারনে বিএনপি ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে।
তারা বলেন, জামায়াতের কিছু ভোট আছে তা আমাদের প্রার্থীরা পান, তাতে বিএনপি অতটা লাভবান হয় না, যতটা বিএনপির ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়ে জামায়াত লাভবান হয়।

দলের সিনিয়র নেতারা আরো মনে করেন, এসব দিক বিবেচনা করে অবশ্যই জামায়াতকে বিএনপির ত্যাগ করা উচিৎ। কারন বিএনপির একাই আন্দোলন ও নির্বাচন করে জয়ী হবার মতো যোগ্য দল।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য লে জে অব. মাহবুবুর রহমান নিউজ বাংলাদেশকে বলেন, যারা এসব বলছে তারা তাদের দৃস্টিকোন থেকে বলছে। তবে আমি মনে করি, বিএনপি শহীদ জিয়াউর রহমানের আদর্শে গড়া মুক্তিযুদ্ধের দল, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা লালন করি। জামায়তের এজেন্ডা ভিন্ন, আদর্শ ভিন্ন, গঠনতন্ত্র আলাদা। জামায়াতকে বিএনপির সাথে মিলিয়ে দেখার কিছু নেই।

তিনি বলেন, অন্য দলগুলোর সাথে বিএনপির যেমন আন্দোলনের জোট জামায়াতের সাথেও তেমনি। অন্য দলগুলো যেমন আছে জামায়াতও আছে। তিনি বলেন, বিএনপি তার নিজের শক্তিতে চলবে। কারো কাছ থেকে সাহায্য ধার করার প্রয়োজন নেই। সময়ই বলে দিবে কে কার সাথে থাকবে আর থাকবে না। সামনে যে ঝড় আসবে, সেই আন্দোলনের ঝড় মোকাবেলা করতে গিয়ে অনেকেই হয়তো ঝড়ে যাবে।

জামায়াত ত্যাগ প্রসঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট আহমেদ আজম খান নিউজ বাংলাদেশকে বলেন, আমরা দল পূনর্গঠনে মনোনিবেশ করেছি তাই শুধু জামায়াত নয় ২০ দলীয় জোটকেই আপাতত বিলুপ্ত করা হলে কোন ক্ষতি হবে না বলে মনে করি। ‍শুধু জামায়াতকে বাদ দিলে তারা ভুল বুঝতে পারে, তবে এই মুহুর্তে ২০ দলীয় জোটেরই কোন প্রয়োজন আছে বলে আমি মনে করছি না। তবে, এসব দলীয় নয় নিজের ব্যক্তিগত মতামত উল্লেখ করে তিনি বলেন,পরবর্তী সময়ে আবার যখন আন্দোলন এবং নির্বাচনের প্রশ্ন আসবে তখন বিবেচনা করা যেতে পারে।

নিউজবাংলাদেশ/আরআর/এসজে

পশুর চেয়েও নিকৃষ্ট ধর্ষক: প্রধানমন্ত্রী করোনা ভাইরাসের কারণে হজে যাওয়া না হলে টাকা ফেরত: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী দাঙ্গা নয়, দিল্লিতে পরিকল্পিত গণহত্যা হয়েছে: মমতা ভারতের সম্মান তলিয়ে দিয়েছে মোদি সরকার: মমতা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে সুনামগঞ্জে এনামুল-রুপন ছয় দিনের রিমান্ডে পিরোজপুরে সাবেক ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা চলতি বছরই তিস্তা চুক্তির সম্ভাবনা: শ্রিংলা ঢাকা উত্তরের নির্বাচন বাতিল চেয়ে তাবিথের মামলা খুলনায় ছাত্রলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা অভিনেতা গোলাম মুস্তাফার জন্মদিন সোমবার আদালতে টাউট-বাটপার শনাক্তের নির্দেশ পাওয়ার ট্রলিকে ধাক্কা দিয়ে বিকল রেলইঞ্জিন কলকাতা সফরে এসে প্রবল বিক্ষোভের মুখে অমিত শাহ রোবট চালাবে গাড়ি! ভিপি নূরকে হত্যার হুমকি দেয়ার পর দুঃখ প্রকাশ টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৭ জন নিহত রাখাইনপ্রদেশে সেনাদের গুলিতে শিশুসহ ৫ রোহিঙ্গা নিহত ইস্কাটনে ভবনে আগুন: মায়ের পর চলে গেলেন রুশদির বাবাও চট্টগ্রামে একটি বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ২ দেশে প্রতিদিন যক্ষ্মায় মারা যায় ১৩০ জন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনাভাইরাস আতঙ্কে আয়ারল্যান্ডের স্কুল বন্ধ ঘোষণা বিশিষ্ট সুরকার সেলিম আশরাফ আর নেই মোদীকে অতিথি হিসেবে সর্বোচ্চ সম্মান দেওয়া হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মধুর যত জাদুকরী গুণ চিপসের প্যাকেটের ভিতর খেলনা নয়: হাইকোর্ট আমার গাড়িতেও অস্ত্র আছে কী না আমি জানি না: শামীম ওসমান ফ্র্যান্সেও করোনা, অনিশ্চিত কান চলচ্চিত্র উৎসব উপনির্বাচন: গাইবান্ধা-৩ আসনে প্রতীক বরাদ্দ গুজব ও গণপিটুনি রোধে হাইকোর্টের ৫ নির্দেশনা