artk

নিজস্ব প্রতিবেদক

বৃহস্পতিবার, অক্টোবার ১০, ২০১৯ ৮:৩৩

ছাত্রসংগঠনকে অঙ্গসংগঠনে ব্যবহার না করার আহ্বান

media

ছাত্রসংগঠনকে রাজনৈতিক দলের অঙ্গসংগঠনে ব্যবহার না করার বিধান বাস্তবায়ন করার দাবি জানিয়েছে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন)। এছাড়া ছাত্রদের অধিকারভিত্তিক গৌরবোজ্জ্বল ছাত্ররাজনীতি ফিরিয়ে আনার পরিবেশ নিশ্চিতের দাবি জানানো হয়েছে।

ছাত্রসংগঠনকে রাজনৈতিক দলের অঙ্গসংগঠনে ব্যবহার না করার বিধান বাস্তবায়ন করার দাবি জানিয়েছে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন)। এছাড়া ছাত্রদের অধিকারভিত্তিক গৌরবোজ্জ্বল ছাত্ররাজনীতি ফিরিয়ে আনার পরিবেশ নিশ্চিতের দাবি জানানো হয়েছে।

বুধবার রাতে সুজনের পাঠানো এক বিবৃতিতে এমন দাবি জানানো হয়।

সুজনের পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, আমরা গভীর উদ্বেগের সঙ্গে লক্ষ্য করছি যে, ফেসবুকে নিজের রাজনৈতিক মতপ্রকাশ করার জন্য বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে নৃশংসভাবে পিটিয়ে হত্যা করার ঘটনায় সারাদেশের মানুষ এখন স্তব্ধ এবং ক্ষুব্ধ। স্বাভাবিকভাবেই আবরার হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় এখন আন্দোলনে উত্তাল। আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা আবরারের খুনিদের সর্বোচ্চ শাস্তিসহ বেশ কয়েকটি দাবি জানিয়েছে।

আবরার হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা এবং শিক্ষার্থীদের এই ন্যায্য আন্দোলনের প্রতি সমর্থন জানিয়ে সুজন জানায়, অতিসত্বর আবরার হত্যাকারীদের শাস্তির আওতায় এনে এ ধরনের ঘটনার যেন পুনরাবৃত্তি না হয় সে ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কর্তৃপক্ষের কাছে আহ্বান জানানো হচ্ছে।

নাগরিক সংগঠন হিসেবে সুজন মনে করে সব নাগরিকের ভিন্নমত ধারণ এবং তা প্রকাশ করার স্বাধীনতা রয়েছে। কোনোভাবেই কেউ যেন তাতে বাধা সৃষ্টি করতে না পারে তা নিশ্চিত করতে হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে সর্বোচ্চ বিদ্যাপিঠ। শিক্ষার্থীরা এখানে জ্ঞান-বিজ্ঞান, পারস্পরিক সহমর্মিতা ও সৌহার্দ্যবোধ চর্চা করবে- এটাই কাম্য। সেখানে ভিন্নমত পোষণ করার জন্য আবরারকে অসুস্থ ছাত্ররাজনীতির বলি হতে হলো, যা কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না। বায়ান্ন’র ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধ এবং নব্বইয়ের স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন- দেশের সব গুরুত্বপূর্ণ বাঁক পরিবর্তনে ছাত্ররাজনীতির গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকা রয়েছে।
অথচ দুঃখের বিষয় হচ্ছে, ছাত্রদের স্বার্থ বাদ দিয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর লেজুড়বৃত্তিতে লিপ্ত হওয়ায় ছাত্ররাজনীতি এখন শুধুই ক্ষমতাচর্চার জায়গায় পরিণত হয়েছে। আমরা গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ ১৯৭২-এ উল্লিখিত ছাত্রসংগঠনগুলোকে রাজনৈতিক দলের অঙ্গসংগঠন হিসেবে ব্যবহার না করার বিধান অবিলম্বে বাস্তবায়ন করে ছাত্রদের অধিকারভিত্তিক গৌরবোজ্জ্বল ছাত্ররাজনীতি ফিরিয়ে আনার পরিবেশ নিশ্চিত করার দাবি জানাচ্ছি। একইসঙ্গে দেশে বিদ্যমান বিচারহীনতার সংস্কৃতির অবসান করতে হবে যাতে এ ধরনের ঘটনা করতে কেউ আর সাহস না পায়।

আবরারের পরিবারের প্রতি সহমর্মিতা জ্ঞাপন করে এতে বলা হয়েছে, আবরার হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষভাবে জড়িতদের খুঁজে বের করে যথাযথ বিচারের আওতায় নিয়ে আসার মাধ্যমে বুয়েটসহ দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়ার গণতান্ত্রিক পরিবেশ ফিরিয়ে আনার জোর দাবি জানাই।

বিশ্বজুড়ে প্রায় ২৬ কোটি শিশু শিক্ষাবঞ্চিত: জাতিসংঘ চাঁদপুরে ১২শ কেজি জাটকা জব্দ ব্যাটিং ব্যর্থতায় ১৩৬ রানেই থেমে গেল বাংলাদেশ মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ছোড়া গোলায় ২ রোহিঙ্গা নারী নিহত গরু আনতে গিয়ে গুলিতে নিহত হলে দায় নেবে না সরকার: খাদ্যমন্ত্রী জুলাই মাসে মঙ্গলে অনুসন্ধান শুরু করার ঘোষণা দিয়েছে চীন ট্যাকসেশন অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি রেজাউল মহাসচিব কায়ছার কন্যা সন্তানের বাবা হলেন আন্দ্রে রাসেল পাকিস্তানের বিপক্ষে ২য় ম্যাচে ব্যাটিংয়ে নেমেই উইকেট হারালো বাংলাদেশ নৌকার কোনো ব্যাক গিয়ার নেই: আতিক বৃদ্ধার কোলে নবজাতক রেখে পালালেন নারী ৯ তলা ভবন থেকে নিচে পড়েই হাঁটা দিলেন নারী বরগুনায় বাসচাপায় মা-ছেলেসহ নিহত ৩ ডিএসইর পিই রেশিও বেড়েছে মূলধন বেড়েছে ২৫ হাজার ৬৯৯ কোটি টাকা ইঁদুর শূকরের মাংসেই বিপদ মধুসূদন দত্তের ১৯৬তম জন্মবার্ষিকী শনিবার ইরানের হামলায় ৩৪ মার্কিন সেনা আহত হয় টেকনাফে ৮০ হাজার ইয়াবাসহ আটক ২ ভারতে মুক্তির আগেই বাংলাদেশে ৪০ প্রেক্ষাগৃহে ‘হুল্লোড়’ ‘যার যা ইচ্ছা বলুক’ তুরস্কে শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহত ১৮ চীনে করোনাভাইরাসে মৃত্যু ৪১ জনে পৌঁছেছে জার্মানিতে বন্দুকধারীর হামলায় নিহত ৬ জিয়া বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বড় বড় পদে অধিষ্ঠিত করেছিলেন: মোজাম্মেল লক্ষ্মীপুরে সরিষা চাষে আগ্রহ বাড়ছে চাষিদের বঙ্গবন্ধুর নাম কেউ মুছে ফেলতে পারবে না: প্রধানমন্ত্রী র‌্যাগিংয়ের অভিযোগে পবিপ্রবির ১৫ শিক্ষার্থী বহিষ্কার হালদা নদীকে ‘বঙ্গবন্ধু মৎস্য হেরিটেজ’ ঘোষণা ‘নির্বাচনী বার্তা কী দেবে, কথাই তো বলতে পারছেন না’