artk

স্টাফ রিপোর্টার

মঙ্গলবার, নভেম্বার ১৯, ২০১৯ ৫:৪৫

খালেদা জিয়া দাঁড়াতে-বসতে বা হাতে তুলে খেতে পারেন না: রিজভী

media

২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি পায়ে হেঁটে আদালতে যাওয়া বেগম জিয়ার হাত-পা এখন বেঁকে গেছে। খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের জন্মদিন উপলক্ষে কর্মসূচি ঘোষণা করে মঙ্গলবার সকালে নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এসব কথা বলেন।

বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী কারাবন্দী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তিতে সরকার বাধা দিচ্ছে অভিযোগ করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, দেশে গণতান্ত্রিক আন্দোলনের আপোসহীন নেত্রী সাবেক প্রধানমন্ত্রী, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার ক্রমান্বয়ে অবনতি ঘটছে। ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি পায়ে হেঁটে আদালতে যাওয়া বেগম জিয়ার হাত-পা এখন বেঁকে গেছে। খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের জন্মদিন উপলক্ষে কর্মসূচি ঘোষণা করে মঙ্গলবার সকালে নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়া প্রিজন সেলে বন্দি থাকায় হাত-পায়ের ব্যথা সারা শরীরে ছড়িয়ে পড়েছে, জয়েন্টগুলোতে প্রচন্ড ব্যথার কারণে নিজে উঠে দাঁড়াতে পারছেন না, সোজা হয়ে বসতেও পারছেন না। এমনকি নিজের হাতে তুলে খেতেও পারছেন না। স্বাস্থ্যের এতোটাই অবনতি হয়েছে যে, তার অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ পঙ্গু হওয়ার উপক্রম হয়েছে। দেশের প্রতিটি মানুষ তাদের প্রাণপ্রিয় নেত্রীর স্বাস্থ্যের অবনতিতে চরমভাবে উদ্বিগ্ন।

রিজভী বলেন, জনগণের সেন্টিমেন্ট অবজ্ঞা করে সরকার দেশের একজন জনপ্রিয় নেত্রীর জীবনকে নিঃশেষ করার সকল আয়োজনে ব্যস্ত রয়েছে। তার চিকিৎসার অধিকারটুকুও কেড়ে নেয়া হয়েছে। তার ন্যায্য প্রাপ্য জামিনে সরাসরি বাধা দেয়া হচ্ছে। নগ্নভাবে আদালতের ওপর হস্তক্ষেপ করা হচ্ছে। তার স্বাস্থ্য নিয়ে অসত্য সংবাদ পরিবেশন করতে বাধ্য করা হচ্ছে, যা এক ভয়াবহ ও সুদূরপ্রসারী চক্রান্তের বর্ধিত প্রকাশ।

রিজভী বলেন, এই সরকার বাংলাদেশকে দাস শিবিরে পরিণত করছে। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া সাহস, সততা ও দৃঢ়তা দিয়ে প্রত্যক্ষ অন্যায় ও অবিচারকে মোকাবিলা করছেন। তার জামিনে কোনো বাধা দিবেন না। তার পছন্দমত হাসপাতালে তাকে সুচিকিৎসা নেয়ার সুযোগ দিতে হবে।

দেশবাসীর উদ্দেশে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, এই সরকার আপনাদের ভোটে নির্বাচিত নয়। তারা আপনাদের সরকার নয়। আপনাদের কাছে তাদের কোনো দায়বদ্ধতা নেই, দায়বদ্ধতা অন্যখানে। এ কারণে আপনাদের ব্যস্ত রাখতে একটার পর একটা ভয়াবহ সঙ্কট সৃষ্টি করেই চলেছে তারা। এই সংকট কৃত্রিম সংকট, এই সংকট অবাধ লুটপাটের সিন্ডিকেটের কারণে।

তিনি আরো বলেন, অবৈধ সরকারকে সরিয়ে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে পারলে সংকটের সুরাহা হতে থাকবে। কারণ তখন জবাবদিহিতার আওতায় আসবে সবকিছু। আজ দেশের তরুণ সমাজসহ নানা শ্রেণি-পেশার মানুষকে রাজপথে নেমে আসতে হবে। দুনিয়ার দেশে দেশে তরুণরা সব স্বৈরাচারী সরকারগুলোকে পাল্টে দিচ্ছে।

এদিকে বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে- আগামী শনিবার বিএনপির উদ্যোগে ঢাকাসহ দেশব্যাপী জেলা ও মহানগরে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। ওইদিন ঢাকায় এই প্রতিবাদ সমাবেশটি অনুষ্ঠিত হবে নয়াপল্টনস্থ বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সম্মুখে বেলা ২টায়।

এছাড়া বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দেশনায়ক তারেক রহমানের ৫৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বুধবার (২০ নভেম্বর) ঢাকাসহ দেশব্যাপী দলীয় কার্যালয়গুলোতে তার দীর্ঘায়ু কামনা করে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকায় আগামী বৃহস্পতিবার নয়াপল্টনস্থ দলীয় কার্যালয়ে সকাল ১১টায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে।

চাঁদপুরে ৪ টি ইটভাটা গুড়িয়ে ৪৪ লাখ টাকা জরিমানা আদনান সামির নাগরিকত্ব নিয়ে প্রশ্ন রাজা মুরাদের স্কাউটরাই জাতির পিতার স্বপ্নের বাংলাদেশ বিনির্মাণে নেতৃত্ব দেবে: রাষ্ট্রপতি চীনে ভাইরাস: শাহজালাল বিমানবন্দরে বিশেষ সতর্কতা বিশ্বের প্রথম কৃত্রিম মানব ‘নিওন’ খান টোবকোর সত্বাধিকারী সহ ২ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট বাবার সাথে অভিমান কিশোরীর আত্মহত্যা ওয়েট অ্যান্ড সি: সাঈদ খোকনের ব্যাপারে দুদক চেয়ারম্যান আগামীতে আইসিসির সব আয়োজনে বিড করবে বাংলাদেশ: পাপন যশোরে ৯৪টি সোনার বারসহ ৩ যুবক আটক ১৯ সদস্যের প্রাথমিক টেস্ট দল ঘোষণা পাকিস্তানের পুঁজিবাজারে সূচক উত্থান ৯ মাসে যানজট নিরসন করতে দেখিনি, ৩ মাসে কি করবেন: আতিকুলকে তাবিথ নির্বাচনকে বিএনপি তাদের নেত্রীকে মুক্ত করার আন্দোলন মনে করছে: তাপস ইনিংস ব্যবধানে হারের আগে মহারাজের লড়াই দলের প্রয়োজনে জ্বলে উঠতে প্রস্তুত শান্ত সিঙ্গেল ডিজিটে সুদের ঋণ হলে বিনিয়োগ বাড়বে: ডিসিসিআই সভাপতি যুব বিশ্বকাপ: অচেনা স্কটল্যান্ডকেও হারাতে মরিয়া যুবটাইগাররা ব্রিজে ছবি তুলতে গিয়ে ধসে পড়ে নিহত ৯ আচরণবিধি বিধি লঙ্ঘন ঠেকানো না হলে জনগণের আস্থার সঙ্কট হবে: মাহবুব ইনজামাম-ধোনিকে টপকে গেলেন কোহলি লিফট দুর্ঘটনায় করণীয় দেশে ভোটার ১০ কোটি ৯৬ লাখ ৬ হাজার ১৮৭ খুলনায় যুবককে হত্যার দায়ে ৬ জনের যাবজ্জীবন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করবে: মার্কিন রাষ্ট্রদূত আরও ১৪ জেলার শিক্ষক নিয়োগ হাইকোর্টে স্থগিত বিজেপির নতুন সভাপতি হলেন জেপি নাড্ডা শেখ হাসিনার জনসভায় গণহত্যার মামলায় ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড বাংলাদেশি অর্থ পাচারকারীদের বিরুদ্ধে প্রবাসীদের মানববন্ধন রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে মিয়ানমারকে সহায়তা দিবে চীন