artk

নিজস্ব প্রতিবেদক

বৃহস্পতিবার, অক্টোবার ১০, ২০১৯ ২:০২

জিডিপির প্রবৃদ্ধি কমে হবে ৭ দশমিক ২ শতাংশ: বিশ্বব্যাংক

media

চলতি অর্থবছরে মোট দেশ উৎপাদন (জিডিপি) প্রবৃদ্ধি ৭ দশমিক ২ শতাংশ হবে বলে জানিয়েছে বিশ্বব্যাংক। বৃহস্পতিবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বিশ্বব্যাংকের ঢাকা অফিসে বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট আপডেট রিপোর্টে এ তথ্য জানান।

চলতি অর্থবছরে মোট দেশ উৎপাদন (জিডিপি) প্রবৃদ্ধি ৭ দশমিক ২ শতাংশ হবে বলে জানিয়েছে বিশ্বব্যাংক। বৃহস্পতিবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে আয়োজিত বিশ্ব ব্যাংকের ঢাকা অফিসে বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট আপডেট রিপোর্টে এ তথ্য জানান। এ প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন সংস্থাটির ঢাকা অফিসের সিনিয়র ইকনোমিস্ট বার্নার্ড হ্যাভেন।

বিশ্বব্যাংক জানায়, চলতি বছর (২০২০-২০) অর্থবাজেটে সরকার কাছ থেকে জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৮ দশমিক ২ শতাংশ হওয়ার কথা বলা হলেও তা ৭ দশমিক ২ শতাংশ হতে পারে। আগামী ২০২০-২১ অর্থবছরে প্রবৃদ্ধি কিছুটা বৃদ্ধি বেড়ে দাঁড়াতে পারে ৭ দশমিক ৩ শতাংশে। হিসেব অনুসারে সরকারের সঙ্গে বিশ্ব ব্যাংকের ১ শতাংশের তফাদ রয়েছে।

প্রকাশিত বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট আপডেট রিপোর্টে বলা হয়েছে, মোট জিডিপি প্রবৃদ্ধির মধ্যে কৃষিখাতে প্রবৃদ্ধি হবে ৩ শতাংশ, যা গত অর্থবছর সরকারি হিসেবে হয়েছিল ৩ দশমিক ৫ শতাংশ। শিল্পখাতে প্রবৃদ্ধি কমে দাঁড়াবে ৯ শতাংশ, যা গত অর্থবছরে ছিল ১৩ শতাংশ। সেবাখাতে প্রবৃদ্ধি বেড়ে দাঁড়াবে ৭ শতাংশ, যা গত অর্থবছরে ছিল ৬  দশমিক ৫ পাঁচ শতাংশ।

ব্যক্তিখাতের ভোগ বৃদ্ধি পাবে বলা হয়েছে। এক্ষেত্রে দাঁড়াতে পারে ৬ দশমিক ২ শতাংশে, যা গত অর্থবছরে ছিল ৫ দশমিক ৪ শতাংশ। সরকারি ভোগ ব্যয় ৮ শতাংশ থেকে বেড়ে দাঁড়াতে পারে ৮ দশমিক ১ শতাংশ। চলতি অর্থবছরে মূল্যস্ফীতি হতে পারে ৫ দশমিক ৯ শতাংশ। গত অর্থবছরে মূল্যস্ফীতির হার ছিল সাড়ে ৫ শতাংশ।

বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রিমার্সি মিয়াং টেম্বন বলেন, দারিদ্র্য নিরসনে বাংলাদেশের অর্জন অনেক। গ্রামীণ অর্থনীতি ভাল করছে। তবে টেকসই প্রবৃদ্ধির জন্য চলমান সংস্কার কার্যক্রম ত্বরান্বিত করা, রফতানি বহুমুখীকরণ, ‌খেলাপী ঋণ কমানো, রাজস্ব আদায় বৃদ্ধিসহ অবকাঠামো উন্নয়নের চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবেলায় বিশেষ নজর দিতে হবে।

আরও বলেন, বাংলাদেশের কর্মসংস্থানমুখী শিক্ষা ব্যবস্থা খুব জরুরী। চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হলে দক্ষ জনশক্তির বিকল্প নেই। 

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মার্সি মিয়াং টেম্বন বলেন, জিডিপি গ্রোথ কতো হলো এটা বিষয় না। বিষয় হলো এটা ইতিবাচক হচ্ছে কিনা। তবে বাংলাদেশর গ্রোথ ইতিবাচক। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্বব্যাংকের পরামর্শক ও সাবেক লিড ইকোনোমিস্ট জাহিদ হোসেন, বিশ্বব্যাংকের যেগাযোগ কর্মকর্তা মেহেরিন এ মাহবুব।

নাশকতার মামলায় ফখরুলসহ বিএনপির ২৩ নেতার আগাম জামিন পাটকল শ্রমিকদের আন্দোলন ২২ ডিসেম্বর পর্যন্ত স্থগিত গাজীপুরে ফ্যান কারখানায় আগুন: নিহত ১০ আওয়ামী লীগেও রাজাকার আছে: আবদুল গাফ্ফার চৌধুরী পদ্মা ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান চিশতী পরিবারের বিরুদ্ধে ৫ মামলা অবৈধ লেভেল ক্রসিং বন্ধে হাইকোর্টের রুল গ্রাম পুলিশের চাকরি সরকারিকরণের নির্দেশ তরুণ গায়ক পৃথ্বীরাজের মৃত্যু কোহলি-রোহিতকেই ভয় পাচ্ছেন ব্রায়ান লারা সূচকে পতন অবৈধভাবে দেশে প্রবেশ করলে ফেরত পাঠাবে সরকার: পররাষ্ট্রমন্ত্রী রাজাকারের তালিকা যাচাই বাছাই করে দেখবে ট্রাইব্যুনাল: আইনমন্ত্রী রাজশাহীতে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত ৩ সবচেয়ে দূষিত বায়ুর শহর ঢাকা আ.লীগের এবারের সম্মেলনে সর্বকালের সর্ববৃহৎ উপস্থিতি থাকবে।: কাদের মদ খেয়ে প্রতিবেশীকে পেটালেন সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার! পেশাদার ও সুপ্রশিক্ষিত সশস্ত্র বাহিনী গড়ে তুলতে চাই: প্রধানমন্ত্রী ১০ হাজার ৭৮৯ রাজাকারের তালিকা প্রকাশ ২ সপ্তাহ পর বেনাপোল দিয়ে কাঁচামাল ঢুকছে বাংলাদেশে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিসকে শেখ হাসিনার অভিনন্দন ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগ প্রমাণিত সু চির নেদারল্যান্ডস পার্লামেন্ট সফর বাতিল বিজয় দিবসে নিয়ন্ত্রিত থাকবে রাজধানীর সেসব সড়ক ভারতের নাগরিকত্ব আইন উপমহাদেশে সংঘাত সৃষ্টি করবে: ফখরুল বাংলাদেশের বাজারে আসুসের ডুয়াল স্ক্রিন ল্যাপটপ রাজাকারের তালিকার প্রথম পর্ব প্রকাশ রোববার সাভারে অস্ত্র-গুলিসহ ইউপি সদস্য আটক কেরানীগঞ্জে প্লাস্টিক কারখানায় আগুন: আরও ১ জনের মৃত্যু ভারত আমাদের জায়গা না দিলে কোথায় যাব: প্রশ্ন রূপা গাঙ্গুলীর মোশতাক, জিয়ার মতো মীরজাফররা আর যেন ক্ষমতায় না আসে: হাসিনা