artk
শনিবার, এপ্রিল ১১, ২০১৫ ৮:৪২

ডিজিটাল যুগেও চলছে প্রাচীন সেচ পদ্ধতি!

media

নওগাঁ: বিদ্যুৎ চালিত গভীর নলকূপ না থাকায় নওগাঁর মান্দা উপজেলার বিল উথরাইলের ১০ হাজার হেক্টর  জমিতে চলছে মান্ধাতার আমলের সেচ পদ্ধতি ‘দোন’।

এতে তিন ফসলের পরিবর্তে এক ফসল আবাদে বাধ্য হচ্ছেন কৃষকরা। ব্যাহত হচ্ছে কৃষি উৎপাদন।
 
স্থানীয় সূত্র জানায়, এই এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া হলে শুধু বোরো মৌসুমেই প্রায় ৪ লাখ মণ অতিরিক্ত ধান উৎপাদন করা সম্ভব হত। একইসাথে প্রচুর পরিমাণে সরিষা উৎপাদনও সম্ভব হত। কিন্তু বিদ্যুৎ সংযোগের অভাবে সেচ যন্ত্র চালু করতে না পারায় বিলে এক ফসল আবাদে বাধ্য হচ্ছেন কৃষকরা।

সূত্র জানায়, জেলার মান্দা উপজেলার ভারসো ইউনিয়নের ছয়টি বিল নিয়ে বিল উথরাইল। এগুলো হলো-বিল উথরাইল, বিল মহানগর, বিল কালিসভা, বিল সিদ্ধেশ্বরী, বিল মানকি ও বিল রাজেন্দ্রবাটি। এখানে রয়েছে প্রায় ১০ হাজার হেক্টর জমি, যা স্থানীয় হিসাবে ৭৫ হাজার বিঘা। এ বিলের ওপর নির্ভরশীল আশপাশের ৪০টি গ্রামের কয়েক হাজার কৃষকের জীবন-জীবিকা ।

সূত্র আরও জানায়, বিলে বিদ্যুৎ চালিত সেচ যন্ত্র কিংবা গভীর নলকূল না থাকায় পুরনো ‘দোন’ পদ্ধতির মাধ্যমে সেচ দিয়ে বোরো আবাদ করা হয়। এ পদ্ধতিতে চার পাঁচ ধাপে বিল থেকে পানি এনে নিজ নিজ জমিতে সেচ দিতে হয়, যা খুবই দুঃসাধ্য ও কষ্টকর। এর ফলে উৎপাদন হ্রাসের পাশাপাশি প্রতি বছর অনেক জমি অনাবাদি থেকে যায়।  আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হন এলাকার কৃষকরা, পাশাপাশি বঞ্চিত হয় কৃষি অর্থনীতি।

স্থানীয় কৃষক আব্দুল মান্নান ও ইমরান আলী জানান, “দোন পদ্ধতিতে যতক্ষণ বিলে পানি থাকে, ততক্ষণ নালা কেটে চার পাঁচ ধাপে পানি এনে প্রতি বিঘায় ধান উৎপাদন করতে কেবল সেচ খরচ করতে হয় সাড়ে ৪ হাজার টাকা।”

কৃষক আব্দুস সালাম ও ইব্রাহিম হোসেন বলেন, “বীজ, জমি তৈরি, পরিচর্যা, মাড়াই খরচ বাদ দিলে কৃষকের কোনো লাভ থাকে না। এতোকিছুর পরও প্রতি বিঘায় ধান উৎপাদন হয় ১৮-২০ মণ। অথচ গভীর নলকূপের মাধ্যমে সেচ দিতে পারলে প্রতি বিঘায় সেচ বাবদ খরচ হবে ৫০০-৬০০ টাকা। পাশাপাশি ধান উৎপাদন হবে ২৫-২৭ মণ।”

তারা আরও জানান, “বিলের পুরো জমি চাষের আওতায় আনা হলে বছরে বিলে ১৫ লাখ মণ অতিরিক্ত খাদ্য শস্য উৎপাদন হবে। রবি মৌসুমেও এসব জমিতে সরিষা চাষ করে কৃষকরা বাড়তি টাকা উপার্জন করতে পারেন।”

এ বিষয়ে মান্দা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম বলেন, “চলতি বোরো মৌসুমে এ উপজেলায় ২২ হাজার হেক্টর জমিতে বোরো চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এর মধ্যে প্রায় অর্ধেক জমিই বিল উথরাইলের। কাজেই ধান উৎপাদনের ক্ষেত্রে জেলার মান্দা উপজেলার বিশেষ অবদান রয়েছে।”

তিনি আরও বলেন,“বৈদ্যুতিক মোটর কিংবা গভীর নলকূপের মাধ্যমে এ বিলের জমি সেচ সুবিধায় আনা গেলে ফসল উৎপাদনে নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হবে। এতে উৎপাদন খরচও অনেক কমে যাবে। লাভবান হবেন কৃষক। একই সঙ্গে রবি মৌসুমে বিলে প্রচুর পরিমাণে সরিষা উৎপাদন হবে।”

বিল উথরাইলে সেচ সুবিধার জন্য গভীর নলকূপ স্থানে বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে মান্দা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ২৯ মার্চ পল্লী বিদ্যুৎ বিভাগে চিঠি দিয়েছেন। চিঠিতে বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে সুপারিশ করা হয়েছে বলে জানা যায়।

নিউজবাংলাদেশ.কম/কেজেএইচ

পশুর চেয়েও নিকৃষ্ট ধর্ষক: প্রধানমন্ত্রী করোনা ভাইরাসের কারণে হজে যাওয়া না হলে টাকা ফেরত: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী দাঙ্গা নয়, দিল্লিতে পরিকল্পিত গণহত্যা হয়েছে: মমতা ভারতের সম্মান তলিয়ে দিয়েছে মোদি সরকার: মমতা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে সুনামগঞ্জে এনামুল-রুপন ছয় দিনের রিমান্ডে পিরোজপুরে সাবেক ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা চলতি বছরই তিস্তা চুক্তির সম্ভাবনা: শ্রিংলা ঢাকা উত্তরের নির্বাচন বাতিল চেয়ে তাবিথের মামলা খুলনায় ছাত্রলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা অভিনেতা গোলাম মুস্তাফার জন্মদিন সোমবার আদালতে টাউট-বাটপার শনাক্তের নির্দেশ পাওয়ার ট্রলিকে ধাক্কা দিয়ে বিকল রেলইঞ্জিন কলকাতা সফরে এসে প্রবল বিক্ষোভের মুখে অমিত শাহ রোবট চালাবে গাড়ি! ভিপি নূরকে হত্যার হুমকি দেয়ার পর দুঃখ প্রকাশ টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৭ জন নিহত রাখাইনপ্রদেশে সেনাদের গুলিতে শিশুসহ ৫ রোহিঙ্গা নিহত ইস্কাটনে ভবনে আগুন: মায়ের পর চলে গেলেন রুশদির বাবাও চট্টগ্রামে একটি বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ২ দেশে প্রতিদিন যক্ষ্মায় মারা যায় ১৩০ জন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনাভাইরাস আতঙ্কে আয়ারল্যান্ডের স্কুল বন্ধ ঘোষণা বিশিষ্ট সুরকার সেলিম আশরাফ আর নেই মোদীকে অতিথি হিসেবে সর্বোচ্চ সম্মান দেওয়া হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মধুর যত জাদুকরী গুণ চিপসের প্যাকেটের ভিতর খেলনা নয়: হাইকোর্ট আমার গাড়িতেও অস্ত্র আছে কী না আমি জানি না: শামীম ওসমান ফ্র্যান্সেও করোনা, অনিশ্চিত কান চলচ্চিত্র উৎসব উপনির্বাচন: গাইবান্ধা-৩ আসনে প্রতীক বরাদ্দ গুজব ও গণপিটুনি রোধে হাইকোর্টের ৫ নির্দেশনা