artk

নিজস্ব প্রতিবেদক

বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বার ২৬, ২০১৯ ৯:১৫

ছাত্রফ্রন্টের নতুন সভাপতি জয়, সাধারণ সম্পাদক প্রিন্স

media

শিক্ষার ব্যয় বৃদ্ধি রুখো, গণতান্ত্রিক শিক্ষাঙ্গন প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে সামিল হোন- প্রতিপাদ্যে সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের (বাসদ) ৫ম কেন্দ্রীয় সম্মেলনের সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।


শিক্ষার ব্যয় বৃদ্ধি রুখো, গণতান্ত্রিক শিক্ষাঙ্গন প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে সামিল হোন- প্রতিপাদ্যে সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের (বাসদ) ৫ম কেন্দ্রীয় সম্মেলনের সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সমাবেশ শেষে আল কাদেরী জয়কে সভাপতি, শ্যামল বর্মণকে সহ-সভাপতি, নাসির উদ্দিন প্রিন্সকে সাধারণ সম্পাদক ও রুখসানা আফরোজ আশাকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ২১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি দেয়া হয়েছে।

বুধবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলায় বেলুন উড়িয়ে এই সম্মেলনের উদ্বোধন করেন স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে শহীদ ডা. মিলনের মা সেলিনা আক্তার। এর আগে জাতীয় সংগীত গাওয়ার সাথে সাথে জাতীয় পতাকা ও সংগঠনের পতাকা উড়ানো হয়। ছাত্রফ্রন্টের এই সম্মেলনে যোগ দিতে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে নেতাকর্মীবৃন্দ এসে যোগ দেন।

সম্মেলনের উদ্বোধন করে সেলিনা আক্তার সম্প্রতি বৈশ্বিক র‍্যাংকিংয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের না থাকার প্রসঙ্গে বলেন, “স্বাধীনতা লাভের পর থেকে শিক্ষাঙ্গনগুলো ক্রমশ নানা কারণে বিতর্কিত হতে থাকে। দেশের শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থীদের একাংশ বিদ্যার্জনের পরিবর্তে টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি, অস্ত্রবাজি ইত্যাদি অনৈতিক কাজের সাথে জড়িয়ে পরে। আমি বলবো, এটা ছাত্রদের অপরাধ নয়, এটা আমাদের অপরাধ। আমরা কোমলমতি ছাত্রদের রাজনীতির নামে নানাভাবে প্রলুব্ধ করে তাদের নৈতিক অধঃপতনের সুযোগ করে দিয়েছি। বর্তমান অবস্থা আরো শোচনীয়।”

তিনি আরও বলেন, “দেশে মাদকের রমরমা ব্যবসার ফলে তরুণ সমাজ আজ মাদকাসক্ত। সব মহলকে মনে রাখতে হবে, এরা আমাদের দেশের ভবিষ্যৎ। এই ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে রক্ষা করতে হলে আমাদের এখনই সচেতন হতে হবে। এই মুহূর্ত থেকে আমাদের নিজেদের চরিত্র সংশোধন করতে হবে। সমাজের প্রতিটি ক্ষেত্রে শুদ্ধি অভিযান চালাতে হবে। নতুবা একদিন দেখবেন আপনার একান্ত আপনজনও এই পঙ্কিলতায় ডুবে গেছে।

হতাশা প্রকাশ করে সেলিনা আক্তার বলেন, দুঃখ হয় এই ভেবে যে, মিলন শৃঙ্খলিত গণতন্ত্রকে মুক্তি দিতে প্রাণ দিয়েছিল, কিন্তু আজও সেই গণতন্ত্র শৃঙ্খলিতই রয়ে গেছে। সমাজে ধনী আরও ধনী হয়েছে, গরিব হয়েছে আরো গরিব। অত্যন্ত দুঃখ ভারাক্রান্ত মনে একজন শহীদের মা হিসেবে বলতে চাই, আমরা বাঙালিরা বড় অকৃতজ্ঞ জাতি। কারণ যে ৩০ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে আমরা একটি স্বাধীন রাষ্ট্র পেয়েছি তাদের স্বপ্নের কথা, সেই শহীদদের স্বপ্নের কথা আজ আমরা ভুলে গেছি। তাই দেশটাকে নিয়ে চলছে ক্ষমতার লড়াই আর লুটপাটের প্রতিযোগিতা। স্বাধীনতার সুফল থেকে তাই সাধারণ মানুষ হচ্ছে বঞ্চিত।

বাসদের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রাজেকুজ্জামান রতন বলেন, আজকে এমন একটা সময় সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের সম্মেলন হচ্ছে যখন বাংলাদেশের মানুষ এই প্রশ্নটাই করছে যে, ক্ষমতায় থাকলে কি জাদুর মন্ত্র আসে, ক্ষমতায় থাকলে আলমারি খুললেই কোটি টাকা, তোষক তুললেই কোটি টাকা। সাধারণ মানুষের আলমারি খুললে বের হয় তেলাপোকা, সাধারণ মানুষের তোষক তুললে বের হয় ছারপোকা আর এদের আলমারি-তোষক তুললেই কোটি টাকা। এই কোটি টাকার উৎস কী? মানুষ এটা জানতে চায়।

প্রগতিশীল ছাত্রজোটের সমন্বয়ক ও ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি মেহেদী হাসান নোবেল বলেন, আজকে যদি বাংলাদেশকে পথ দেখাতে হয়, এই ছাত্ররা যেভাবে বিগত দিনে পথ দেখিয়েছে আজকেও এই বামপন্থী ছাত্র সংগঠনগুলোই পথ দেখাবে। এই জন্য একমাত্র উপায় ঐক্যবদ্ধ হওয়া।

সম্মেলনের উদ্বোধনী পর্বে সভাপতিত্ব করেন ছাত্রফ্রন্টের সভাপতি ইমরান হাবিব রুমন এবং সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন প্রিন্স।

পশুর চেয়েও নিকৃষ্ট ধর্ষক: প্রধানমন্ত্রী করোনা ভাইরাসের কারণে হজে যাওয়া না হলে টাকা ফেরত: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী দাঙ্গা নয়, দিল্লিতে পরিকল্পিত গণহত্যা হয়েছে: মমতা ভারতের সম্মান তলিয়ে দিয়েছে মোদি সরকার: মমতা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে সুনামগঞ্জে এনামুল-রুপন ছয় দিনের রিমান্ডে পিরোজপুরে সাবেক ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা চলতি বছরই তিস্তা চুক্তির সম্ভাবনা: শ্রিংলা ঢাকা উত্তরের নির্বাচন বাতিল চেয়ে তাবিথের মামলা খুলনায় ছাত্রলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা অভিনেতা গোলাম মুস্তাফার জন্মদিন সোমবার আদালতে টাউট-বাটপার শনাক্তের নির্দেশ পাওয়ার ট্রলিকে ধাক্কা দিয়ে বিকল রেলইঞ্জিন কলকাতা সফরে এসে প্রবল বিক্ষোভের মুখে অমিত শাহ রোবট চালাবে গাড়ি! ভিপি নূরকে হত্যার হুমকি দেয়ার পর দুঃখ প্রকাশ টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৭ জন নিহত রাখাইনপ্রদেশে সেনাদের গুলিতে শিশুসহ ৫ রোহিঙ্গা নিহত ইস্কাটনে ভবনে আগুন: মায়ের পর চলে গেলেন রুশদির বাবাও চট্টগ্রামে একটি বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ২ দেশে প্রতিদিন যক্ষ্মায় মারা যায় ১৩০ জন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনাভাইরাস আতঙ্কে আয়ারল্যান্ডের স্কুল বন্ধ ঘোষণা বিশিষ্ট সুরকার সেলিম আশরাফ আর নেই মোদীকে অতিথি হিসেবে সর্বোচ্চ সম্মান দেওয়া হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মধুর যত জাদুকরী গুণ চিপসের প্যাকেটের ভিতর খেলনা নয়: হাইকোর্ট আমার গাড়িতেও অস্ত্র আছে কী না আমি জানি না: শামীম ওসমান ফ্র্যান্সেও করোনা, অনিশ্চিত কান চলচ্চিত্র উৎসব উপনির্বাচন: গাইবান্ধা-৩ আসনে প্রতীক বরাদ্দ গুজব ও গণপিটুনি রোধে হাইকোর্টের ৫ নির্দেশনা