artk
বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বার ১২, ২০১৯ ৮:৫৪   |  ২৮,অগ্রহায়ণ ১৪২৬

খুলনা সংবাদদাতা

রোববার, নভেম্বার ১০, ২০১৯ ৪:৪৪

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তাণ্ডব: সাতক্ষীরায় ৫০ হাজার ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত

media

সাতক্ষীরার উপকূলীয় এলাকা ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তাণ্ডবে বিধ্বস্ত হয়েছে ৫০ হাজার ঘরবাড়ি। দিশেহারা হয়ে পড়েছে মানুষ। তবে রোববার দুপুর ১২টা পর্যন্ত জেলার কোথাও হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

সাতক্ষীরার উপকূলীয় এলাকা ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তাণ্ডবে বিধ্বস্ত হয়েছে ৫০ হাজার ঘরবাড়ি। দিশেহারা হয়ে পড়েছে মানুষ। তবে রোববার দুপুর ১২টা পর্যন্ত জেলার কোথাও হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

উপকূলীয় এলাকা শ্যামনগর উপজেলার গাবুরা, বুড়িগোয়ালিনী ও পদ্মপুকুর ইউনিয়নে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এছাড়া জেলার বিভিন্ন অঞ্চলেও কমবেশি ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে।

শ্যামনগর উপজেলার গাবুরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জিএম মাসুদুল আলম বলেন, এলাকায় একটি ঘরবাড়িও নেই। এখানকার বেশিরভাগ ঘরবাড়িই হচ্ছে মাটির তৈরি। দুই একটি টিনের। মাটির তৈরি ঘরবাড়ি ও টিনের ঘরবাড়ি সব বিধ্বস্ত হয়েছে। আমার ইউনিয়নে পাঁচ হাজারেরও অধিক ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। রাস্তাঘাটে গাছপালা পড়ে যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। এলাকার মাছের ঘেরগুলো সব ভেসে গেছে।

একই উপজেলার বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ভবতোষ মন্ডল বলেন, ইউনিয়নের দুই হাজারেরও অধিক কাঁচা ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। মাটির তৈরি কোনো ঘরবাড়িই ভালো নেই। রাস্তাঘাট বন্ধ হয়ে যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ হয়ে গেছে। মাছের ঘেরগুলোও ভেসে গেছে।

অন্যদিকে আশাশুনি উপজেলার শ্রীউলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু হেনা শাকিল জানান, হাজার হাজার ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। মানুষের থাকার জায়গাটুকুও অবশিষ্ট নেই। তবে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

রোববার ভোররাত থেকে শুরু হওয়া প্রবল ঘূর্ণঝড়ে সাতক্ষীরা সদর, তালা, আশাশুনি ও শ্যামনগর উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

সাতক্ষীরা জেলা কন্ট্রোল রুমের তত্ত্বাবধায়ক জেলা ডিআরআরও প্রশান্ত কুমার রায় জানান, জেলাব্যাপী ৫০ হাজার কাঁচা ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। এর মধ্যে আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৩৩ হাজার ৬৬০টি ঘর। সম্পূর্ণরুপে বিধ্বস্ত হয়েছে ১৬ হাজার ৫৮০টি ঘরবাড়ি। এছাড়া জেলার কোথাও কোনো হাতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

 

ক্লাব ব্রুজকে ৩-১ ব্যবধানে হারাল রিয়াল খালেদার জামিন শুনানি বৃহস্পতিবার, আদালতে কড়া নিরাপত্তা কেরানীগঞ্জে প্লাস্টিক কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে নিহত ১ আশঙ্কাজনক ৩৪ পেটের চর্বি কমাবে মৌরি ববির শিক্ষক সমিতির সভাপতি আরিফ সম্পাদক খোরশেদ রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে কাজ করছে যুক্তরাজ্য: রাষ্ট্রদূত নাগরিকত্ব বিলের প্রতিবাদে বিক্ষোভে আসাম-ত্রিপুরা উত্তাল বিশ্ববিদ্যালয়ে সান্ধ্য কোর্স বন্ধে নির্দেশনা সাংবাদিকদের প্রশ্ন শুনেই ফর্ম হারান ইমরুল! ১৩৫ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ, চিশতিসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা সূচকের উত্থান লেনদেন মন্দা কেরানীগঞ্জে প্লাস্টিক কারখানায় আগুন, নিহত ১, দগ্ধ ২৫ আ.লীগে দূষিত রক্ত রাখা হবে না: কাদের বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচে চট্টগ্রামের ৫ উইকেটে জয় শাজাহান খান নিচসা নিয়ে মিথ্যাচার করেছেন: ইলিয়াস কাঞ্চন এফআর টাওয়ারের তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল ১৩ জানুয়ারি খালেদা জিয়ার জামিনে সরকার হস্তক্ষেপ করছে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী খালেদার মুক্তির দাবিতে কাফনের কাপড় পরে যুবদলের বিক্ষোভ বনানী থেকে চীনা নাগরিকের মরদেহ উদ্ধার মিঠুন তাণ্ডবে চট্টগ্রামকে ১৬৩ রানের লক্ষ্য দিল সিলেট সুপ্রিম কোর্টে যাচ্ছে খালেদা জিয়ার মেডিকেল রিপোর্ট পদ্মা সেতুতে বসল ১৮তম স্প্যান, দৃশ্যমান ২.৭ কিলোমিটার রাখাইন বিষয়ে অসম্পূর্ণ-বিভ্রান্তিকর চিত্র তুলে ধরেছে গাম্বিয়া: সু চি কুষ্ঠ বেশি দেখা যাচ্ছে এমন একলাকায় বিশেষ দৃষ্টি দিন: প্রধানমন্ত্রী খালেদার মেডিকেল রিপোর্ট পাল্টানোর চেষ্টা চলছে: ফখরুল বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচে টস জিতে ফিল্ডিংয়ে চট্টগ্রাম টিপু রাজাকারের মৃত্যুদণ্ড দুই বাসের প্রতিযোগিতা, মা-শিশু নিহত আন্তর্জাতিক আদালতে বুধবার বক্তব্য দেবেন সু চি গভীর রাতে চবির ৫ হলে তল্লাশি চালিয়ে দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার