artk
শুক্রবার, অক্টোবার ১৮, ২০১৯ ৬:০৭   |  ৩,কার্তিক ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

বুধবার, অক্টোবার ৯, ২০১৯ ১০:৫৩

আবরারকে হত্যার পর বার্সেলোনার খেলা দেখতে যায় খুনিরা

media

আবরারের খুনিদের ৫ জন

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের পর এর সঙ্গে জড়িত ছাত্রলীগ নেতারা টিভিতে বার্সেলোর খেলা দেখতে গিয়েছিল বলে জানা গেছে।

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষ থেকে করা তদন্তে এ তথ্য জানা গেছে।

ভারতকে গ্যাস, পানি ও সমুদ্রবন্দর দেয়ার বিরোধিতা করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়ার জেরে গত রোববার রাতে বুয়েটের শেরবাংলা হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে আবরারকে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যা করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

এ ঘটনায় আবরারের বাবা ১৯ জনকে আসামি করে একটি মামলা করেন। ঘটনায় জড়িত সন্দেহে বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের ১১ জনকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করে কেন্দ্রীয় কমিটি।

হত্যাকাণ্ডের পর পরই ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষ থেকে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। এর দায়িত্বে ছিলেন ছাত্রলীগের সহসভাপতি ইয়াজ আল রিয়াদ ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক আসিফ তালুকদার। তাদের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়। তারা নির্দিষ্ট সময়েই প্রতিবেদন দাখিল করেন।

এই প্রতিবেদনে হত্যাকাণ্ডের সময় হল প্রশাসনের ‘দায়িত্বহীনতা ও নির্লিপ্ত’ ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তোলা হয়েছে।

তদন্ত কমিটির সদস্য ছাত্রলীগের সহসভাপতি ইয়াজ আল রিয়াদ মঙ্গলবার গণমাধ্যমকে বলেন, “কমিটি করার পর আমরা তৎক্ষণাৎ সেখানে যাই। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন, সাধারণ শিক্ষার্থী, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, গোয়েন্দা সংস্থার দায়িত্বে যারা আছেন, সবার সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করি। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন তৈরি করার নির্দেশ দেয়া হলেও তার আগেই কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে সুপারিশসহ প্রতিবেদন জমা দিই।”

তিনি বলেন, “সেদিন রাতে যারা এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছেন, তারা এর আগে দুর্গাপূজা দেখতে গিয়েছিলেন। সেখানে তারা মদপান করেছিলেন। সবাই মাতাল ছিলেন। তাদের মধ্যে মানবিকতা বলে কিছুই ছিল না। সেখান থেকে এসে তারা একটি স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে আবরারকে তার ১০১১ নম্বর রুম থেকে ২০১১ নম্বর রুমে ডেকে নিয়ে যায় এবং তাকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করে। যার পরিপ্রেক্ষিতে আবরারের মৃত্যুর মতো ঘটনা ঘটে।”

ছাত্রলীগের সহসভাপতি আরও দাবি করেন, “আবরারকে নির্যাতনের সময় ওই কক্ষে তিন থেকে চার শিক্ষার্থী থাকলেও অন্যান্য রুমের কিছু লোক এই নির্যাতনে অংশ নেয়।”

নির্যাতনের একপর্যায়ে অসুস্থ হয়ে আবরার মোবাইলে তার বন্ধু ও সহপাঠীদের সাহায্য চেয়েছিলেন বলেও ছাত্রলীগের তদন্ত প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়। এতে আরও বলা হয়, ‘কিন্তু কারও সাড়া পাননি আবরার ফাহাদ।”

ছাত্রলীগের তদন্ত কমিটির নেতা আরও বলেন, “তদন্তে আরও পেয়েছি, ওই রাতে বার্সেলোনার খেলা ছিল। পূজা থেকে এসে আবরারকে শারীরিক নির্যাতনের পর তারা বার্সেলোনার খেলা দেখতে চলে গিয়েছিলেন।”

“আবরার এই ফাঁকে তার এক বন্ধুকে ফোন করে তাকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করতে অনুরোধ করেছিলেন। কিন্তু তার বন্ধু তাকে সাহায্য করার জন্য এগিয়ে আসেননি। যদি তার বন্ধুরা এগিয়ে আসত, তা হলে হয়তো এমন একটি অপমৃত্যুর মতো ঘটনা নাও ঘটতে পারত”, বলেন ইয়াজ আল রিয়াদ।

এদিকে হলের কক্ষের মধ্যে অন্য ছাত্রদের হাতে নির্যাতিত হয়ে আবরারের মৃত্যুর জন্য প্রশাসনের ‘দায়িত্বহীনতা ও নির্লিপ্ততাকে’ও দায়ী করেছেন ছাত্রলীগ নেতা ইয়াজ আল রিয়াদ।

তিনি প্রশ্ন তোলেন, “হলের মধ্যে রাতভর একটা ছাত্রকে নির্যাতন করা হলেও প্রশাসন কেন বিষয়টি জানতে পারল না? হলের প্রভোস্ট, আবাসিক শিক্ষকরা তা হলে কী দায়িত্ব পালন করলেন?”

এ ঘটনায় প্রশাসন ‘দায়িত্বহীনতার’ পরিচয় দিয়েছেন, এতে কোনো সন্দেহ নেই বলেও মন্তব্য করেন ছাত্রলীগের সহসভাপতি।

তিনি আরও বলেন, হল কর্তৃপক্ষ কোনোভাবেই এর দায়ভার এড়াতে পারে না।’

ফেসবুক বা অন্য কোনো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কারও মত প্রকাশে ছাত্রলীগ বাধা দিতে পারে না বলেও মন্তব্য করেন সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কমিটির এ সহসভাপতি।

তিনি বলেন, “ছাত্রলীগ কখনও কারও ব্যক্তিগত মতপ্রকাশে হস্তক্ষেপ করার অধিকার রাখে না। এমনটি করার অধিকারও নেই। যার যার মত তিনি প্রকাশ করবেন। এ ক্ষেত্রে ছাত্রলীগের কারোর মতপ্রকাশের বিরুদ্ধে হস্তক্ষেপ করার সুযোগ নেই।”

ছাত্রলীগের কেউ যদি কারও মতপ্রকাশের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়ে অপকর্ম করেন, তা হলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান ইয়াজ আল রিয়াদ।

তিনি আরও বলেন, “ছাত্রলীগ একটি বৃহত্তর সংগঠন, ছাত্রলীগ কাউকে মারতে বলে না। যেকোনো ভালো কাজ ছাত্রলীগ সমর্থন করে। যদি কেউ ছাত্রলীগের নাম ভাঙিয়ে কোনো অপরাধ করে তার দায়ভার তাকেই নিতে হবে।

প্রসঙ্গত, ভারতের সঙ্গে চুক্তির বিরোধিতা করে শনিবার বিকেলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন ফাহাদ। এর জের ধরে রোববার রাতে শেরেবাংলা হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে ডেকে নিয়ে তাকে পিটিয়ে হত্যা করেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। পরে তার লাশ সিঁড়িতে ফেলে রাখা হয়।

‘আমি মায়ের কাছে যাবো’ সিলেট বিএনপির কমিটিতে কেন্দ্রের হস্তক্ষেপ না করার ওয়াদা তারেক রহমানের ঐক্যের ডাক গ্রামে নিয়ে যেতে হবে: ড. কামাল সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় ২ বাংলাদেশি নিহত ভুল বোঝাবুঝির কারণে সীমান্তে গোলাগুলি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নওয়াপাড়ায় বাসের ধাক্কায় দুই পথচারীর মৃত্যু আবরার দেশপ্রেমিক জনগণের আন্দোলনের মূর্তপ্রতীক: রিজভী ১ মিটার প্রস্থের বাড়ি শাহ আমানতে ১৩০ সোনার বারসহ যাত্রী আটক সাভারে গাড়ির ধাক্কায় যুবক নিহত জবির বিজ্ঞান বিভাগের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ গণভবনে কেন ডাকা হয়নি ওমর ফারুককে পঞ্চগড়ে রাস্তার ধারে ফুটফুটে শিশু ছাত্র রাজনীতি সূর্যের আলো ঠিকরে পড়ে প্রবালে জয়পুরহাটে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১ টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই রোহিঙ্গা নিহত কম বয়সে মেনোপজে বাড়ে হৃদরোগের সম্ভাবনা ময়মনসিংহে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক ব্যক্তি নিহত স্বনির্ভর হতে লেগেছে ৬৯ বছর, এরপর বিয়ে মানসিক প্রতিবন্ধী ছেলেকে মারধরের নালিশ দেয়ায় কৃষককে পিটিয়ে হত্যা হাব সভাপতিকে ‘ধমক’ দিলেন ধর্ম সচিব স্পর্শকাতর জায়গা থেকে মোবাইল টাওয়ার সরানোর নির্দেশ ব্রেক্সিট চুক্তিকে ‘ক্ষতিকর’ বললেন টিউলিপ নতুন ব্রেক্সিট চুক্তি চূড়ান্ত: জনসন ছেঁড়া জিন্স পরে ট্রোলের শিকার সারা ইমরান খানের বিরুদ্ধে সাবেক স্ত্রী রেহাম খানের অভিযোগ যে কোনো মূল্যে পার্বত্য অঞ্চলে শান্তি প্রতিষ্ঠা করা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ক্যাসিনো বাণিজ্য: কাউন্সিলর সাঈদকে অপসারণ পদ্মায় বিজিবি-বিএসএফ গোলাগুলি, বিএসএফ জওয়ান নিহত!