artk

স্টাফ রিপোর্টার

রোববার, ডিসেম্বার ১৫, ২০১৯ ৭:১৪

আওয়ামী লীগেও রাজাকার আছে: আবদুল গাফ্ফার চৌধুরী

media

‘আওয়ামী লীগের ভেতরে জামায়াতের লোকও আছে। আওয়ামী লীগে কত রাজাকার আছে। বিপদের সময় এরা ভয়ানকভাবে আসে। রাজাকারদের লিস্ট করার আগে এই রাজাকারদের তালিকা প্রকাশ করা উচিত।’

ভাষাসৈনিক আবদুল গাফ্ফার চৌধুরী বলেন, ‘আওয়ামী লীগের ভেতরে জামায়াতের লোকও আছে। আওয়ামী লীগে কত রাজাকার আছে। বিপদের সময় এরা ভয়ানকভাবে আসে। রাজাকারদের লিস্ট করার আগে এই রাজাকারদের তালিকা প্রকাশ করা উচিত।’

রোববার বেলা একটায় রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া মিলনায়তনে সম্প্রীতি বাংলাদেশ আয়োজিত ‘সম্প্রীতি, বঙ্গবন্ধু ও বাঙালির বিজয়’অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভাষাসৈনিক আবদুল গাফ্ফার চৌধুরী এসব কথা বলেন।

গাফ্ফার চৌধুরী বলেন, ‘অনেক রাজাকার আছে, যাদের জিয়াউর রহমান ও এরশাদ সম্মান দিয়েছিল। যেমন বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারী ফারুক। তাকে প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচন করার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল। সেই ফারুককে পরে ফাঁসি দেওয়া হয়েছে। এখনো রাজাকার আছে। অনেক রাজাকার আছে। এখনো আছে। এমনকি আমাদের জননেত্রী শেখ হাসিনার আশপাশেও আছে। তাদের নাম বললে আমার আর ঢাকায় আসা হবে না। তাই আমি নাম বলতে চাই না। এই হচ্ছে অবস্থা।’

তিনি বলেন, রাজাকারদের তালিকা করলে দেখা যাবে, রাজাকাররাই সেই তালিকা তৈরি করছে। ওই তালিকায় মুক্তিযোদ্ধারা রাজাকার, রাজাকাররা মুক্তিযোদ্ধা হয়ে যাবে। কাদের মোল্লাকে শহীদ আখ্যা দেওয়া হয়েছে। এর আগেও ওই পত্রিকা মোনায়েম খানকে শহীদ বলে আখ্যায়িত করেছে।

মুক্তিযুদ্ধের পরবর্তী সময়ে আওয়ামী লীগ প্রসঙ্গে আবদুল গাফ্ফার বলেন, ‘বাকশালের সময় আওয়ামী লীগ দাঁড়াতে পারেনি। কারণ, বাকশাল গঠনের তিন মাসের মাথায় বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হলো। তাই বাকশাল ভালো-মন্দ যাচাইয়ের সুযোগ ছিল না। আমার ধারণা, বাকশাল থাকলে আজকের বাংলাদেশের দুর্নীতি, সন্ত্রাস এত ব্যাপক হতো না। হয়তো এত চাকচিক্যময় রাস্তাঘাটও হতো না।’

বর্তমান রাষ্ট্রীয় নেতৃত্ব প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমার ধারণা, শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় রাখা না হলে বাংলাদেশের সর্বনাশ হয়ে যাবে। বাংলাদেশ আফগানিস্তানে পরিণত হবে। এখানে মৌলবাদী নেতৃত্ব এসে যাবে। আওয়ামী লীগকে এ ব্যাপারে সজাগ থাকতে হবে।’

সভাপতির বক্তব্যে সম্প্রীতি বাংলাদেশের আহ্বায়ক পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, একাত্তরের ১৪ ডিসেম্বর শহীদ বুদ্ধিজীবীদের হত্যার বিচার এখনো শেষ হয়নি। এই হত্যাকাণ্ডের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি প্রয়োজন। এর জন্য আগামী এক বছর সম্প্রীতি বাংলাদেশের পক্ষ থেকে গণস্বাক্ষর কার্যক্রম চালানো হবে বলে জানান তিনি।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সম্প্রীতি বাংলাদেশের সদস্যসচিব মামুন আল মাহতাব। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে অনুষ্ঠানে তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হোসেন বলেন, ধর্মীয় সম্প্রীতি বাংলাদেশে থাকবে। কেউ বুদ্ধিজীবীদের নাম মুছে ফেলতে পারবে না। এই বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে কেউ মুছে দিতে পারবে না।

দৈনিক সংগ্রাম প্রসঙ্গে তথ্য প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘একজন জল্লাদ, একজন আত্মস্বীকৃত যুদ্ধাপরাধী, যার আদালতের বিচারের মাধ্যমে ফাঁসির রায় হয়েছে, রায় কার্যকর হয়েছে, একটি পত্রিকা তাকে শহীদ নামে উল্লেখ করেছে। এর বিচার শুরু হয়েছে। আমরা কেউ থেমে নেই। এই পত্রিকার বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ কঠোর ব্যবস্থা তথ্য মন্ত্রণালয়ের নেবে। এই দেশে এমন ধৃষ্টতা আর কোনো দিন যাতে কেউ না নিতে পারে, সেই ব্যবস্থা সরকার নেবে।’

একাত্তরের ১৪ ডিসেম্বর শহীদ বুদ্ধিজীবী হত্যাকাণ্ডে নিহত ব্যক্তিদের স্মরণে অনুষ্ঠানের শুরুতে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্য মুহম্মদ শফিকুর রহমান, বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক, সাংবাদিক ও লেখক হারুন হাবিব, সাবেক সচিব নাসিরউদ্দিন আহমেদ, শহীদ বুদ্ধিজীবী ডা. আলীম চৌধুরীর মেয়ে নুজহাত চৌধুরী প্রমুখ বক্তব্য দেন।

‘আমার কোন অবৈধ সম্পদ নেই’ ২০১৯ সালে ৫৬ সাংবাদিক নিহত: জাতিসংঘ সকালের যেসব অভ্যাস আপনাকে সজিব রাখবে যশোরে গৃহবধু ধর্ষণ: খায়রুলের সম্পৃক্ততা পায়নি পিবিআই নির্বাচন যত ঘনিয়ে আসছে শাসকগোষ্ঠীর সন্ত্রাসীরা তত হিংস্র হচ্ছে: ফখরুল ৩২৯টি কারিগরি স্কুল স্থাপনে ২০৫২৫কোটি টাকার প্রকল্পের অনুমোদন দুর্নীতির তথ্য পেলে ছাড় নয়: ক‌মিশনার আমিনুল দীর্ঘ মেয়াদে অধিনায়কত্ব চান মাহামুদউল্লাহ রিয়াদ ডিবিএর সভাপতি শরীফ আনোয়ার সহ-সভাপতি আলী ও রোজারিও ঢাকা ব্যাংকের সাবেক কর্মকর্তাসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট স্কটল্যান্ডকে ৭ উইকেটে হারিয়ে সুপার লিগে বাংলাদেশ পুঁজিবাজারে সূচক পতন বিজিএমইএ ভবন ভাঙার কার্যক্রম শুরু বুধবার পাকিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিততে চায় টাইগাররা শেষ বলে নাটকীয় জয়ে ফাইনালে বাংলাদেশের মেয়েরা মুশফিকের না যাওয়াকে পূর্ণ সমর্থন মাহমুদউল্লাহর ইবিতে দু’পক্ষের সংঘর্ষ: ছাত্রলীগ সম্পাদকসহ আহত ১৬ যার যতই ক্ষমতা থাকুক, কেউই আইনের ঊর্ধ্বে নয়: আইনমন্ত্রী রিফাত হত্যা: মিন্নির আবেদন খারিজ ঢাবির হলগুলোতে ‘বঙ্গবন্ধু কর্নার’ উদ্বোধন ২৩ জানুয়ারি রকিবুলের হ্যাটট্রিকে ৮৯ রানে অলআউট স্কটল্যান্ড পাকিস্তান সফরের আগে পাঞ্জাবে তিন সন্ত্রাসী আটক পুঁইশাকে ভাগ্য বদল কালীগঞ্জের জাহাঙ্গীরের শিল্প-কারখানার বর্জ্য ব্যবস্থাপনা শক্তিশালী করার নির্দেশ ব্যালটে ভোট চায় বিএনপি রাজধানীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে কারখানার মালিকের মৃত্যু মানুষের মাধ্যমেই ছড়াচ্ছে চীনের রহস্যজনক ভাইরাস মৌলভীবাজারে যুবককে কুপিয়ে হত্যা সাবেক প্রতিমন্ত্রী ইসমত আরা সাদেক আর নেই আবরার হত্যার চার্জ গঠন শুনানি ৩০ জানুয়ারি