artk
মঙ্গলবার, নভেম্বার ১২, ২০১৯ ৭:৩৯   |  ২৮,কার্তিক ১৪২৬

লাইফস্টাইল ডেস্ক

মঙ্গলবার, অক্টোবার ১৫, ২০১৯ ১:০৮

রাত জাগা মানুষের অকাল মৃত্যুর ঝুঁকি বেশি

media

যারা সাধারণত বেশি রাত জাগেন, তারা সকালে ঘুম থেকে উঠতে দেরি করেন। তবে জানেন কী? রাতজাগা মানুষের অকালে মৃত্যুর ঝুঁকি বেশি থাকে। এমনই তথ্য জানিয়েছে একটি গবেষণা।

যারা সাধারণত বেশি রাত জাগেন, তারা সকালে ঘুম থেকে উঠতে দেরি করেন। তবে জানেন কী? রাতজাগা মানুষের অকালে মৃত্যুর ঝুঁকি বেশি থাকে। এমনই তথ্য জানিয়েছে একটি গবেষণা।

যারা রাতে দেরি করে ঘুমাতে যান এবং সকালে দেরি করে ঘুম থেকে ওঠেন, তাদের অকালে মৃত্যুর ঝুঁকি বেশি থাকে। খবর বিবিসি বাংলার।

যুক্তরাজ্যের চার লাখ ৩৩ হাজার মানুষের ওপর জরিপ চালিয়ে দেখা যায়, সকালে তাড়াতাড়ি ওঠা ব্যক্তিদের চেয়ে রাতজাগা মানুষের অকাল মৃত্যুর আশঙ্কা ১০ শতাংশ বেশি।

গবেষণায় দেখা যায়, দেরি করে ঘুম থেকে ওঠার কারণে বিভিন্ন মানসিক ও শারীরিক জটিলতার শিকার হতে হয়।

এ গবেষণার জন্য বিজ্ঞানীরা চার ধরনের মানুষকে বেছে নিয়েছেন। যারা প্রতিদিন নিয়মিত সকালে ওঠেন, যারা মাঝে মাঝে সকালে ওঠেন, যারা মাঝে মাঝে দেরি করে ঘুমান এবং যারা প্রতি রাতে নিয়মিত রাত জাগেন। এই চার ক্যাটাগরিতে থাকা অংশগ্রহণকারীদের বয়স ৩৮-৭৩ বছরের মধ্যে।

পরে এ গবেষণাপত্রটি আন্তর্জাতিক ক্রোনবায়োলজি জার্নালে প্রকাশ করা হয়। সেখানে দেখা যায়, যে ব্যক্তি নিয়মিত সকালে ঘুম থেকে ওঠেন তার গড় আয়ু রাতজাগা ব্যক্তিদের থেকে সাড়ে ছয় বছর বেশি।

তবে এর সঙ্গে ব্যক্তির বয়স, লিঙ্গ, গোত্র, ওজন, আর্থসামাজিক অবস্থা, খাদ্যাভ্যাস, লাইফস্টাইল ইত্যাদি বিভিন্ন বিষয় জড়িত। এসব বিষয়ের সামঞ্জস্যপূর্ণ হিসাব শেষেই দেখা যায়, সকালবেলায় যারা ঘুম থেকে ওঠেন, তাদের অকাল মৃত্যুর হার সবচেয়ে কম। আর যাদের দেহঘড়ি অনিয়মে চলে তাদের এই ঝুঁকি বাড়তেই থাকে।

এ বিষয়ে সুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রোনোবায়োলজি বিভাগের অধ্যাপক ম্যালকম ভনের মতে, রাতজাগার সমস্যা জনস্বাস্থ্য সমস্যায় রূপ নিয়েছে। তাই সূর্যোদয় সূর্যাস্তের সঙ্গে দেহঘড়ির সামঞ্জস্য ঘটাতে কী কী পদক্ষেপ নিতে হবে, এ বিষয়ে আরও গভীর গবেষণার প্রয়োজন বলে জানান তিনি।

নর্থ ওয়েস্টার্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ক্রিস্টেন নুটসন জানান, অবেলায় খাওয়া-দাওয়া, পর্যাপ্ত ঘুমের অভাব, ব্যায়াম না করা, রাতে ঘুম থেকে ওঠা বা মাদক সেবন- এ ধরনের বদভ্যাসের পেছনের প্রধান কারণ দীর্ঘদিনের মানসিক চাপ।

‘ঘন কুয়াশার কারণে লালবাতি দেখতে পাননি চালক’ জাতীয় আয়কর মেলা শুরু বৃহস্পতিবার শিশুটির নাম নাইমা, সঙ্গে থাকা মা ও দাদীর সন্ধান মিলছে না খালেদা জিয়া নিজে হাতে খেতেও পারেন না: মির্জা ফখরুল আর দেখা যাবে না সোহার হাসিমুখ ছাত্রলীগ নেতা সুদীপ্ত হত্যা: আ.লীগ নেতা মাসুম কারাগারে গয়েশ্বর বাবু বিএনপি নামক বটগাছ থেকে কবে সরবেন: হাছান মাহমুদ অসুস্থ মায়ের পাশে থাকতে দেশে ফিরলেন মোসাদ্দেক ভুল প্রকাশের দায়ে ডিএসইর জুবায়ের বরখাস্ত সম্রাট ও এনামুলের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা ঢাকা উত্তর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলনে ভাঙচুর দেশে ফেরার কারণ জানালেন মোসাদ্দেক রেলকর্মীদের আরো দক্ষ করা উচিত: প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রামের সঙ্গে ঢাকা ও সিলেটের ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি হতে লাগবে স্নাতক মেক্সিকোতে আশ্রয় পেলেন ইভো মোরালেস বুলবুলে নিখোঁজ ৯ জেলের মরদেহ উদ্ধার ট্রেন দুর্ঘটনায় হতাহতের ঘটনায় প্রধানমন্ত্রীর শোক ১২ নভেম্বর: উপকূলবাসী আজো ভোলেনি ভয়াল সেই স্মৃতি পেঁয়াজের দাম বাড়ছেই জেএসসি-জেডিসির ৫ পরীক্ষার নতুন সময়সূচি সকালে ঘুম থেকে উঠে পানি পানে ৬ উপকার যুক্তরাজ্যে গাঁজার তৈরি দুটো ওষুধের অনুমোদন স্বেচ্ছাসেবক লীগের ঢাকা মহানগর উত্তরের সম্মেলন মঙ্গলবার চারদিনের সফরে মঙ্গলবার নেপাল যাচ্ছেন রাষ্ট্রপতি কসবায় ২ ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১৫ রাজনীতি গাড়ি-বাড়ি করার পেশা নয়: রাষ্ট্রপতি রাঁঙ্গার বিচারের ভার জনগণের কাছে দিলেন নূর হোসেনের মা পুত্র সন্তানের বাবা হলেন আল আমিন আইসিসি র‍্যাংকিং থেকে মুছে ফেলা হলো সাকিবের নাম