artk

নিউজ ডেস্ক

মঙ্গলবার, ডিসেম্বার ৩১, ২০১৯ ৫:৩৩

বিদায়ী বছরে যত আতঙ্ক, কাণ্ড!

media

ক্যালেন্ডারের পাতা আর জীবনের খাতা থেকে হারিয়ে যাচ্ছে আরো একটি বছর। একইসঙ্গে অপেক্ষা নতুন বছরে নতুন সূর্যের। এ বছর নানা কাণ্ড যেমন মানুষের চোখ কপালে তুলে দিয়েছিল, তৈরি হয়েছিল চরম আতঙ্কের পরিবেশ৷। তেমনি নুসরাত মত তেজী মেয়ে দেখিয়ে গেছে কিভাবে প্রতিবাদ করতে হয়।

ক্যালেন্ডারের পাতা আর জীবনের খাতা থেকে হারিয়ে যাচ্ছে আরো একটি বছর। ডুবছে সূর্য একইসঙ্গে অপেক্ষা নতুন সূর্যের, নতুন বছরের। এ বছর নানা কাণ্ড যেমন মানুষের চোখ কপালে তুলে দিয়েছিল, তৈরি হয়েছিল চরম আতঙ্কের পরিবেশ৷। তেমনি নুসরাতের মতো তেজী মেয়ে দেখিয়ে গেছে কিভাবে প্রতিবাদ করতে হয়।

টানা তৃতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় আওয়ামী লীগ

অভাবনীয় জয় নিয়ে জানুয়ারিতে আওয়ামী লীগ টানা তৃতীয়বারের মত শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার গঠন করে৷ তবে নতুন মন্ত্রীসভায় ছিল বড় চমক। আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ ও মতিয়া চৌধুরীর মত জ্যেষ্ঠ নেতারা মন্ত্রিসভায় ডাক পাননি৷ শরিক দলের নেতাদের জায়গায়ও হয়নি ওই মন্ত্রিসভায়। নানা প্রতিশ্রুতি দিয়ে নতুনভাবে যাত্রা শুরু করলেই এক বছরে সরকারের খাতায় তেমন কোনো অর্জন নেই।

ডেঙ্গু

বাংলাদেশে এ বছর সবচেয়ে বড় আতঙ্কের নাম ছিল ডেঙ্গু৷ বর্ষা মৌসুম শুরু আগেই এপ্রিল-মে মাসের দিকে রাজধানী ঢাকায় ডেঙ্গু রীতিমত মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়ে৷ যা এক সময় সারা দেশে ছড়িয়ে যায়৷ ডেঙ্গু প্রতিরোধে ঢাকার দুই মেয়রের নান উদ্যোগও চরম ব্যর্থতায় পর্যবসিত হয়। এবছর ডেঙ্গু ‘ব্যতিক্রমী' চেহারা নিয়ে হাজির হয়েছিল৷ অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার প্রচণ্ড জ্বর তেমন একটা দেখা যায়নি। বরং জ্বর ভালো হওয়ার পর রোগী সবচেয়ে বেশি ঝুঁকির মধ্যে থাকতেন। এবার ডেঙ্গুতে মস্তিষ্ক, হৃদযন্ত্র, যকৃত ও কিডনিরমত সংবেদনশীল অঙ্গ আক্রান্ত হয়ে মানুষের মৃত্যু বেশি হয়েছে। ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা নিয়েও রয়েছে দ্বিমত৷ সরকারি হিসাব মতে ডেঙ্গুতে এবছর সারাদেশে ১১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। কিন্তু বেসরকারি ও সংবাদমাধ্যমের হিসাব অনুযায়ী এবছর সারাদেশে ডেঙ্গুতে দুই থেকে আড়াইশ মানুষ মারা গেছেন।

পেঁয়াজকাণ্ড

এ বছর আরেক আতঙ্কের নাম ছিল পেঁয়াজ৷ নিজেদের বাজার সামলাতে সেপ্টেম্বরে ভারত সরকার হঠাৎ করেই পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধের ঘোষণা দিলে দেশের বাজারে যেন আগুন লেগে যায়। রাতারাতি পেঁয়াজের দাম পাঁচ/ছয় গুণ বেড়ে যায়৷ জ্যামিতিক হারে এই দাম বাড়তে বাড়তে কেজি ২৫০ টাকা পর্যন্ত উঠে যায়। এই সুযোগে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী পেঁয়াজ মজুদ করে বাজার আরও বেসামাল করে দেন।

সরকার নানা দেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানি করে পরিস্থিতি কিছুটা সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেছে। দেশেও পেঁয়াজের মৌসুম শুরু হওয়া দাম কিছুটা কমে এসেছে। তবে এখনো দাম স্বাভাবিকের চেয়ে কয়েকগুণ বেশি বলে মত সাধারণ ভোক্তাদের।

বালিশকাণ্ড

ছয় হাজার টাকার একটি বালিশ ভবনে ওঠাতে খরচ এক হাজার টাকা- রূপপুর পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কর্মীদের আবাসন প্রকল্পের খরচের এমন হিসাব দেখে অনেকেরই চোখ কপালে উঠেছিল।

গ্রিনসিটি আবাসন প্রকল্পের ২০ ও ১৬ তলা ভবনের প্রয়োজনীয় মালামাল কেনা ও ভবনে তোলার কাজে অস্বাভাবিক ব্যয় নিয়ে বছরের মাঝামাঝিতে সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে দুর্নীতির এই চিত্র বেরিয়ে আসে। পরে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজসহ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানে এমন নয়-ছয়ের গল্প প্রকাশ্যে আসে।

আবরার হত্যাকাণ্ড

বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের মত চরম লজ্জার ঘটনাও এবছর ঘটেছে৷ গত ৬ অক্টোবর শেরেবাংলা হলে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের কয়কঘণ্টার নির্যাতনে প্রাণ হারায় আবরার। এর বিরুদ্ধে আন্দোলন শুরু হলে বুয়েট কর্তৃপক্ষ হত্যাকাণ্ডে জড়িত ২৬ শিক্ষার্থীকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করে। তাদের বিরদ্ধে এখন হত্যা মামলা চলছে।

সৌদি আরবে গৃহকর্মী নির্যাতন

গত ২৬ আগস্ট সৌদি আরব থেকে ১১১ নারী গৃহকর্মী দেশে ফিরে আসায় নতুন করে পুরানো সমস্যাটি নিয়ে আলোচনা শুরু হয়৷ ১৯৯২ সাল থেকে বাংলাদেশি নারীরা সৌদি আরবে গৃহকর্মী হিসেবে যাওয়া শুরু করলেও ২০১৫ সালে এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক চুক্তি হয়৷ চুক্তির পর নারী গৃহকর্মী পাঠানোর হার বড়ালেও কিছু দিন যেতে যেতেই নারীরা ফেরত আসতে শুরু করেন। ফেরত আসা নারীরা বেতন না দেওয়া ও যৌন নিপীড়নসহ নানা অভিযোগ করতে থাকেন। তবে এবছর একসঙ্গে অনেক নারীর ফিরে আসা এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কয়েকজন নারীর নির্যাতনের শিকার ও দেশে ফিরিয়ে আনার আকুতির ভিডিও ভাইরাল হলে দেশ জুড়ে সরকারের তীব্র সমালোচনা শুরু হয়। সরকার প্রথমে বিষয়টি এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলেও পরে চাপের মুখে সংসদীয় তদন্ত কমিটি গঠন করে। ওই কমিটির প্রতিবেদনে সৌদি আরবে নারী গৃহকর্মীদের নানা নির্যাতনের পাশাপাশি যৌন নিপীড়নের শিকার হওয়ার প্রমাণ পাওয়া যায়৷ সংকট সমাধানে বাংলাদেশ সরকার বিষয়টি নিয়ে সৌদি সরকারের সঙ্গে আলোচনা করছে।

ক্যাসিনোকাণ্ড

সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝিতে ঢাকার মতিঝিলের ক্লাবপাড়ায় র‌্যাবের অভিযানে অবৈধ ক্যাসিনো ব্যবসার বিষয়টি প্রকাশ্যে চলে আসে৷ শুরু হয় হইচই, সামনে চলে আসে যুবলীগের প্রভাবশালী নেতা ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটের নাম। একে একে বাংলাদেশের ক্রীড়া জগতের নামকরা দুই ক্লাব মোহামেডান স্পোর্টিং ও কলাবাগান ক্রীড়া চক্রের নামও ক্যাসিনো কাণ্ডে জড়িয়ে যায়৷ দেশের ক্রীড়া অঙ্গনে এত বড় আঘাত আর আসেনি৷ তীব্র ঝাঁকুনিতে থরথর করে কাঁপতে থাকা ক্রীড়া অঙ্গনে ঠগ বাছতে গাঁ উজাড় হওয়ার অবস্থা হয়।

ফুলবাগান ক্লাব (মিরপুর), চলন্তিকা ক্লাব (মিরপুর), আরামবাগ ক্রীড়া চক্র, ইয়ং মেনস (ফকিরাপুল), ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব, আরামবাগ ক্লাব, দিলকুশা ক্লাব, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র, ঢাকা ওয়ান্ডারার্স ক্লাব, বনানী গোল্ডেন ক্লাব, ঢাকা ক্লাব, দিলকুশা স্পোর্টিং ক্লাব, কলাবাগান ক্রীড়া চক্র ও বনানী ক্লাবে অবৈধ জুয়ার আসর বসার খবর প্রকাশ পায়।

রাজাকারের তালিকায় মুক্তিযোদ্ধা

বছরের শেষদিকে এসে সম্ভবত এ বছরের সবচেয়ে লজ্জাজনক ঘটনা ঘটেছে৷ বিজয় দিবসের উপহার হিসেবে ১৫ ডিসেম্বর সরকার রাজাকারের যে তালিকা প্রকাশ করে তাতে অনেক মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠকের নাম চলে আসে৷ যা নিয়ে তীব্র সমালোচনা শুরু হলে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক তাড়াহুড়ায় ভুল হয়েছে স্বীকার করে দুঃখ প্রকাশ করেন এবং বর্তমান তালিকা স্থগিত করে পরে সংশোধিত তালিকা প্রকাশ করার কথা জানান।

নুসরাত

বাংলাদেশের অগ্নিকন্যা নুসরাত জাহান রাফি৷ নিজের অপমানের প্রতিবাদ জানানোয় ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার এ ছাত্রীকে প্রাণ পর্যন্ত দিতে হয়েছে৷ অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ তোলায় গত ৬ এপ্রিল পরীক্ষার হল থেকে ছাদে ডেকে নিয়ে নুসরাতের গায়ে কেরসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়৷ মৃত্যুর মুখে দাঁড়িয়েও নিজের অবস্থান থেকে একচুল না সরে অপমানের বিচার চেয়ে গেছে এই কিশোরী। ২৪ অক্টোবর নুসরাত হত্যা মামলার ১৬ আসামির সবাইকে মৃত্যুদণ্ড দেয় আদালত।

খেলাধূলা

এ বছর ক্রীড়া অঙ্গনে বিশেষ করে নারীদের হাত ধরে কিছু সাফল্য ধরা দিলেও বড় ধাক্কা হয়ে এসেছে সাকিব আল হাসানের উপর আইসিসির এক বছরের নিষেধাজ্ঞাদেশ। ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পাওয়ার পর তা গোপন করায় বাংলাদেশের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিবকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে আইসিসি৷ তবে দোষ স্বীকার করায় এক বছরের শাস্তি স্থগিত রাখা হয়েছে। শাস্তি মেনে নিয়ে নিজের কাজের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন সাকিব।

মৃত্যু

এ বছর কয়েকজন নামীদামী মানুষ ও রাজনীতিককে হারিয়েছে বাংলাদেশ। ওই তালিকায় আছেন হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ, সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, সাদেক হোসেন খোকা, মমতাজউদ্দীন আহমদ, শাহনাজ রহমতুল্লাহ, সুবীর নন্দী আল মাহমুদ, আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল, চিত্রশিল্পী কালিদাস কর্মকার, অধ্যাপক অজয় রায় ও ফজলে হাসান আবেদ।

পশুর চেয়েও নিকৃষ্ট ধর্ষক: প্রধানমন্ত্রী করোনা ভাইরাসের কারণে হজে যাওয়া না হলে টাকা ফেরত: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী দাঙ্গা নয়, দিল্লিতে পরিকল্পিত গণহত্যা হয়েছে: মমতা ভারতের সম্মান তলিয়ে দিয়েছে মোদি সরকার: মমতা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে সুনামগঞ্জে এনামুল-রুপন ছয় দিনের রিমান্ডে পিরোজপুরে সাবেক ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা চলতি বছরই তিস্তা চুক্তির সম্ভাবনা: শ্রিংলা ঢাকা উত্তরের নির্বাচন বাতিল চেয়ে তাবিথের মামলা খুলনায় ছাত্রলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা অভিনেতা গোলাম মুস্তাফার জন্মদিন সোমবার আদালতে টাউট-বাটপার শনাক্তের নির্দেশ পাওয়ার ট্রলিকে ধাক্কা দিয়ে বিকল রেলইঞ্জিন কলকাতা সফরে এসে প্রবল বিক্ষোভের মুখে অমিত শাহ রোবট চালাবে গাড়ি! ভিপি নূরকে হত্যার হুমকি দেয়ার পর দুঃখ প্রকাশ টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৭ জন নিহত রাখাইনপ্রদেশে সেনাদের গুলিতে শিশুসহ ৫ রোহিঙ্গা নিহত ইস্কাটনে ভবনে আগুন: মায়ের পর চলে গেলেন রুশদির বাবাও চট্টগ্রামে একটি বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ২ দেশে প্রতিদিন যক্ষ্মায় মারা যায় ১৩০ জন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনাভাইরাস আতঙ্কে আয়ারল্যান্ডের স্কুল বন্ধ ঘোষণা বিশিষ্ট সুরকার সেলিম আশরাফ আর নেই মোদীকে অতিথি হিসেবে সর্বোচ্চ সম্মান দেওয়া হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মধুর যত জাদুকরী গুণ চিপসের প্যাকেটের ভিতর খেলনা নয়: হাইকোর্ট আমার গাড়িতেও অস্ত্র আছে কী না আমি জানি না: শামীম ওসমান ফ্র্যান্সেও করোনা, অনিশ্চিত কান চলচ্চিত্র উৎসব উপনির্বাচন: গাইবান্ধা-৩ আসনে প্রতীক বরাদ্দ গুজব ও গণপিটুনি রোধে হাইকোর্টের ৫ নির্দেশনা