artk

স্টাফ রিপোর্টার

শনিবার, জানুয়ারি ২৫, ২০২০ ৮:৪৮

জনতাই আমাদের আগামী সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী: তাবিথ

media

শনিবার রাজধানীর মিরপুর, পল্লবী, ভাষানটেক ও মাটিকাটা এলাকায় নির্বাচনী জনসংযোগে তিনি এসব কথা বলেন।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে বিএনপির প্রার্থী তাবিথ আউয়াল জনগনকে ভবিষ্যৎ সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী উল্লেখ করে বলেছেন, আর মাত্র সাত দিন। এই যাত্রায় আপনারাই হলেন আমাদের আগামী, আমাদের সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী।

শনিবার রাজধানীর মিরপুর, পল্লবী, ভাষানটেক ও মাটিকাটা এলাকায় নির্বাচনী জনসংযোগে তিনি এসব কথা বলেন।

তাবিথ উপস্থিত জনতার উদ্দেশ্যে বলেন, যদি সবাই ঐক্য থাকেন, তাহলে আমাদের ভোট কেউ ছিনিয়ে নিতে পারবে না। মনে রাখবেন, আমাদের আবহাওয়া, আমাদের এলাকা, আমাদের উন্নয়ন, আমাদের দেশ-সবকিছু বদলে যেতে পারে। সে সম্ভাবনার জন্যই আপনারা ধানের শীষ প্রতীকে ভোট দেবেন।

দুপুরে পল্লবীতে এক পথসভায় রাজধানীবাসীকে ডেঙ্গু, পানি ও বায়ু দূষণে জনগণকে জীবন্ত মেরে ফেলার অভিযোগ করে তিনি বলেন একদিকে মশার জ্বালায় মশার ওষুধ কিনতে হচ্ছে, দূষণের জ্বালায় মাস্ক কিনতে হচ্ছে। দূষণে, ডেঙ্গুতে আমাদের জীবন্ত অবস্থায় মেরে ফেলা হচ্ছে। এ অবস্থার পরিবর্তন আনতেই হবে। পরিবর্তনের প্রতীক হচ্ছে ধানের শীষ।

তাবিথ আউয়াল আরও বলেন, দূষণ নিয়ন্ত্রণের জন্য উচ্চ আদালত রায় দিয়েছিল। আদালতের রায়ের পরপরই কিন্তু সিটি করপোরেশন কিছু পদক্ষেপ নেওয়া শুরু করেছে। ভবিষ্যতে আমরা এমন মেয়র চাই যে আদালতের বা জনগণের দাবির অপেক্ষায় থাকব না। আমরা নিজের কাজ নিজের মন থেকে করব।

এর আগে বেলা ১১টায় মিরপুরের ৬ নম্বর সেকশন কাঁচাবাজারের পাশে পথসভার মাধ্যমে জনসংযোগ শুরু করেন তাবিথ আউয়াল। সেখানে তিনি বলেন, আমাদের মূল শক্তি হচ্ছে জনগণ। তারা আমাদের সঙ্গে আছেন। নির্বাচনী মাঠে আর কোনো অঘটন ঘটুক, তা চাই না। যত বাধা আসুক আমরা শৃঙ্খলা ভাঙবে না।

নির্বাচনী প্রচারণায় বিএনপির প্রার্থীদের ওপর হামলার বিষয়ে নির্বাচন কমিশনের ভূমিকায় হতাশা প্রকাশ করেন তাবিথ আউয়াল। তিনি বলেন, দুঃখজনকভাবে বলতে হচ্ছে, নির্বাচন কমিশন যথাযথভাবে দায়িত্ব পালন করেননি। এ জন্য সামগ্রিকভাবে নির্বাচনে একটি নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। তারপরও আমাদের মনোবল শক্ত আছে, আমরা ইতিবাচক ভূমিকায় আছি। ভোটারদের মন এখন ১ ফেব্রুয়ারির দিকে। ভোটাররা কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে পারলে আমরা জয়লাভ করব।

এর পর মিরপুরের অনিক প্লাজার সামনে পথসভায় তাবিথ বলেন, ১ ফেব্রুয়ারি আপনারা ভোটের মাধ্যমে একটি রায়ই দিতে চান। তা হচ্ছে আর এক মুহূর্তও দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে বিনা অপরাধে কারাগারে রাখা যাবে না। তিনি বলেন, আমরা সবাই মুক্তি চাই। যেই দেশে জীবন্ত অবস্থায় মশার কামড়ে মারা যাই, দূষণে মারা যাই, সেই দেশে ব্যাপক পরিবর্তনের দাবি আপনারাই দিয়েছেন। এখন আপনারাই সেটা বাস্তবায়ন করার জন্য তাবিথ আউয়ালকে ধানের শীষে, সাজ্জাদ হোসেনকে ঘুড়ি ও মেহেরেন্নেছা হককে আনারস প্রতীকে ভোট দেবেন।

মাটিকাটায় তাবিথ আউয়াল বলেন, যে এলাকার বাজারেই যাই, দেখি দ্রব্যমূল্য অসহনীয় পর্যায়ে। এলাকায় শিশু ও মা-বোনেরা রাতে নির্ভয়ে চলাচল করতে পারেন না। তাদের নিরাপত্তার যথেষ্ট অভাব রয়েছে। বর্জ্য ব্যবস্থাপনা খুবই করুন, খেলার মাঠ নেই, বাতাস দূষিত। তিনি বলেন, দূষণ মুক্ত পরিবেশ তৈরির জন্য আদালত রায় দিয়েছে। যারা অতীতে দায়িত্বে ছিলেন, তারা আদালতের রায় মানেননি। জনগণের দাবিও তারা পূরণ করেননি। দায়িত্ব দিলে আমরা এ সব দাবি বাস্তবায়নের চেষ্টা করব।

এরপর তাবিথ আউয়াল ইসিবি চত্বরে, ভাষানটেক পকেট গেট, ভাষানটেক কাঁচাবাজার, মানিকদী মাঠের মোড়, বালুরঘাটে, আজিজ মার্কেটে, হাজী মার্কেটে ও আলাউদ্দিনটেকে পথসভা ও গণসংযোগ করেন। এ সময় জাতীয় দলের সাবেক ফুটবলার আমিনুল ইসলাম, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির দপ্তর সম্পাদক এবিএম রাজ্জাক, যুবদল উত্তরের সাধারণ সম্পাদক সফিকুল ইসলাম, জিয়া পরিষদের মহাসচিব এমতাজ হোসেনসহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সব শেষে মিরপুর ১৪ নম্বরে পথসভা করেন তাবিথ আউয়াল। সেখানে এলডিপির সাধারণ সম্পাদক শাহাদত হোসেন সেলিম ও বিএনপির নেতা শাহিদা আক্তার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

পশুর চেয়েও নিকৃষ্ট ধর্ষক: প্রধানমন্ত্রী করোনা ভাইরাসের কারণে হজে যাওয়া না হলে টাকা ফেরত: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী দাঙ্গা নয়, দিল্লিতে পরিকল্পিত গণহত্যা হয়েছে: মমতা ভারতের সম্মান তলিয়ে দিয়েছে মোদি সরকার: মমতা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে সুনামগঞ্জে এনামুল-রুপন ছয় দিনের রিমান্ডে পিরোজপুরে সাবেক ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা চলতি বছরই তিস্তা চুক্তির সম্ভাবনা: শ্রিংলা ঢাকা উত্তরের নির্বাচন বাতিল চেয়ে তাবিথের মামলা খুলনায় ছাত্রলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা অভিনেতা গোলাম মুস্তাফার জন্মদিন সোমবার আদালতে টাউট-বাটপার শনাক্তের নির্দেশ পাওয়ার ট্রলিকে ধাক্কা দিয়ে বিকল রেলইঞ্জিন কলকাতা সফরে এসে প্রবল বিক্ষোভের মুখে অমিত শাহ রোবট চালাবে গাড়ি! ভিপি নূরকে হত্যার হুমকি দেয়ার পর দুঃখ প্রকাশ টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৭ জন নিহত রাখাইনপ্রদেশে সেনাদের গুলিতে শিশুসহ ৫ রোহিঙ্গা নিহত ইস্কাটনে ভবনে আগুন: মায়ের পর চলে গেলেন রুশদির বাবাও চট্টগ্রামে একটি বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ২ দেশে প্রতিদিন যক্ষ্মায় মারা যায় ১৩০ জন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনাভাইরাস আতঙ্কে আয়ারল্যান্ডের স্কুল বন্ধ ঘোষণা বিশিষ্ট সুরকার সেলিম আশরাফ আর নেই মোদীকে অতিথি হিসেবে সর্বোচ্চ সম্মান দেওয়া হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মধুর যত জাদুকরী গুণ চিপসের প্যাকেটের ভিতর খেলনা নয়: হাইকোর্ট আমার গাড়িতেও অস্ত্র আছে কী না আমি জানি না: শামীম ওসমান ফ্র্যান্সেও করোনা, অনিশ্চিত কান চলচ্চিত্র উৎসব উপনির্বাচন: গাইবান্ধা-৩ আসনে প্রতীক বরাদ্দ গুজব ও গণপিটুনি রোধে হাইকোর্টের ৫ নির্দেশনা