artk
শনিবার, এপ্রিল ২৫, ২০১৫ ৮:২৯

চারবার ক্ষমা চাইতে হয়েছিল সেই অধ্যাপককে

media

ঢাকা: চারবার ক্ষমা চাইতে হয়েছিল ভান্ডারিয়ার সহকারী অধ্যাপক মোনতাজ উদ্দীনকে। এসি ল্যান্ড পরীক্ষার হলে গিয়ে দুই ছাত্রীকে সরে বসাতে নির্দেশ দিলে তা অমান্য করায় এবং উচ্চস্বরে পরীক্ষার হলে কথা বলতে নিষেধ করায় এ ধরনের ক্ষমা চাইতে হয় বলে জানা যায়। এ নিয়ে শিক্ষা ক্যাডারে ব্যাপক তোলপাড় চলছে।

প্রতিবাদে এবং দোষীদের বিচারের দাবিতে আগামীকাল ২৬ এপ্রিল সারাদেশে দেওয়া হয়েছে কর্মবিরতি ও মানববন্ধন কর্মসূচি।

এরই মধ্যে পরীক্ষা চলাকালে লক্ষ্মীপুরে ইংরেজি বিষয়ের শিক্ষক ইংরেজি বিষয়ে পরীক্ষার হলে দায়িত্ব পালন করায় ভ্রাম্যমাণ আদালত হ্যান্ডকাপ পরিয়ে ধরে নিয়ে যাওয়ায় এবং ওই শিক্ষককে জরিমানা করায় একইভাবে শিক্ষা ক্যাডারে ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে।

শিক্ষা ক্যাডারের নেতারা বলছেন, “এ রকম অসংখ্য ঘটনা আছে। প্রতিনিয়ত প্রশাসন ক্যাডারের দ্বারা অসংখ্য বঞ্চনা ও নিপীড়নের ঘটনা ঘটছে। এগুলোর স্থায়ী সুরাহা চান শিক্ষা ক্যাডারের সদস্যরা।”

এ উপলক্ষে শুক্রবারও দফায় দফায় বৈঠক হয় মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের কার্যালয়ে। বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতির নেতৃবৃন্দ, ‘মূলধারা’ হিসেবে পরিচিত প্যানেল এবং আন্তঃব্যাচ সমন্বয় কমিটি নামে পরিচিত প্যানেল এদিন রাত পর্যন্ত বৈঠক করে।

জানা যায়, মন্ত্রী ও সচিবের দপ্তর থেকে আদিষ্ট হয়ে মহাপরিচালক সব পক্ষের সঙ্গে বৈঠক করেন। যেহেতু ২৮ এপ্রিল সিটি করপোরেশন নির্বাচন এবং যেহেতু কোনো তদন্ত কমিটি রিপোর্ট এ পর্যন্ত পাওয়া যায়নি, সেহেতু কর্মবিরতি দুচারদিন পেছানোর অনুরোধ করেন তারা।

এ উপলক্ষে মাউশির ওই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়।

অন্যদিকে এদিন শিক্ষামন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব মন্মথ রঞ্জন বাড়ৈর নেতৃত্বে রাত ৯টা পর্যন্ত আন্তঃব্যাচ সমন্বয় কমিটি নায়েম মিলনায়তনে দীর্ঘ সময় ধরে বৈঠক করে।

বৈঠকে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে বলা হয়, “পরীক্ষার হলে এসি ল্যান্ড বা ম্যাজিস্ট্রেটদের দেখভালের কোনো এখতিয়ার নেই। তারা শুধু পরীক্ষার হলের পরিবেশ ও আইনশৃঙ্খলার বিষয়টি দেখবে অথচ তারা গিয়ে এখতিয়ার বহির্ভূতভাবে খবরদারি করছে। অধ্যক্ষ বা সিনিয়র কর্মকর্তাদের সাহেব ও নাম ধরে সম্বোধন করছে।”

নেতারা বলেন, “এগুলোর স্থায়ী প্রতিকার হওয়া দরকার।”

এজন্য প্রয়োজনে মামলায় যাবার পরামর্শ দেন সারাদেশের শিক্ষক নেতারা।

তারা বলেন, “মোনতাজ উদ্দীন একবার নয়। তাকে চার চার বার জুনিয়র ওই কর্মকর্তার কাছে বাধ্য করা হয় ক্ষমা চাইতে। অধ্যক্ষ এতে সহযোগিতা করেন। প্রথমে তিনি সরি বলেন। এসি ল্যান্ড আশ্রাফুল এতেও সন্তুষ্ট হননি। এরপর দুদুবার পা ধরে ক্ষমা চাইলে বলা হয়, যেখানে ঘটনা ঘটেছে, সেখানে গিয়ে ছাত্রীদের সামনে ক্ষমা চাইতে হবে। এরপর মোনতাজ উদ্দীন ছাত্রীদের সামনে গিয়েও ক্ষমা চান।”

নেতারা বলেন, “এ ঘটনার পর মোনতাজ উদ্দীন গলায় ফাঁস দিতে গিয়েছিলেন। কিন্তু মেয়ের কথা চিন্তা করে তিনি আত্মহত্যা করেননি।”

নিউজবাংলাদেশ.কম/কেজেএইচ

যুক্তরাষ্ট্রকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিল হুয়াওয়ে ‘ভারত বুঝুক, হারের পর সামনে এসে উল্লাস করলে কেমন লাগে’ মৎস্য কর্মকর্তা লাঞ্ছিত, উপজেলা চেয়ারম্যান বরখাস্ত নারায়ণগঞ্জে শিশুসহ একই পরিবারের দগ্ধ ৮ নায়ক মান্না চলে যাওয়ার ১ যুগ করোনায় মৃত্যুর মিছিলে আরও ১০০ জন বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে ২ মেডিক্যাল শিক্ষার্থী নিহত ইঁদুরেই খেয়েছে ১ লাখ মেট্রিক টন ফসল করোনাভাইরাস আতঙ্কে সিঙ্গাপুরফেরত স্বামীকে রেখে পালালেন স্ত্রী ঘুষের অভিযোগ থেকে সিনহাকে অব্যাহতি কোভিড ১৯: এবার তাইওয়ানে প্রথম মৃত্যু ভোটাররা দেরিতে ঘুম থেকে উঠায় ভোট হবে ৯টায়: ইসি সচিব এই সেলফি তোলার পরেই ট্রেনের ধাক্কায় স্কুলছাত্রের মৃত্যু করোনাভাইরাস: প্রযুক্তিই চীনের শেষ ভরসা সঞ্চয়পত্রে নয়, সুদ কমেছে ডাকঘর সঞ্চয় স্কিমের: অর্থ মন্ত্রণালয় বিশ্বকাপজয়ী ৬ ক্রিকেটার নিয়ে বিসিবি একাদশ ঘোষণা সিরাজগঞ্জে বাস খাদে পড়ে নিহত ৩ চট্টগ্রাম, বগুড়া ও যশোর সিটিতে ভোট ২৯ মার্চ করোনাভাইরাস শনাক্তে বাংলাদেশকে উন্নত কিটস দেবে চীন একত্রে কাজ করবে ডিএসই ও সিএসই বিশ্রামে রিয়াদ, ফিরলেন তাসকিন-মোস্তাফিজ করের বকেয়া অর্থ না দেয়াও দুর্নীতি: দুদক চেয়ারম্যান দক্ষদের নিয়োগ দিচ্ছে টেসলা, ডিগ্রি না হলেও চলবে খালেদা জিয়ার প্যারোল আবেদন সরকার পায়নি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চিকেন পক্স হলে কী খাবেন বাংলা তারিখ ব্যবহারে নিষ্ক্রিয়তা কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট কারিগরি শিক্ষার্থীদের বেশি গুরুত্ব দেয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ডিএসইএক্সের সেরা দ্বিতীয় উত্থান মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে তৃতীয় মেয়াদে শপথ নিলেন কেজরিওয়াল ফিটনেস ও নিবন্ধনহীন গাড়ি বন্ধে সব জেলায় টাস্কফোর্স গঠনের নির্দেশ