artk
শুক্রবার, নভেম্বার ২২, ২০১৯ ১২:১০   |  ৭,অগ্রহায়ণ ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

সোমবার, অক্টোবার ২১, ২০১৯ ৬:৫৭

স্টেম সেলে ৫৮ শতাংশ কিডনি রোগী সুস্থ

media

কিডনি রোগের চিকিৎসায় স্টেম সেল পদ্ধতি প্রয়োগের মাধ্যমে সাফল্য অর্জন করেছেন বাংলাদেশের চিকিৎসকরা। দেশে এই পদ্ধতির চিকিৎসায় এখন পর্যন্ত ৫৮ শতাংশ রোগী কিডনি সমস্যা থেকে নিরাময় লাভ করেছেন। এই চিকিৎসার প্রসার ঘটাতে পারলে কিডনি চিকিৎসায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

কিডনি রোগের চিকিৎসায় স্টেম সেল পদ্ধতি প্রয়োগের মাধ্যমে সাফল্য অর্জন করেছেন বাংলাদেশের চিকিৎসকরা। দেশে এই পদ্ধতির চিকিৎসায় এখন পর্যন্ত ৫৮ শতাংশ রোগী কিডনি সমস্যা থেকে নিরাময় লাভ করেছেন। এই চিকিৎসার প্রসার ঘটাতে পারলে কিডনি চিকিৎসায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

সোমবার সকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে দুদিনের অসংক্রামক রোগ সম্পকির্ত বৈজ্ঞানিক সম্মেলনের শেষ দিনের সেশনে উপস্থাপিত প্রবন্ধে এ তথ্য জানানো হয়। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ লেজার অ্যান্ড সেল সার্জারি ইনস্টিটিউট অ্যান্ড হসপিটালের (বিএলসিএস হাসপাতাল) চিফ কনসালটেন্ট ডা. জাহাঙ্গীর মো. সারওয়ার।

সেমিনারে জাহাঙ্গীর মো. সারওয়ার বলেন, গবেষকরা জানান, অকেজো কিডনির কার্যকারিতা ফেরাতে চিকিৎসা বিজ্ঞানের সর্বাধুনিক আবিষ্কার স্টেম সেল চিকিৎসা পদ্ধতি। স্টেম সেলের প্রয়োগ শরীরের অকেজো রক্তনালী সচল করা, ক্ষত সারানো, ক্ষতিগ্রস্ত স্নায়ু পুনরুজ্জীবিত করা, স্বাস্থ্যকর নাইট্রিক অক্সাইড রিসেপটর ফিরিয়ে আনতে ভূমিকা রাখে। 

দুরারোগ্য বিভিন্ন রোগের ক্ষেত্রে দীর্ঘমেয়াদী ও ব্যয়বহুল চিকিৎসার পাশাপাশি স্টেম সেল চিকিৎসায় এখন পর্যন্ত সাফল্য পাওয়া যাচ্ছে। আক্রান্ত রোগীদের কেউ কেউ আগে সপ্তাহে তিন থেকে চারদিন ডায়ালাইসিস করাতেন। স্টেম সেল প্রয়োগের পর ধীরে ধীরে তাদের ডায়ালাইসিসের প্রয়োজনীয়তা কমেছে। পর্যায়ক্রমে ডায়ালাইসিস ছাড়াই এসব রোগী সুস্থ জীবনযাপন করতে পারবেন।

সেমিনারে কিডনি বিশেষজ্ঞরা বলেন, কিডনি ট্রান্সপ্ল্যান্ট অত্যন্ত ব্যয়বহুল। তার উপর সুস্থ কিডনি সংগ্রহ করাও দুরূহ। ডায়ালাইসিস নির্ভরতা কমিয়ে রোগীকে সুস্থ করে তুলতে স্টেম সেল পদ্ধতি কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে।

আইন মেনে চললে দুর্ঘটনা অনেকাংশে কমবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ইটিভির সাবেক চেয়ারম্যান সালামের মামলা বাতিল পিইসি পরীক্ষায় শিক্ষার্থী বহিষ্কার কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট বিএনপি নেতাদের বাড়ি ঘেরাও হচ্ছে না কেন: গয়েশ্বর শফিকুরের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা অপরাধীরা মোবাইল ব্যাংকিং চ্যানেল ব্যবহারে করছে: দুদক চেয়ারম্যান সড়ক আইন প্রয়োগে বাড়াবাড়ি না হলে সমস্যা হবে না: কাদের পুঁজিবাজারে সব ধরনের সূচকের উত্থান ‘চাল নেই লবণ নেই বলে অপপ্রচার চালাচ্ছে একটি গোষ্ঠী’ বুরকিনা ফাসোতে পুলিশের অভিযানে ১৮ জিহাদি নিহত জীবনযাত্রায় বদল এনে নিয়ন্ত্রণে রাখুন রক্তচাপ সশস্ত্র বাহিনী দিবসে শিখা অনির্বাণে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা তিনদিনব্যাপী ‘শালুক’-এর নিবিড় সম্মিলন শুরু শুক্রবার ভারতের সাথে ১০০ কোটি ডলারের নৌ-অস্ত্র চুক্তি যুক্তরাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর আশ্বাসে কর্মবিরতি প্রত্যাহার মালিক-শ্রমিকদের চেকপোস্টে ডাকাতের হামলা, ৪ পুলিশ আহত মেলায় রাজস্ব আদায় ২৬১৩ কোটি টাকা রাজধানী সুপার মার্কেটের আগুন নিয়ন্ত্রণে ময়মনসিংহে এক বাড়িতেই ৭ হাজার কেজি লবণ ট্রান্সফাররেবল এলসির সঠিক ব্যবহারে বায়িং হাউজের দক্ষতা বাড়ানো জরুরী জনগণকে শাস্তি দেবেন না প্লিজ: কাদের কাউন্সিলর সাঈদের বিরুদ্ধে মামলা সৈয়দ নূরুল আলমের ‘আমার জীবন ও উন্নয়নের ৪৪ বছর’ টিকাটুলিতে রাজধানী সুপার মার্কেটে ভয়াবহ আগুন শিগগিরই ২২১ বন্ড লেনদেনযোগ্য হবে দেশের মানুষ এখন খোলা জেলে বন্দী: মির্জা আব্বাস ধর্মঘটের প্রভাব চালের বাজারে পড়বে না: খাদ্যমন্ত্রী বায়ুদূষণে শীর্ষে ঢাকা, ২৫ নভেম্বর আন্তমন্ত্রণালয় সভা চট্টগ্রামে পাহাড়ে অস্ত্র তৈরির কারখানা: ২০ অস্ত্রসহ ‘ডাকাত সর্দার’ গ্রেপ্তার ঢাকা-চট্টগ্রাম-সিলেট মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক